নয়াদিল্লি: বিসিসিআই বনাম সুপ্রিম কোর্ট যুদ্ধে চাঞ্চল্যকর মোড়। শীর্ষ আদালতে শুনানিতে প্রধান বিচারপতি টিএস ঠাকুরের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানাল, তাদের মতে আদালতে মিথ্যে সাক্ষ্য দিয়েছেন বিসিসিআই সভাপতি অনুরাগ ঠাকুর। সুপ্রিম কোর্টের মতে, এই অভিযোগ প্রমাণিত হলে জেলে যেতে হতে পারে অনুরাগকে।

লোঢা পানেলের সুপারিশের ব্যাপারে আইসিসির সিইও ডেভিড রিচার্ডসনের সঙ্গে কী কথা হয়েছে সে ব্যাপারে অক্টোবরে আদালত অনুরাগকে একটি হলফনমা দিতে বলে। এই পরিপ্রেক্ষিতে অনুরাগ আদালতে জানান, এই প্রসঙ্গে রিচার্ডসনের সঙ্গে তাঁর কোনো কথাই হয়নি, বরং আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরের সঙ্গে কথা বলেছেন।  অথচ সুপ্রিম কোর্টের অ্যামিকাস কুইরি গোপাল সুব্রহ্মণ্যম জানান, ৬ আর ৭ আগস্ট দুবাইয়ে আইসিসি মিটিং-এ ডেভিড রিচার্ডসনের সঙ্গে বৈঠক করেন অনুরাগ। সেটা সুপ্রিম কোর্টে অস্বীকার করা মিথ্যে সাক্ষ্য দেওয়ারই সামিল।

বিসিসিআই প্রশাসনে রদবদলের ব্যাপারে অবশ্য এখনও পর্যন্ত শীর্ষ আদালত কোনো রায় দেয়নি। তবে আশা করা হচ্ছে টিএস ঠাকুরের অবসরের আগেই এই বিষয় রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here