স্টকহলম : বিজ্ঞানীরা বলছেন ছত্রাকের এই জীবাশ্মের বয়স ২৪০ কোটি বছর। তা যদি হয়, তা হলে এটিই হবে বিশ্বের প্রাচীনতম ছত্রাকের জীবাশ্ম। এই জীবাশ্ম আবিষ্কার করেছেন সুইডিশ মিউজিয়াম অব ন্যাচারাল হিস্ট্রির বিজ্ঞানীরা। তাঁরা মনে করছেন, এই ছত্রাক স্থলের থেকে বেশি জন্মায় জলের তলায়। অর্থাৎ সমুদ্রগর্ভে। জীবাশ্মটি আবিষ্কার হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার সমুদ্রতলের এক ধরনের পাথরের গর্তের ভেতর থেকে।

সমুদ্রগর্ভের পাথর খনন করে এই জীবাশ্ম পাওয়া গেছে। তাতে দেখা গেছে ছত্রাক জমাট বাঁধা অবস্থায় রয়েছে, যা বর্তমানে লুপ্ত বলা যায়। এই ধরনের ছত্রাকের ব্যাপারে এর আগে কখনও জানা যায়নি।

এই গবেষক দলটির প্রধান বিজ্ঞানী স্টিফেন বেঙ্গস্টোন জানান, পৃথিবীর যে অংশে এটা পাওয়া গেছে সেখানে রয়েছে জলের গভীরে জীবমণ্ডল। আবার স্থলভাগে থেকেও এই ধরনের ছত্রাকের জীবাশ্ম পাওয়া গেছে। এই দু’ রকম জীবাশ্মরই গঠনপ্রণালী প্রায় একই রকম। এর বিষয়ে এখনও তেমন কিছুই জানা যায়নি। একদম প্রাথমিক স্তরে রয়েছে এ বিষয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা।

তিনি জানান, এর সূতোর মতো অংশগুলো প্রায় ১০০ মিলিমিটার মোটা। এই ছত্রাক জীবাশ্মটির বিশ্বের প্রাচীনতম ছত্রাকের জীবাশ্ম হিসেবে পরিগণিত হওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশি। দক্ষিণ আফ্রিকার সমুদ্রতলের বহুকালের প্রাচীন শিলা খনন করে এই জীবাশ্ম আবিষ্কার করা হয়েছে। শিলার গর্তের মধ্যে এই ছত্রাক জন্মাত বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here