Swapna-Burman-12fingers-final

ওয়েবডেস্ক: সদ্য শেষ হওয়া ইন্দোনেশিয়া এশিয়াডে ভারতের সাফল্য ছুঁয়ে ফেলেছে ১৯৫১-র দিল্লির এশিয়াডকে। ১৫টি সোনা এবং মোট ৬৯ পদক নিয়ে অষ্টম স্থানে প্রতিযোগিতা শেষ করেছে ভারত। সেই সাফল্যের মধ্যে অন্যতম সেরা মুখ বাংলার মেয়ে স্বপ্না বর্মণ। জলপাইগুড়ির এই মেয়েটি প্রথম ভারতীয় হিসাবে এশিয়াডে হেপ্টাথেলনে সোনা দিয়েছেন দেশকে। স্বাভাবিক ভাবেই তাঁকে নিয়ে উৎসাহের জোয়ার বইছে সারা দেশ জুড়ে।

তবে লড়াকু স্বপ্নাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাঁর পাশে দাঁড়াল চেন্নাইয়ের সংস্থা ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি। একটি আন্তর্জাতিক স্পোর্টস বিপননি সংস্থা (নাইক) সঙ্গে গাঁটছড়া বেধে স্বপ্নার জন্য কাস্টমাইজড স্পোর্টস জুতো তৈরি করতে চলেছে তাঁরা। কারণ ছোটো থেকেই স্বপ্নার দু’পায়ে মোট বারোটি আঙুল। ফলে হেপ্টাথেলনের মতো ইভেন্টে একজন অ্যাথলেটিককে মোট সাতটি ইভেন্ট সম্পূর্ণ করতে হয়। যার জন্য অন্তত পাঁচ রকমের জুতো দরকার পরে নিজের সেরাটা দেওয়ার জন্য। পদক পাওয়ার পর নিজের জুতোর সমস্যার কথা জানিয়েছিলেন স্বপ্না।

তাঁর সেই সমস্যা দূর করারই অঙ্গীকার করল চেন্নাইয়ের সংস্থাটি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন