graduation ceremony of sonarpur arohi

ওয়েবডেস্ক: ২৯ মে ছিল এভারেস্ট দিবস। আর সেই দিবস উপলক্ষে শনিবার যৌথ ভাবে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল আইএমএফ-এর পূর্ব শাখা এবং সোনারপুর আরোহী।

মাউন্ট এভারেস্ট পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ, যার ডাকে পর্বত অভিযাত্রীরা বার বার ছুটে গিয়েছেন। অভিযাত্রীদের সেই স্রোতে শামিল হয়েছে বাঙালিরাও। আর এক বাঙালির নাম তো মাউন্ট এভারেস্টের সঙ্গে জড়িয়ে স্মরণীয় হয়ে আছে। তিনি রাধানাথ শিকদার।

বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলার পর্বতারোহীরা এই শিখরের উদ্দেশে অভিযান সংগঠিত করেছেন। এবং আগামী প্রজন্মের কাছে স্বপ্নপূরণের পথ প্রশস্ত করেছেন। শনিবার গোর্কি সদনে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে স্মরণ করা হয়েছে সেই সব বীর এভারেস্ট পথগামীদের।satyarup siddhanta and dipali sinhaসে দিনের অনুষ্ঠানে দু’টি দৃশ্যকাব্য উপস্থাপন করেন সত্যরূপ সিদ্ধান্ত ও চন্দন বিশ্বাস। সত্যরূপ সিদ্ধান্ত উপস্থাপন করেন ‘বিশ্বের সপ্তশিখর বিজয়’ শীর্ষক দৃশ্যকাব্য এবং চন্দন বিশ্বাস উপস্থাপন করেন ‘ট্রান্স হিমালয় সাইকেল পরিক্রমা’ শীর্ষক দৃশ্যকাব্য। রুদ্রপ্রসাদ হালদার দেখান একটি এক্সপ্লোরেশন অভিযানের ঘটনাবহুল গল্প।

chandan biswas এ দিনের অনুষ্ঠানে ছিল সোনারপুর আরোহীর এ বছরের গ্র্যাজুয়েশন পর্বও।

এই অনুষ্ঠানের শরিক ছিল বিজপুর পাইওনিয়ার অ্যাডভেঞ্চার সোসাইটি, মাউন্টেনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন অফ কৃষ্ণনগর, হাওড়া ডিসট্রিক্ট মাউন্টেনিয়ার্স ও ট্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশন, ব্যাঙ্গালোর মাউন্টেনিয়ারিং অ্যাসোসিয়েশন, আরোহণ ওয়ান্ডারলাস্ট, স্নাউট অ্যাডভেঞ্চার অ্যাসোসিয়েশন, মাউন্টেন কোয়েস্ট অফ কলকাতা, নীলকণ্ঠ অভিযাত্রী সংঘ, বিএমসি অ্যাডভেঞ্চার্স পুনে এবং বিবর্ত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here