device

ওয়েবডেস্ক: একটি নতুন যন্ত্র আবিষ্কার করলেন বৈজ্ঞানিকরা। এই যন্ত্রের সাহায্যে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ব্লাডার অর্থাৎ মূত্রাশয় সংক্রান্ত বেশ কিছুটা সমস্যার সমাধান হতে পারে অদূর ভবিষ্যতে। এটি এমনই একটি ছোট্টো আর হালকা যন্ত্র যেটি শরীরের ভেতর ব্লাডারে স্থাপন করা যাবে। তাতে করে যাঁরা প্রস্রাবের নানান সমস্যায় ভোগেন তাঁরা অনেকটা সমস্যা মুক্ত হবেন। লাগবে না অস্ত্রোপচার করতে, বা বৈদ্যুতিক যন্ত্রের ব্যবহার করতে। এই নতুন যন্ত্রটি আবিষ্কার করেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট লুইসের ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।

এই যন্ত্রটি ইতিমধ্যেই অন্য প্রাণীর শরীরে ব্যবহার করে দেখা হয়েছে। আচিরেই তা মানব শরীরেও ব্যবহার করা হবে। এই যন্ত্রটি স্থাপনের জন্য লাগবে না কোনো রকমের অস্ত্রোপচার। এটি ক্যাথিটারের মাধ্যমেই ব্লাডার বা মূত্রাশয়ে স্থাপন করা যাবে।

আরও পড়ুন – গভীর রাতে মোবাইলে ৬টা মিসড কল, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব প্রায় দু’কোটি টাকা

জৈবপ্রযুক্তিতে তৈরি এই এলইডি যন্ত্র। এটি বেল্টের মতো আর নরম।

এটি ইঁদুরের মূত্রাশয়ে প্রথম স্থাপন করে দেখা হয়েছে। এটি প্রসাবের পরিমাণ ‘বারে’ কমায়। এটি মূত্রাশয়ের সঞ্চিত মুত্রের পরিমাণ কম্বেশির সঙ্গে সঙ্গে আয়তনে কমে বাড়ে। যন্ত্রটি অপ্টিজেনিক, সঙ্গে আলোর ব্যবহার, মূত্রাশয়ের মধ্যেকার জীবন্ত কোষগুলিকে সক্রিয় করে তুলতে সাহায্য করে।

এতে একটি গাণিতিক পদ্ধতি কাজ করছে। ঠিক কখন মূত্রাশয় খালি থাকে আর কখন ভর্তি থাকে, কত বার প্রসাব ত্যাগের প্রবণতা আসে ইত্যাদি সবই নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা রয়েছে এই যন্ত্রের।

গবেষণাটি প্রকাশিত হয়ে নেচার পত্রিকায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here