১৮ অক্টোবর ২০০৮- অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মোহালি টেস্টে সৌরভের শতরান।

১০ আগস্ট ২০১৬- ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি ঋদ্ধিমান সাহার।

দীর্ঘ সাত বছর ন’মাস ২২ দিন পর ফের টেস্টে বাংলার কোনও ক্রিকেটার শতরান করলেন। বুধবার সেন্ট লুসিয়ায় শতরান করার পথে ঋদ্ধিমান সাহা ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন মিলে গড়লেন কিছু রেকর্ডও। প্রথম ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসাবে একই টেস্ট সিরিজে একাশিক সেঞ্চুরি এবং একাধিক বার ৫ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করলেন অশ্বিন।  

বুধবার পাঁচ উইকেটে ২৩৪ রান থেকে দ্বিতীয় দিনের ইনিংস শুরু করে ভারত। খেলা শুরু হওয়ার কিছু পরেই কেরিয়ারে নিজের তৃতীয় অর্ধশতরান পূর্ণ করেন ঋদ্ধি। ৫০ করার পরেই নিজের ইনিংসের গতি বাড়ান ঋদ্ধি। উল্টো দিকে গতি কমিয়ে দেন অশ্বিন। মধ্যাহ্নভোজনের বিরতিতে ভারতের স্কোর ছিল ৫ উইকেটে ৩১৬। বিরতির পরেই শতরান পূর্ণ করেন অশ্বিন। চেসের বলে স্টেপ আউট করে ছক্কা মেরে একশোয়ে পৌঁছন অশ্বিন। এটি তাঁর টেস্ট কেরিয়ারে চতুর্থ শতরান। তাঁর চারটি শতরানই এসেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে।

কিছুক্ষণ পর বাংলার ক্রিকেটের জন্য সেই ঐতিহাসিক মুহূর্তটি আসে। চেসের বলে দুই রান নিয়ে সেঞ্চুরি পেরন ঋদ্ধি। অবশ্য এর কিছু পরেই মনোযোগে খোয়ানোর জন্য নিজের উইকেটটাও খওয়াতে হয় ঋদ্ধিকে। ১০৪ রান করে আউট হন তিনি। ঋদ্ধি আর অশ্বিন দু’জনের পার্টনারশিপ তোলে ২১৩ রান, যেটি ষষ্ঠ উইকেটে ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এই প্রথম টেস্টে ভারতের ছয় নম্বর আর সাত নম্বর দুই ব্যাটসম্যানই সেঞ্চুরি করলেন।  তা সত্ত্বেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে এই টেস্টে রানের পাহাড় তৈরি করতে পারেনি ভারত। শেষ পর্যন্ত অল আউট হয়ে যায় ৩৫৩ রানে। 

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দিনের খেলা শেষ হওয়া পর্যন্ত তাদের স্কোর এক উইকেটে ১০৭।  ৫৩ রানে ব্যাট করছেন ব্রাথওয়েট আর ১৮ রান করে ক্রিজে রয়েছেন ড্যারেন ব্রাভো।

ছবি: বিসিসিআই টুইটার পোস্ট

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here