করোনাভাইরাস থেকে হওয়া রোগের নাম দিল ‘হু’

0
WHO Director-General Tedros Adhanom Ghebreyesus
সাংবাদিক বৈঠকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস আধানম গেব্রেইয়েসাস

ওয়েবডেস্ক : করোনা ভাইরাস থেকে সৃষ্ট রোগের নাম ঘোষণা করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। মৃত্যুও বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে।

গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১০৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর জেরে নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত চিনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১,১১০।

তবে চিনের হুবেই প্রদেশ থেকে উৎপত্তি হওয়া ভাইরাসটির খুঁটিনাটি এখুনো অজানা থেকে গিয়েছে বিজ্ঞানীদের কাছে। রোগের ধরন দেখে একে করোনাভাইরাস-গোত্রীয় বলে চিহ্নিত করেছন বিজ্ঞানীরা।

গত বছরের শেষের দিকে চিনে ছড়িয়ে পড়া এই রোগকে করোনাভাইরাস বলে ডাকা হচ্ছে। অবশেষে এই ভাইরাসের ফলে সৃষ্ট হওয়া রোগের নাম ঘোষণা করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু। রোগটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘কোভিড-১৯’।

বুধবার বিবিসি জানিয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস আধানম গেব্রেইয়েসাস সুইৎজারল্যান্ডে একটি সাংবাদিক সম্মলনে এই রোগের নাম ঘোষণা করেছেন।

করোনাভাইরাস বলতে ভাইরাসের একটি গোষ্ঠীকে বোঝায়। এর কারণে বিশ্ব জুড়ে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তাতে একে আলাদা কোনো নামে ডাকার বদলে ভাইরাসটির গোষ্ঠী নামেই ডাকা হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান জানিয়েছেন, এমন একটি নাম খোঁজার চেষ্টা চলছিল যেটি কোনো ভৌগলিক অবস্থান, প্রাণী, কোনো ব্যক্তি বা কোনো নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীকে না বোঝায়। সেই পদ্ধতি মেনে নাম দেওয়া হয়েছে।

কী ভাবে দেওয়া হল নতুন নাম?

নতুন নামটি নেওয়া হয়েছে ‘করোনা’, ‘ভাইরাস’, ‘ডিজিজ’ (রোগ) ২০১৯ সালে ভাইরাসটির প্রার্দুভাব ধরে ১৯ নম্বর টি নেওয়া হয়েছে। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব নজরে আসে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.