Russian Pantsir-S1
রাশিয়ার অ্যান্টি এয়ারক্র্যাফ্ট মিসাইল

ওয়েবডেস্ক: অত্যাধুনিক প্রযুক্তির অস্ত্র সম্ভারে সজ্জিত পাঁচটি সেরা দেশের তালিকায় চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক এক নজরে।

আমেরিকা
ছবি গুগল থেকে

১. হ্যাঁ, এ বিষয়ে কোনো দ্বিমত নেই যে, আমেরিকা যুক্ত রাষ্ট্রের হাতে বিশ্বের সব থেকে আধুনিক মানের উন্নত প্রযুক্তির সব অস্ত্রশস্ত্র রয়েছে। যুদ্ধজাহাজ, রোবট, পারমাণবিক সাবমেরিনের ব্যবহার করার সরঞ্জাম-সহ বন্দুক যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে তুলেছে। এই তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন ফিফথ-জেনারেশন জঙ্গি-জেট। আমেরিকা প্রতিবছর নিজের সামরিক খাতে ব্যয় করে থাকে ৫৮১ বিলিয়ন ডলার।

চিন
ছবি গুগল থেকে

২. চিন বিশ্বের সব থেকে জনবহুল দেশ কিন্তু যখন প্রযুক্তির স্থান আসে তখন তার সঙ্গে বেমানান এর অস্ত্রসম্ভার। রিপোর্ট অনুযায়ী, চিন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ফ্লিটস ট্যাঙ্কের মালিক। চিনের বিপুলসংখ্যক সক্রিয় সামরিক কর্মচারী রয়েছে । সামরিক শক্তি বৃদ্ধির জন্য দিন দিন নতুন প্রযুক্তি গ্রহণ করে চলেছে চিন।

ছবি গুগল থেকে

৩. উন্নত প্রযুক্তির সঙ্গে এমকিউ-৯ রিপার, এলবিট হার্মিস ৪৫০, ট্যাঙ্ক, বিমান, পারমাণবিক সাবমেরিনের সম্ভারে যুক্তরাজ্য তৃতীয় স্থান দখল করে আছে। যুক্তরাজ্যের অস্ত্রভাণ্ডার আধুনিক প্রযুক্তির সব কয়টি স্তর উত্তীর্ণ করেছে। মাত্র সাড়ে চার একর জমির উপর ৪০টি ভয়ানক জঙ্গি-জেট মজুত করতে পারে যুক্তরাজ্য।

রাশিয়া
ছবি গুগল থেকে

৪. সেনাবাহিনীর শক্তিতে রাশিয়া এক নম্বরে। রাশিয়ার হাতে আছে মিকয়ান এলএমএফএস এবং পিএকে এফএ। দেশকে শত্রুর হাত থেকে রক্ষা করতে নিরন্তর নতুন অস্ত্র সৃষ্টি করে চলেছে রাশিয়া।

ভারত
ছবি গুগল থেকে

৫. বিশাল সেনাবাহিনী এবং অত্যাধুনিক অস্ত্র সম্ভারের দৌলতে ভারত রয়েছে পাঁচ নম্বর স্থানে। ভারতের হাতে সব থেকে বেশি ট্যাঙ্ক, বিমান, পারমাণবিক অস্ত্র, যুদ্ধক্ষেত্র এবং বায়ুযান রয়েছে। ২০২০ সালের মধ্যে ভারত প্রস্তুত করতে চলেছে ফিফথ-জেনারেশন জঙ্গি-জেট।

তথ্যসূত্র: ইউসি নিউজ

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here