সানি চক্রবর্তী :

এক দিকে দুরন্ত নব কলেবরের মুম্বই সিটি এফসি। অন্য দিকে হিসেবনিকেষ কষে মাপা পা ফেলা আতলেতিকো  দে কলকাতা। রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে তৃতীয় আইএসএলের প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি দুই দল। লিগ টেবিলের ফার্স্ট বয়, ফোর্থ বয়ের তফাত এখন অতীত। এ বার নতুন ১৮০ মিনিটের লড়াই।

প্রাথমিক লক্ষ্যে সফল দুই দলের দুই নতুন প্রশিক্ষকই। এ বার টার্গেটটা আরও এক ধাপ। এটিকে ঘরের মাঠে একটি মাত্র ম্যাচেই হেরেছিল, তা আলেকজান্দ্রে গুইমারায়েসের প্রশিক্ষণাধীন দলের কাছেই। তাই সেমিফাইনালের বড়ো মঞ্চে এটিকে শিবিরের কাছে রয়েছে জবাব দেওয়ার সুযোগ। সেই সুযোগকে নতুন চ্যালেঞ্জ মনে করছেন, কিন্তু কোনো মতেই তার মানে বদলা নয়। সাংবাদিক সম্মেলনে এসে পরিষ্কার করে দিলেন এটিকে প্রশিক্ষক খোসে মোলিনা। পাশাপাশি এ দিনের ম্যাচে তাঁর দলকে আন্ডারডগ হিসেবেও মানতে নারাজ তিনি। স্প্যানিশ কোচের সাফ কথা, “মুম্বই শীর্ষে থেকে লিগপর্ব শেষ করেছে বলে অনেকেই তাদের ফেভারিট বলছে, এমনটা মোটেই নয়। গ্রুপ স্তর অন্য ছিল। এটা নতুন ১৮০ মিনিটের লড়াই। যার প্রথম পর্ব আগামী কাল। তাই নজর এখন শুধুমাত্র সেখানেই। ম্যাচের ফলাফলের ভিত্তিতেই পরের পরিকল্পনা।”

আইএসএলের প্লে অফে অ্যাওয়ে গোলের কোনো ভিত্তি নেই। তাই ঘরের মাঠে সব ভুলে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই নামবেন বলে হুঙ্কারটা জানিয়ে দিলেন স্প্যানিশ কোচ। গত বারের ম্যাচে সুনীলরা ছিলেন না, তবে তাদের মার্কি ফোরলান একাই কাজের কাজটা করে গিয়েছিলেন। এ বারে সুনীল, সনিরা থাকবেন। তার সঙ্গে থাকবেন ২০১০ বিশ্বকাপের সেরা ফুটবলার ফোরলান। তাঁকে নিয়ে আলাদা কোনো রকম পরিকল্পনা করেননি মুখে বললেও নিশ্চয়ই বিকল্প ছক কষে রেখেছেন কলকাতা ব্রিগেডের সারথি। কারণ, হালকা চোট রয়েছে অর্ণব মণ্ডলের। শনিবারের ম্যাচে তিনি অনিশ্চিত। একান্তই অর্ণব খেলতে না পারলে ডিপ ডিফেন্সে তিরির সঙ্গে কে জুটি বাঁধবেন বলা মুশকিল। গত ম্যাচে কিংশুক যদিও ভরসা দিয়েছেন কোচকে। পাশাপাশি মুম্বই রক্ষণকে আটকাতে বোরহার সঙ্গে ডিফেন্সিভ ব্লকার হিসেবে কাউকে যোগ করতে পারেন মোলিনা। পাশাপাশি তাঁকে মাথায় রাখতে হবে পোস্তিগা-হিউমদের বল বাড়ানোর লোকের কথাও। দুই উইংয়ে এ বারে এটিকে শিবিরের সেরা দুই বিদেশি ফুটবলার সামিঘ দ্যুতি ও জাভি লারার খেলার সম্ভাবনাই বেশি। তবে দুই দলের মানের দিক দিয়ে যে উনিশ-বিশ তাও জানালেন মোলিনা। “দুই দলের মানে খুব একটা পার্থক্য নেই। আগামী কাল যে কঠিন লড়াই হবে তা জানি, তবে জেতার জন্যে সবটা দিয়েই ঝাঁপাব আমরা।” তাই শেষ চারের লড়াইয়ের প্রথম পর্বে যে ড্র নয়, ফয়সালাই চাইছেন মোলিনা তা বেশ স্পষ্ট।

মুম্বই শিবিরের আবার এটাই প্রথম সেমিফাইনাল। তাই তিন বারের সেমিফাইনালিস্টের বিরুদ্ধে নামার আগে দলের ফুটবলাররাও ফোকাসড। এ বারে তাদেরই ডিফেন্সিভ পারফরম্যান্স সব থেকে ভালো। তাই তাদের ভেদ করতে ভালোই কাঠখড় পোড়াতে হবে এটিকে ব্রিগেডকে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here