Connect with us

খেলাধুলো

এশিয়ান গেমসে স্বর্ণপদকজয়ী বক্সার ডিংকো সিং করোনা আক্রান্ত

Dingko singh

ওয়েবডেস্ক: এশিয়ান গেমসে (Asian Games) স্বর্ণপদক বিজয়ী বক্সার ডিংকো সিংয়ের (Dingko Singh) করোনাভাইরাস নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ রিপোর্ট ধরা পড়ল। এই ঘটনার সঙ্গেই এই প্রথম কোনো প্রথম শ্রেণীর ভারতীয় ক্রীড়াবিদ করোনায় আক্রান্ত হলেন।

গত এপ্রিলে ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য দিল্লিতে নিয়ে যাওয়া হয় ডিংকোকে। সেখান থেকে প্রায় আড়াই হাজার কিমি গাড়িতে পাড়ি দিয়ে তাঁকে মণিপুরে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

দিল্লিতে তাঁর রেডিওথেরাপি নেওয়ার কথা ছিল। বক্সিং ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া (BFI) তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। এমনকী তাঁর জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থাও করা হয়। কিন্তু গত ২৫ মার্চ থেকে লকডাউনের জেরে তাতেও বিলম্ব ঘটে। সড়ক পথেই ইম্ফলে ফিরে যেতে হয় বক্সারকে।

এর আগে ডিংকোর শারীরিক অবস্থায় উদ্বেগ প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু মণিপুর সরকারকে সম্ভাব্য সমস্ত রকমের সহযোগিতার কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই অর্জুন এবং পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন ডিংকো। ১৯৯৮ সালের ব্যাংকক এশিয়ান গেমসে তিনি স্বর্ণপদক লাভ করেন। বর্তমানে লিভারের ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন। মণিপুরে রেডিয়েশন থেরাপির সুবিধার অভাবে বিকল্প হিসাবে গুয়াহাটি-ই বিকল্প। এরই মধ্যে করোনায় (Coronavirus) আক্রান্ত হওয়ার পর উদ্বেগ আরও কিছুটা বাড়ল বইকি!

ক্রিকেট

‘ছোটো থেকেই মগজধোলাই করা হয়’, বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে সরব মাইকেল হোল্ডিং

“ছোটোবেলায় বুঝতাম না মগজধোলাই কী জিনিস। কিন্তু এখন বুঝতে পারি। আমাদের সবাইকে মগজধোলাই করা হয়েছে। শ্বেতাঙ্গদেরও মগজধোলাই করা হয়েছে।”

খবরঅনলাইন ডেস্ক: কৃষ্ণাঙ্গদের বারবার কেন বর্ণবৈষম্যের শিকার হতে হয়, তার একাধিক কারণ তুলে ধরলেন মাইকেল হোল্ডিং (Michael Holding)। তাঁর শক্তিশালী বক্তব্য এখন পুরো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

ইংল্যান্ড আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটাররা ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ করেন। দুই দলের সবার জার্সিতেই ‘ব্ল্যাক লাইভ্‌স ম্যাটার’ (Black Lives Matter) বার্তা লেখা ছিল। এই পুরো ঘটনাটিকে নিয়ে মাইকেল হোল্ডিংয়ের মতামত চান ইংল্যান্ডের স্কাই স্পোর্টসের সঞ্চালক ইয়ান ওয়ার্ড।

হোল্ডিংয়ের ধারণা, ছোটোবেলা থেকেই একজনের মনে শ্বেতাঙ্গ-কৃষ্ণাঙ্গ ভেদাভেদ তৈরি করে দেওয়া হয়। তাঁর বক্তব্য, সবার মগজধোলাই করা হয় ছোটো থেকে। হোল্ডিং বলেন, ‘‘বর্ণবৈষম্য শুরু হয় হাজার বছর আগে। আর বরাবরই শ্বেতাঙ্গ ও কৃষ্ণাঙ্গদের মধ্যে পার্থক্য গড়ে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে, কারা ভালো, কারা খারাপ।’’ 

হোল্ডিং বলেন, “ছোটোবেলায় বুঝতাম না মগজধোলাই কী জিনিস। কিন্তু এখন বুঝতে পারি। আমাদের সবাইকে মগজধোলাই করা হয়েছে। শ্বেতাঙ্গদেরও মগজধোলাই করা হয়েছে।”

জিশুকে শ্বেতাঙ্গ দেখানো নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কিংবদন্তি এই ফাস্ট বোলার। তিনি বলেন, “তুমি (শ্বেতাঙ্গ ইয়ান ওয়ার্ড) আর আমি (কৃষ্ণাঙ্গ মাইকেল হোল্ডিং) দু’জনেই খ্রিস্টান। এ বার জিশুকে দেখো। ছোটো থেকেই জিশুকে আমাদের সামনে কী ভাবে তুলে ধরা হয়েছে? বলা হয়েছে তাঁর সাদা চামড়া, সোনালি চুল, নীল চোখ। জিশুর যেখানে জন্ম, সেখানকার মানুষরা কি আদৌ সে রকম দেখতে?”

হোল্ডিংয়ের কথায়, “এটা মগজধোলাই। বলা হয়েছে, ‘দেখো কী সুন্দর দেখতে। একেই বলে পরিপূর্ণতা’।”

পাশাপাশি জুডাসকে কেন ধর্মীয় কাহিনিতে কৃষ্ণাঙ্গ দেখানো হয়েছে, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রাক্তন কিংবদন্তি।

তিনি বলেন, “তখনকার দিনের গল্পে ফিরে গেলে দেখা যাবে জিশুর বিরুদ্ধে যে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে সেই জুডাস একজন কৃষ্ণাঙ্গ। সেখানেও মগজধোলাই। সবাইকে বুঝিয়ে দেওয়া হল, ‘দেখো জুডাস একজন কৃষ্ণাঙ্গ, মানে একজন বাজে লোক’।”

স্কুল জীবনের গল্পও তুলে ধরলেন হোল্ডিং। তিনি বলেন ‘‘আমাদের স্কুলে কখনও কৃষ্ণাঙ্গদের সাফল্যের গল্প শোনানো হত না।”

হোল্ডিংয়ের কথায়, “সবাই জানেন বাল্‌ব আবিষ্কার করেছেন টমাস আলভা এডিসন। কিন্তু তিনি যে বাল্‌ব আবিষ্কার করেছিলেন, তা বেশি ক্ষণ জ্বলত না। কেউ বলতে পারবেন, কে বাল্‌বের কার্বন ফিলামেন্ট আবিষ্কার করেন? যার সাহায্যে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আলো পাওয়া যায়? অনেকেই জানেন না। তিনি লিউইস হওয়ার্ড ল্যাটিমার। একজন কৃষ্ণাঙ্গ। কোনো স্কুলেই এটা পড়ানো হয়নি। তা হলে কৃষ্ণাঙ্গদের প্রতি সম্মান জন্মাবে কী করে?’’

আরও শক্তিশালী বার্তা দিয়ে হোল্ডিং বলেন, “যারা শাসন করেছে তারাই ইতিহাস লিখেছে। যারা শাসিত হয়েছে, তাদের ইতিহাস লেখার সুযোগ দেওয়া হয়নি। যারা মানুষের ক্ষতি করেছে, তারাই ইতিহাস লিখেছে। যারা ক্ষতি সহ্য করেছে, তারা ইতিহাস লেখেনি। আমাদের দুই দিকের ইতিহাসই সবাইকে পড়াতে হবে। যত দিন না আমরা সেটা করছি, যত দিন না গোটা মানবজাতিকে আমরা শিক্ষিত করছি, তত দিন এই বর্ণবাদ শেষ হবে না।”

Continue Reading

ক্রিকেট

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ১১৬ দিন পর ফিরল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সেই মাহেন্দ্রক্ষণে স্মরণ করা হল জর্জ ফ্লয়েডকে। হাঁটু গেড়ে বসে ‘ব্ল্যাক লাইভ্‌স ম্যাটার’কে মনে করালেন দুই দলের ক্রিকেটাররা।

গত ১৩ মার্চ সিডনিতে অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড ম্যাচের পরেই ক্রিকেটের মঞ্চে পর্দা পড়ে যায়। করোনার দাপটে স্তব্ধ হয়ে যায় সব কিছু। বিশ্বের অধিকাংশ মানুষের মতোই ঘরবন্দি হয়ে যান ক্রিকেটাররাও।

ফের ক্রিকেট ফেরানোর জন্য আলাপ আলোচনা শুরু হয় ইংল্যান্ড আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে। গত মে মাসে ইংল্যান্ড সফরে আসার জন্য রাজি হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে তাদের বেশ কিছু শর্ত পূরণ করতে হত।

গত ৮ জুন ইংল্যান্ডে পা রাখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সবার কোভিড পরীক্ষা হয়। রিপোর্ট নেগেটিভ হওয়ার পর ২১ দিনের কোয়ারান্টাইনে চলে যান ক্রিকেটাররা। সেই কোয়ারান্টাইন পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর নিজেদের মধ্যেই দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানরা।

এরই মধ্যে আমেরিকায় জর্জ ফ্লয়েডের নৃশংস হত্যার ঘটনাও ঘটে গেল। ‘ব্ল্যাক লাইভ্‌স ম্যাটার’ প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে গোটা বিশ্বে। এই প্রতিবাদে শামিল হন দুই দলের ক্রিকেটাররাও।

অবশেষে বুধবার বল গড়াল ক্রিকেটের। ১১৬ বছর পর ফের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দেখছে দুনিয়া। খুশি হয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। খেলা শুরুর ঠিক আগেই হাঁটু গেড়ে বসে পড়েন দুই দলের ক্রিকেটাররা। স্মরণ করেন জর্জ ফ্লয়েডকে।

Continue Reading

ক্রিকেট

জন্মদিনের দিন দেখে নেওয়া যাক অধিনায়ক সৌরভের পাঁচটি কালজয়ী সিদ্ধান্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ৪৮-এ পড়লেন বিসিসিআই (BCCI) সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। এক দিনের ক্রিকেটে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান সৌরভ, ওপেনিংকে অন্যতম মাত্রা এনে দিয়েছেন।

একই সঙ্গে ভারতের অন্যতম সফল অধিনায়কও বটে। তবে যে পরিস্থিতিতে তিনি ভারতীয় দলের হাল ধরেছিলেন, তাতে তিনি যে ধোনি বা কোহলির থেকেও সেরা অধিনায়ক, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এক বার দেখা নিই অধিনায়ক সৌরভের এমন পাঁচটি সিদ্ধান্ত যা কালজয়ী হয়ে উঠেছে।

১) ২০০১-এর কলকাতা টেস্টে ভিভিএস লক্ষ্মণকে ৩ নম্বরে পাঠানো

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেই বিখ্যাত ইডেন টেস্টে ফলো-অন করতে হয় ভারতকে। প্রথম ইনিংসে ভারত মাত্র ১৭১ অল আউট হয়ে গেলেও শুধুমাত্র ভিভিএস লক্ষ্মণই (VVS Laxman) অস্ট্রেলীয় বোলারদের সামনে সাবলীল ছিলেন।

সে কারণে, দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রাবিড়ের বদলে লক্ষ্মণকে তিন নম্বরে ব্যাট করতে পাঠায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এই সিদ্ধান্তটাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। ছয় নম্বরে নামা দ্রাবিড়কে সঙ্গে নিয়ে টেস্টে চতুর্থ দিন পুরো ব্যাট করে যান লক্ষ্মণ। ২৮১ রানের ঐতিহাসিক একটি ইনিংস খেলে ফেলেন তিনি।

এর ফলে নাটকীয় জয় পায় ভারত। বিশ্বের তৃতীয় দল হিসেবে ফলোঅন করার পর টেস্ট ম্যাচ জেতে ভারত। এর পর চেন্নাইয়ে তৃতীয় টেস্ট জিতে সিরিজ ২-১-এ জিতে নেয় সৌরভের ভারত। সিরিজটা ভারতীয় ক্রিকেটের পুরো ভাবমূর্তিই বদলে দেয়।

ইডেনে ফলোঅন করে ভারতের অত্যাশ্চর্য জয় ক্রিকেট-বিশ্বে রীতিমতো আলোড়ন তৈরি করেছিল। তার রেশ এখনও আছে। এখনও প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত ভাবে এগিয়ে থাকা দল প্রতিপক্ষকে ফলোঅন করাতে দু’ বার চিন্তা করে।

২) সহবাগকে দিয়ে ওপেন করানো

শুরু থেকেই মিডিল অর্ডার ব্যাটসম্যান ছিলেন বীরেন্দ্র সহবাগ (Virender Sehwag)। ২০০১-এ সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেকেও ছয় নম্বরে নেমে দুর্ধর্ষ শতরান করেছিলেন তিনি। এক দিনের ক্রিকেটেও পাঁচ বা ছয় নম্বরে নামতেন সহবাগ। এ হেন সহবাগের মধ্যেই অন্য কিছু ব্যাপার খুঁজে পেলেন সৌরভ। বুঝতে পারলেন সহবাগকে দিয়ে ওপেন করালে আরও ভালো ফল পেতে পারে ভারত।

সহবাগকে ওপেনিংয়ে পাঠানোর সেই সিদ্ধান্তটা জে কালজয়ী ছিল, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। টেস্ট ওপেনিংয়ের নতুন সংজ্ঞা দিলেন তিনি। ৫০-এর ওপরে গড় আর দু’টি ত্রিশতরান করে ভারতের অন্যতম সফল ওপেনারদের মধ্যে একজন হয়ে যান সহবাগ।

৩) দ্রাবিড়কে উইকেটকিপার করা

কোচ জন রাইটের সমর্থনে সৌরভের আরও একটি মাস্টারস্ট্রোকীয় চাল। রাহুল দ্রাবিড়কে (Rahul Dravid) এক দিনের দলে উইকেটকিপার করে আনা। দ্রাবিড়ের ব্যাটিং ফর্ম কিছুটা খারাপ হয়ে গিয়েছিল বলে ২০০২-এর গোড়ায় এক দিনের দল থেকে বাদ পড়েছিলেন।

কিন্তু সৌরভ বুঝতে পারেন, দ্রাবিড়ের মতো ব্যাটসম্যানকে এক দিনের দলের বাইরে রাখা উচিত নয়। এর ফলে এক ঢিলে দুই পাখি মরল। ভারতীয় দলে বাড়তি ব্যাটসম্যানও এল, আর উইকেটে পেছনে মোটামুটি নির্ভরযোগ্য একজনকে পাওয়াও গেল।

উইকেটকিপার হিসেবে দ্রাবিড় কতটা দক্ষ ছিলেন, সেটা তো ২০০৩ বিশ্বকাপেই দেখেছি আমরা। সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ সময়েও ব্যাট হাতেও বিশাল ভূমিকা পালন করেছেন তিনি।

৪) ধোনিকে তিন নম্বরে পাঠানো

২০০৪-এর শেষ দিকে বাংলাদেশে অভিষেক হয় মহেন্দ্র সিংহ ধোনির (MS Dhoni)। তিনটে ম্যাচে আহামরি রান পাননি। ধোনিকে সাত নম্বরে পাঠিয়ে তাঁর ব্যাটিং প্রতিভাকে পুরোপুরি নষ্ট করা হচ্ছে, সেটা বুঝেছিলেন সৌরভ। সে কারণেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশাখাপত্তনমে তিন নম্বরে পাঠান ধোনিকে।

ওই ম্যাচেই ধোনি জানান দিয়ে যান তিনি কী! ১৪৮ রানের একটা ইনিংস খেলেন ধোনি। তার পর আর ধোনিকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

৫) তরুণদের তুলে আনা

সহবাগ, যুবরাজ, হরভজন, জাহির খান আর ধোনি – সৌরভের অধিনায়কত্বে উঠে এসেছেন সবাই। ২০০০ সালে গড়াপেটার জাল থেকে ভারতীয় দলকে বের করে আনার পেছনে সৌরভের অন্যতম কারিগর ছিলেন এই তরুণরা।

বিদেশের মাঠে অন্যতম সফল টেস্ট অধিনায়ক সৌরভ। ২৮ টেস্টে ১১টা জয় পেয়ে রয়েছেন বিরাট কোহলির পরেই। সৌরভের এই সাফল্যের পেছনে তরুণদের অবদান যে অনস্বীকার্য তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

Continue Reading
Advertisement
দেশ12 mins ago

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও ভারতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রক

কলকাতা1 hour ago

করোনার পাশাপাশি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে শুরু হচ্ছে অন্যান্য রোগের চিকিৎসা

দেশ2 hours ago

লকডাউন সফল করতে কম্যান্ডো মোতায়েন হল কেরলের গ্রামে

দেশ2 hours ago

অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর ‘সবুজ সংকেত’ দেখছেন নরেন্দ্র মোদী

বিনোদন2 hours ago

‘তারক মেহতা…’ বাদে সোমবার থেকে হিন্দি বিনোদনের চ্যানেলগুলোয় ফিরছে নতুন এপিসোড

দেশ3 hours ago

বলিউড ছবির ধাঁচে কী ভাবে রচিত হয় বিকাশ দুবের ধরা দেওয়ার চিত্রনাট্য?

রাজ্য3 hours ago

ঘুমের মধ্যেই চলে গেলেন মহীনের অন্যতম ‘ঘোড়া’ রঞ্জন ঘোষাল

দেশ3 hours ago

সক্রিয় করোনা রোগীর ৯০ শতাংশই আটটি রাজ্যে!

দেশ10 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৪৮৭৯, সুস্থ ১৯৫৪৭

কলকাতা1 day ago

কলকাতায় লকডাউনের আওতায় পড়া এলাকাগুলির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত

রাজ্য2 days ago

পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় ফের কড়া লকডাউনের জল্পনা

দেশ2 days ago

দ্রুত গতিতে বাড়ছে সুস্থতা, ভারতে এক সপ্তাহেই করোনামুক্ত লক্ষাধিক

বিদেশ2 days ago

অনলাইনে ক্লাস করা ভিনদেশি পড়ুয়াদের আমেরিকা ছাড়তে হবে, নির্দেশ ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকারের

রাজ্য2 days ago

বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা থেকে রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে কড়া লকডাউন

রাজ্য3 days ago

নতুন সংক্রমণ কিছুটা কম, রাজ্যে করোনামুক্ত হলেন ১৫ হাজার

প্রযুক্তি3 days ago

নতুন অ্যাপ ‘সেল্‌ফ স্ক্যান’ নিয়ে এল রাজ্য সরকার! এর কাজ কী?

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা3 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

DIY DIY
কেনাকাটা1 week ago

সময় কাটছে না? ঘরে বসে এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে করুন ডিআইওয়াই আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক :  এক ঘেয়ে সময় কাটছে না? ঘরে বসে করতে পারেন ডিআইওয়াই অর্থাৎ ডু ইট ইওরসেলফ। বাড়িতে পড়ে...

নজরে