ল্যানিং-এ ম্লান পুনমের শতরান, অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারল ভারত

0
314
মেগ ল্যানিং

ভারত ২২৬-৭ (পুনম ১০৬, মিতালি ৬৯, পেরি ২-৩৭)

অস্ট্রেলিয়া ২২৭-২ (ল্যানিং ৭৬ অপরাজিত, পেরি ৬০ অপরজিত, পুনম যাদব ১-৪৬)

ব্রিস্টল: প্রথম চারটে ম্যাচ জিতে দৌড়োতে থাকা মিতালিদের ঘোড়া হঠাৎ করে হোঁচট খেয়েছে। আগের ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে আকস্মিক ভাবে হেরে যাওয়ার পর, এ বার অস্ট্রেলিয়ার কাছেও হারল ভারত। অজি অধিনায়ক মেগ ল্যানিং-এর দুর্দান্ত ব্যাটিং-এর সামনে কোনো কাজে এল না পুনম রাউতের শতরান।

বুধবার দিনটা অবশ্য ভারতের পক্ষে খুব একটা খারাপ হয়নি। টসে হেরে যাওয়ার পর ভারতকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন অজি অধিনায়ক। গত শেষ তিনটে ম্যাচের মতো এ দিনও চলেনি স্মৃতি মনধানার ব্যাট। কিন্ত তৃতীয় উইকেটে অসাধারণ জুটি তৈরি করেন পুনম রাউত এবং মিতালি রাজ।

প্রথম দিকে অজি বোলারদের শাসন করছিলেন পুনম, অন্য দিকে চুপচাপ ছিল মিতালির ব্যাট। বলা ভালো মিতালি বেশ চাপেই ছিলেন। কিন্তু এক দিনের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের গণ্ডি পেরিয়ে যাওয়ার পরেই কিছুটা গতি প্রাপ্ত হয় মিতালির ব্যাট। তবে পুনমকে কোনো ভাবেই দমাতে পারেনি অজিরা। নিজের কেরিয়ারের দ্বিতীয় শতরান করেন পুনম। তবে মিতালি এবং পুনম প্যাভিলিয়নের পথ দেখতেই ভেঙে পড়ে ভারতের ব্যাটিং। একটু দ্রুতগতিতে রান তুললে আড়াইশোর কাছাকাছি পৌঁছোনো যেত, কিন্তু শেষ লগ্নে অজিদের দাপটে ২২৬-এই থেমে যেতে হয় ভারতকে।

যে ফর্মে অস্ট্রেলিয়া এখন রয়েছে, তাতে তাদের আটকানোর জন্য অসাধারণ বোলিং করতে হত ভারতকে। কিন্তু সেটা হয়নি। প্রথম উইকেটের পার্টনারশিপেই মোটামুটি ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল। ঝুলনদের ওপর রীতিমতো বুলডোজার চালিয়ে যান অজি ব্যাটসউয়োম্যানরা। অধিনায়ক মেগ ল্যানিং-এর কথা আলাদা করতে বলতেই হয়। সম্প্রতি আমলা এবং কোহলিকে টপকে দ্রুততম ক্রিকেটার হিসেবে একদিনের ক্রিকেটে এগারোটি শতরানের রেকর্ড করেছেন ল্যানিং। এ দিন অসাধারণ ব্যাট করে যান তিনি। পাঁচ ওভার থাকতেই ম্যাচ হারে ভারত।

ভারত হেরে গেলেও, সেমিফাইনাল যাত্রায় এখনও কোনো প্রশ্নচিহ্ন আসেনি। তবে সামনের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হারলে ভারতের আত্মবিশ্বাস তলানিতে ঠেকে যেতে পারে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here