দলনেত্রী সুজাতা ঘোষের নেতৃত্বে পর্বতারোহীরা।

ওয়েবডেস্ক: কথায় আছে ‘নো রিস্ক নো গেন।’ অর্থাত্‍ অসাধারণ কীর্তি স্থাপন করতে গেলে ঝুঁকি নিতেই হবে। তা ক্যানিং মাউন্টেনিয়ারিং ক্লাব ঝুঁকিটা নিয়েছিল। আবহাওয়া প্রতিকূল থাকতে পারে, সেটা জেনেও হিমাচলের জগত্‍সুখ অভিযানে গিয়েছিল তারা। নেতৃত্বের পুরোটাই ছিল মহিলা পর্বতারোহীদের ওপরে। সেই অভিযান সফল হয়েছে। সমুদ্রতল থেকে পাঁচ হাজার মিটার উচ্চতার এই শৃঙ্গে সফল ভাবে অভিযান করে ফিরে এল তারা।

গত শনিবার বেলা সাড়ে বারোটা নাগাদ দলের পাঁচজন পুরুষ সদস্যকে নিয়ে শৃঙ্গের চূড়ায় পৌঁছে যান দলনেত্রী সুজাতা ঘোষ। কিছুক্ষণ সেখানে থেকে সফল ভাবেই আবার অবতরণ করেন তাঁরা। তবে এই অভিযানে পদে পদে প্রতিকূলতা ছিল।

উল্লেখ্য, গত ১৪ অক্টোবর ৮ জন মহিলা পর্বতারোহীর নেতৃত্বে কলকাতা ছেড়েছিল ১৮ জনের এই দল। ১৭ অক্টোবর, মানালি থেকে ট্রেকিং শুরু করেন তাঁরা। এর পর ধীরে ধীরে সামিট ক্যাম্পে পৌঁছে যায় দলটি। সামিট ক্যাম্প থেকে শনিবার সকাল সাতটায় শুরু হয় সর্বশেষ অভিযান।

তবে শেষের অভিযানটি সব থেকে কঠিন ছিল বলে জানিয়েছেন দলের সদস্য অমিত ঘোষাল। তাঁর কথায়, “কোমর সমান শুকনো বরফের মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছিল আমাদের। ফলে খুব সমস্যা হচ্ছিল।” এর জন্য শৃঙ্গের শীর্ষে পৌঁছোতে নতুন রুট ব্যবহার করতে হয়েছিল বলেও জানান অমিতবাবু।

রবিবার রাতেই মানালি পৌঁছে গিয়েছে এই পর্বতারোহী দল। এ বার কলকাতা ফেরার পালা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here