মুম্বই গাঁট টপকে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া মোহনবাগান

0
402

সানি চক্রবর্তী:

রক্ষণ-রোগ কাটিয়ে ঘিুরে দাঁড়ানো। মুম্বই ম্যাচের প্রাক্কালে মোহনবাগান শিবিরের মন্ত্র এটাই। রক্ষণের ভুলে চার্চিল ম্যাচে দু’টো গেল হজম করার জেরে আই লিগের ন’ম্যাচের অপরাজিত তকমায় ছেদ পড়েছে। হারের ক্ষত দগদগে না হলেও রক্ষণের ভুলভ্রান্তিতে বেজায় চটে সঞ্জয় সেন। এডু-আনাসকে আলাদা করে নিয়ে বসে ভিডিও অ্যানালিসিসের ক্লাস থেকে অনুশীলনে হাতেকলমে শুধরে দেওয়া, কোনোটাই বাদ দেননি। বাগান-কোচ রক্ষণের ভুল নিয়ে কতটা চটে তা তাঁর কথাতেই পরিষ্কার। বলছিলেন, “শিক্ষানবিশের মতো গোল হজম করেছি আগের ম্যাচে। ভুলত্রুটিগুলো দ্রুত শোধরাতে হবে। একই ভুল করে গেলে খেতাব জেতা মুশকিল, সেটা মাথায় রেখেই এগোতে হবে।” টানা ম্যাচ খেলার ধকলে হালকা চোট রয়েছে এডু ও আনাস দু’জনেরই। খেলার মতো জায়গাতে দুই ডিফেন্ডারই থাকলেও বিক্রমজিৎ জুনিয়ার ও সঞ্জয় বালমুচুকে পরিবর্ত হিসেবে তৈরি রাখছেন বাগান-কোচ। ডিফেন্সের পাশাপাশি ডিফেন্সিভ ব্লকারদের নিয়ে ভুগতে হচ্ছে সঞ্জয়কে। চোট সারিয়ে ফিরে আসা শেহনাজের ফর্ম মোটেই ভালো যাচ্ছে না। বিক্রমজিৎ সিনিয়রের খেলায় রয়েছে ধারাবাহিকতার অভাব। তবে বাগান সমর্থকদের কাছে ভালো খবর দলে ফিরতে পারেন প্রণয় হালদার। গত ম্যাচে চোটের জেরে দলের সঙ্গে গোয়া যেতে পারেননি তিনি।

প্রতিপক্ষ মুম্বই এফসি তাদের ১২টি ম্যাচের মধ্যে জিতেছে মাত্র একটিতে। তাই তাদের বিরুদ্ধে হয়তো সে ভাবে পরীক্ষিত হবে না বাগান-রক্ষণ। বরং সন্তোষ কাশ্যপের দলের রক্ষণ ভেঙে গোল তুলে নেওয়াটাই চ্যালেঞ্জ হবে এই ম্যাচে। কুপারেজে প্রথম পর্বের ম্যাচে রক্ষণে সাত জনকে নামিয়ে দিয়ে বাগানের পয়েন্ট কেড়ে নিয়েছিলেন কাশ্যপ। অ্যাওয়ে ম্যাচেও অতিরিক্ত রক্ষণাত্মক স্ট্র্যাটেজির খোলস ছেড়ে তারা বেরোবে, এ রকম সম্ভাবনা কম। বরং পয়েন্ট চুরির লক্ষ্যে প্রথম থেকেই ডিফেন্সে মন দেবে তারা। তাই ম্যাচ প্রসঙ্গে সঞ্জয় বলছেন, “কঠিন ম্যাচ। তবে মরণ-বাঁচন নয়, বরং আমাদের কাছে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই। জিততে হবে এই ম্যাচে।” মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে সঞ্জয় পাচ্ছেন না দলের সর্বোচ্চ স্কোরার ড্যারেল ডাফিকে। হালকা চোট থাকায় এই ম্যাচের জন্য বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে তাঁকে। আপফ্রন্টে তাই শুরু করবে জেজে-বলবন্ত জুটি। প্রবীরের বদলে ডান দিকের উইংয়ে ফিরছেন কাটসুমি। সনি খেলবেন বাঁ দিকে। তাই সনি-কাটসুমির ভেদশক্তি ও জেজে-বলবন্তের গোল করার ক্ষমতার উপরেই অনেকাংশে নির্ভর করবে ম্যাচের ফলাফল।

এ দিকে, ৯ এপ্রিলের ফিরতি ডার্বিও হতে চলেছে শিলিগুড়িতে। ফিরতি ডার্বি মোহনবাগানের হোম ম্যাচ হওয়ায় তারা রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে করতে চেয়েছিল। কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে যদিও ম্যাচ আয়োজনের ছাড়পত্র দেওয়া হয়নি। দক্ষিণ কলকাতার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে কোনো ঝামেলা বাঁধলে তা সামলানো মুশকিল বলে নিজেদের কাঁধ থেকে দায়িত্ব ঝেড়ে ফেলেছে পুলিশ প্রশাসন। যার জেরে সুযোগ থেকেও ফের এক বার ডার্বি থেকে বঞ্চিত হল কলকাতা। উলটো দিকে, মরশুমের দু’টো ডার্বিই দেখার সুযোগ পেলেন শিলিগুড়ির বাসিন্দারা।

মোহনবাগান বনাম মুম্বই এফসি

বিকেল ৪ টে ৩৫ মিনিটে। রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে। টেন ২ চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here