নয়াদিল্লি: ভারতসেরা হওয়া থেকে আর মাত্র একটা ম্যাচ দূরে বাংলা। সৌজন্যে ব্যাট এবং বলে দুরন্ত পারফরম্যান্স। বাংলার অলরাউন্ড শোয়ে উড়ে গেল ধোনির ঝাড়খণ্ড।

এ দিন ম্যাচের আগাগোড়াই দাপট দেখিয়ে গিয়েছে বাংলা। দুই ওপেনার শ্রীবৎস গোস্বামী এবং অভিমন্যু ঈশ্বরনের সামনে কাজ করেনি অধিনায়ক ধোনির মগজাস্ত্র। ম্যাচের ভাগ্য মোটামুটি নির্ধারিত হয়ে যায় ওপেনিং জুটিতে ১৯৮ রান ওঠার পরই। ৯৯ বলে ১০১ করে শ্রীবৎস ফিরে যাওয়ার পর মনোজ তিওয়ারির জন্য বাংলার রানের গতি আরও বেড়ে যায়। অন্য দিকে অপর প্রান্তে ঈশ্বরনও করেন ১০১। ৪৯ বলে আপরাজিত ৭৫ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন মনোজ। ৫০ ওভারে চার উইকেটে ৩২৯ করে বাংলা।

৩৩০ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত উইকেট খোয়াতে থাকে ঝাড়খণ্ড। বাংলার কপালে কিছুটা চিন্তার ভাঁজ পড়েছিল যখন ব্যাট হাতে ধামাকা দেখানো শুরু করেছিলেন ধোনি। উলটো দিকে ইশাঙ্ক জাগ্‌গিকে নিয়ে ৯৭ রানের পার্টনারশিপ তৈরি করে ফেলেছিলেন তিনি। কিন্তু প্রজ্ঞান ওঝার বলে ধোনি আউট হতেই ঝাড়খণ্ডের কফিনে শেষ পেরেকটি পোঁতা হয়ে যায়। চারটি ছয় এবং দু’টি চারের সাহায্যে ৬২ বলে ৭০ করেন ধোনি। জাগ্‌গির সংগ্রহ ৫৯। ৫০ ওভারে ২৮৮ রানে অলআউট হয় ঝাড়খণ্ড। বাংলার হয়ে পাঁচ উইকেট নেন ওঝা। দু’টি করে উইকেট পান কনিষ্ক শেঠ এবং সায়ন ঘোষ। অশোক দিন্দা নিয়েছেন একটি উইকেট। ৪১ রানে ম্যাচ যেতে বাংলা। সোমবার তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে ফাইনালে মুখোমুখি হবে বাংলা।

উল্লেখ্য, পাঁচ বছর আগে এই দিল্লিতেই শেষ বার বিজয় হাজারে ট্রফি জিতেছিল বাংলা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন