Connect with us

খেলাধুলো

বড়ো ক্লাবদের বিদ্রোহ শেষ, আইএসএল-এই খেলতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী

শৈবাল বিশ্বাস

মঙ্গলবার সন্ধ্য‌ায় নবান্নের বৈঠকে দুই প্রধানের কর্মকর্তাদের বৈঠকে মুখ্য‌মন্ত্রী মমতা ব্য‌ানার্জি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন,আইএসএল খেলতেই হবে মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলকে।আইএসএল-এর শর্ত নিয়ে দুই প্রধানের যে সব আপত্তি রয়েছে সে ব্য‌াপারে অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র আইএসএলের পরিচালক আইজিএমআর সংস্থার কর্ণধার নীতা আম্বানির সঙ্গে কথা বলবেন। ফিকির প্রাক্তন সচিব হিসাবে নীতা আম্বানি এবং গোটা আম্বানি পরিবারের সঙ্গেই তাঁর অনেক দিনের যোগাযোগ। সেই যোগাযোগ কাজে লাগিয়ে সব শর্ত মেনে নিতে ওই সংস্থাকে রাজি করানো যাবেই বলে দুই প্রধানের কর্তাদের কথা দিয়েছেন মুখ্য‌মন্ত্রী।

এই মুহূর্তে রিলায়েন্সের সঙ্গে কোনও রকম ঝগড়ার রাস্তায় হাঁটতে চাইছে না রাজ্য‌ সরকার। তাতে রাজ্য‌ের শিল্প সম্ভাবনা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যেতে পারে। তা ছাড়া রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্ট শিল্প থেকে যে বড় ব্য‌বসা ফাঁদতে চলেছে, তার একটা বড়ো অংশ থেকে পশ্চিমবঙ্গের বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে।

এআইএফএফ-এর চাপ উপেক্ষা করে দুই বড়ো দল আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তারা কিছুতেই আইএসএলে খেলবে না। খেলতে পারে তবে নিজস্ব শর্তে, যে শর্ত মানাটা আইএসএলের মতো রিলায়েন্স পরিচালিত কর্পোরেট সংস্থার পক্ষে মেনে নেওয়া মুশকিল। এই পরিস্থিতিতে মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গল স্থির করে ফেডারেশন থেকে চাপ এলে তারা নিজস্ব লিগ বানিয়ে তাতে অংশ নেবে। নবান্ন বৈঠকে সেই লিগ এবং বেঙ্গল কাপের মতো একটি নতুন টুর্নামেন্ট করা নিয়েও আলোচনা হয়। আইএফএ সচিব উৎপল গঙ্গোপাধ্য‌ায় বলেন, এ ধরনের টুর্নামেন্টের দায়িত্ব নিতে তিনি প্রস্তুত। গোয়া এবং উত্তর পূর্বাঞ্চলের দলগুলিকে সেই লিগে নেওয়া হবে। সেই দলগুলি মোটামুটি রাজিও ছিল কারণ আইএসএলের চাপ তারাও নিতে রাজি হয়নি। কিন্তু শেষ পর্ন্ত পিছু হটতে বাধ্য‌ হলো দুই প্রধান।

দুই বড়ো দলের কাছে ভরসা ছিলেন মুখ্য‌মন্ত্রী মমতা ব্য‌ানার্জি। তিনি যদি আইএসএলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহে এই দুই বড় দলের পাশে দাঁড়ান তাহলে নতুন লিগ তৈরি করতে বিশেষ বেগ পেতে হবে না। সেই আশায় টুটু বসু এবং নীতু সরকাররা মুখ্য‌মন্ত্রীর দ্বারস্থ হন। কিন্তু মমতা এই বিদ্রোহে ইন্ধন জোগাননি। যতদূর জানা যাচ্ছে এই মুহূর্তে রিলায়েন্সের সঙ্গে কোনও রকম ঝগড়ার রাস্তায় হাঁটতে চাইছে না রাজ্য‌ সরকার। তাতে রাজ্য‌ের শিল্প সম্ভাবনা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যেতে পারে। তা ছাড়া রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্ট শিল্প থেকে যে বড় ব্য‌বসা ফাঁদতে চলেছে, তার একটা বড়ো অংশ থেকে পশ্চিমবঙ্গের বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে। তাই মঙ্গলবার রাজ্য‌ের ক্রীড়া দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এবং দুই বড়ো ক্লাবের প্রতিনিধিদের মধ্য‌ে বৈঠকই স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়,অন্য‌ পথে হাঁটার সুযোগ খুব একটা নেই। তারপরই বড় দলের কর্তারা নবান্নে গিয়ে সরাসরি মুখ্য‌মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে রাজি হয়ে যান। মুখ্য‌মন্ত্রী বলেছেন, শুধু এই বড়ো দল দুটিই নয়, মহামেডানকেও তিনি আইএসএলে ঢোকাতে চান। আসলে রাজ্য‌ সরকার যে আইএসএল বিরোধী অবস্থানের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত রাখবে না সেটা বেশ ভাল করেই বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মুখ্য‌মন্ত্রী তাঁর সঙ্গে বিজেপির রাজনৈতিক বিরোধটাকে শিল্প বা ব্য‌ক্তিগত সম্পর্কের স্তরে আনতে চান না। এসব ক্ষেত্রে ট্র্য‌াক টু ডিপ্লোমেসির রাস্তা ধরে চলাটাই তাঁর পছন্দ। মুকেশ আম্বানি সহ শিল্প জগতে মমতার যে সব বন্ধু স্থানীয় প্রতিনিধি আছেন তাঁরা কেন্দ্রীয় সরকারের ঘনিষ্ঠ বৃত্তে থাকা সত্ত্বেও তাঁকে পছন্দ করেন। এই পরিস্থিতে তিনি কোনও মতেই নীতা আম্বানির সাধের আইএসলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণায় সায় দেননি। ঘনিষ্ঠ কয়েকজন মোহন-ইস্ট কর্তাকে ডেকে এই কথাটা পরিষ্কার করে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিড়ালের গলায় ঘন্টা বাঁধার এই কাজটা অরূপ বিশ্বাসকেই করার দায়িত্ব দিয়েছেন মমতা। অতএব আইএসএলের সঙ্গে শর্ত নিয়ে যতই মতভেদ থাকুক না কেন, দুই দলকেই এই লিগ খেলতে হবে। ইতিমধ্য‌ে মোহনবাগানের সনি নরদে,কাতসুমির মতো স্টার প্লেয়াররা বলে দিয়েছেন যেহেতু আইএসএল না খেললে তাঁদের চলবে না তাই  এবার তাঁরা আর মোহনবাগানে থাকতে পারবেন না। তবে মোহনবাগান আইএসএল খেললে তাঁরা দলে থাকবেন। এই কঠিন পরীক্ষা সামলে ওঠা যে বেশ মুশকিল সেটা মানছেন মোহন-কর্তারা।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ক্রিকেট

“ওর ভয়ে গুটিয়ে থাকতাম, লুকোনোর জায়গা খুঁজতাম,” প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সম্পর্কে বললেন কপিল দেব

kapil

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিঃসন্দেহে ভারতের অন্যতম সেরা অধিনায়কদের মধ্যে একজন তিনি। তাঁর হাত ধরেই ভারত প্রথম বিশ্বজয়ের স্বাদ পেয়েছেন। অধিনায়ক ছিলেন যে হেতু, সহ-খেলোয়াড়রা নিশ্চয় তাঁকে সমীহ করে চলতেন। এ হেন কপিল দেবই (Kapil Dev) এমন একজনের অধিনায়কত্বে খেলেছেন, যাঁর ভয়ে নাকি তিনি গুটিয়ে থাকতেন, লুকোনোর জায়গা খুঁজতেন।

তিনি শ্রীনিবাস বেঙ্কটরাঘবন (Srinivas Venkataraghavan)। বিষেণ সিংহ বেদীর অধিনায়কত্বে কপিলের অভিষেক হলেও বেঙ্কটের অধিনায়কত্বে চারটে টেস্ট আর তিনটে একদিনের ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

কপিলের দাবি, তাঁর মুখ দেখলেই না কি রেগে আগুন হয়ে যেতেন বেঙ্কট। কপিলের কথায়, “আমি ওকে খুব ভয় পেতাম। প্রথমত ও সব সময়ে ইংরেজিতে কথা বলত, আর দ্বিতীয়ত ওর রাগ ছিল সাংঘাতিক।”

কপিল যোগ করেন, “১৯৭৯-তে আমরা ইংল্যান্ড সফরে যাই। আমি সব সময়ে চেষ্টা করতাম এমন একটা জায়গায় থাকতে, যাতে ওর সঙ্গে আমার বেশি কথা না হয়। সে সময়ে আমাদের দলে বেদী, প্রসন্ন, চন্দ্রশেখর ছিল। তারা ওর বকুনি খেত না। কিন্তু ওর যাবতীয় রাগ এসে পড়ত আমার ওপর।”

এর পর ১৯৮৩ সালের একটি ঘটনার কথা বলেন কপিল। তখন তিনি অধিনায়ক আর বেঙ্কট তাঁর সহ-খেলোয়াড়। কপিলের কথায়, “আমি আগে সব সময়ে ওকে ‘স্যার’ বলতাম। এই সিরিজ থেকে বেঙ্কি বলে ডাকা শুরু করি।”

কপিল বলে চলেন, “বার্বাডোজে একটি টেস্ট খেলছি। বাউন্সি পিচ বলে পেসারদের বেশি সময়ে দিচ্ছি। এর পর বেঙ্কির বদলে প্রথমে রবি শাস্ত্রীকে নিয়ে এলাম। স্লিপে দাঁড়িয়ে ছিল বেঙ্কি। হঠাৎ রেগে গিয়ে বলতে শুরু করল, ‘কপিল, আমি কি তোমায় বলেছি যে আমি বল করব না?’ আমি বুঝতে পারতাম না যে তখন আমি অধিনায়ক না কি বেঙ্কি।”

উল্লেখ্য, বেঙ্কটের অধিনায়কত্বে ভারত ১৯৭৫ সালে প্রথম বিশ্বকাপ খেলতে নামে। পরবর্তীকালে তিনি একজন সফল আম্পায়ারও হন।

Continue Reading

ক্রিকেট

ন্যাটওয়েস্ট ফাইনালের ১৮ বছর, টুইটে নাসির হুসেনকে ট্রোল যুবরাজের, জবাবে নাসির যা বললেন…

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ১৮ বছর আগে এই দিনেই ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম এক স্মরণীয় মুহূর্ত এসেছিল। ন্যাটওয়েস্ট ফাইনাল জিতে নিয়েছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ব্রিগেড। এখনও ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা একদিনের ম্যাচ হিসেবে আখ্যা পায় এটি।

সেই ম্যাচেরই স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে নাসির হুসেনকে হালকা করে ট্রোল করলেন যুবরাজ। নাসির অবশ্য যুবরাজের টুইটটাকে খেলোয়াড় সুলভ মনোভাবেই নিলেন আর তার জবাবও দিলেন।

ন্যাটওয়েস্ট ফাইনালের কয়েকটা ছবি এ দিন টুইটারে পোস্ট করেন যুবি। সেখানে তিনি লেখেন, “আমাদের তখন বয়স কম ছিল। আমাদের জেতার খিদে ছিল। অসাধারণ দলগত পারফরম্যান্সে ভর করে সে দিন আমরা ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিলাম।”

এর পর নাসিরকে উদ্দেশ করে যুবরাজ লেখেন, “নাসির, তুমি যদি ভুলে যাও, তাই মনে করিয়ে দিলাম।”

এর উত্তরে নাসির লেখেন, “অসাধারণ কিছু ছবি বন্ধু। ভাগ করে নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।”

উল্লেখ্য, ওই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৩২৫ করে ইংল্যান্ড। একদিনের কেরিয়ারে একমাত্র শতরানটি সে দিনই করেছিলেন নাসির। তাঁর সঙ্গে মার্কাস ট্রেস্কোথিকও শতরান করেছিলেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে, ঝড় ওঠে সৌরভের ব্যাটে। ৪৩ বলে ৬০ করেন তিনি। তিনি তার পরেই ভেঙে পড়ে ভারতীয় ব্যাটিং। একটা সময়ে তাদের স্কোর গিয়ে ৫ উইকেটে ১৪৬। সব আশা যখন ছেড়ে দিয়েছিল ভারত, তখনই রুখে দাঁড়িয়েছিল যুবরাজ সিংহ আর মহম্মদ কঈফের ব্যাট।

কঈফের ৮৭ অপরাজিত আর যুবরাজের অর্ধশতরানে ভর করে ঐতিহাসিক একটি ম্যাচ জিতে যায় ভারত। তবে ম্যাচ শেষে সৌরভের জামা খুলে ওড়ানোর দৃশ্যটা এখনও ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ছবি হয়ে রয়েছে।

Continue Reading

ফুটবল

কোভিড-পরিস্থিতিতে আসন্ন আই লিগের সব ম্যাচই কলকাতায় করার ভাবনা

এমনই জানিয়েছেন সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের সচিব কুশল দাস।

football2

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসন্ন আই লিগের (I League) সব ম্যাচই কলকাতায় আয়োজিত হতে পারে। এমনই জানিয়েছেন সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের সচিব কুশল দাস।

কিছু দিন আগেই জানা গিয়েছে যে আইএসএলের (ISL) সব ম্যাচ এ বার গোয়ায় হতে পারে, রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামে। সেই মতো আই-লিগটাকে পুরোপুরি কলকাতায় সরিয়ে নিয়ে আসা হতে পারে।

এ বার নভেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে শুরু হবে আইএসএল। একই সময়ে শুরু হওয়ার কথা আই লিগের। তাই নভেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে ভারতীয় ফুটবল ব্যস্ত থাকবে গোয়া আর কলকাতায়।

কলকাতাকে ঘিরে আই লিগের জন্য মোটামুটি ভাবে যে পরিকল্পনা করা হয়েছে তাতে সব ক্লাবকেই প্রতিযোগিতা শুরুর ১৫ দিন আগেই কলকাতায় নিয়ে আসা হবে। ঠিক হয়েছে, ম্যাচের ১৫ দিন আগে দলগুলিকে কলকাতায় এনে ফুটবলারদের কোয়ারান্টাইনে রাখা হবে। ম্যাচের আগে কোভিড টেস্ট করা হবে সব ফুটবলারের।

যে হেতু একটি জায়গায় থেকেই আই লিগের সব ম্যাচ খেলতে হবে, তাই আশা করা যাচ্ছে ১০০ দিনের মধ্যেই আই লিগ শেষ করতে পারবে ফেডারেশন।

আই লিগ চলাকালীন ১০০ দিন কিছুতেই হোটেলের বাইরে যেতে পারবেন না ফুটবলাররা। প্রতিযোগিতার মাঝে মাঝেই ফের কোভিড টেস্ট হবে ফুটবলারদের। আই লিগের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পরেই আই লিগের জন্য কলকাতার বিভিন্ন হোটেল বুক করা শুরু করে দেবে ফেডারেশন।

Continue Reading
Advertisement
বাংলাদেশ1 hour ago

বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় প্লে-ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

রাজ্য3 hours ago

প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফলাফল, ভরতি কবে এবং কী ভাবে?

প্রযুক্তি4 hours ago

রিলায়েন্সের নতুন ‘জিও গ্লাস’, চশমাটি কী কাজে লাগবে?

রাজ্য5 hours ago

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

Amit Shah
দেশ5 hours ago

মোদী সরকারের অগ্রাধিকারের তালিকায় নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা: অমিত শাহ

গান-বাজনা6 hours ago

১২ বছরের পথচলায় ‘মুক্তধারা’র মুকুটে আরও একটি পালক, চালু হল ইউটিউব চ্যানেল

laptop
কেনাকাটা6 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

বিদেশ6 hours ago

আইসোলেশনে থাকাকালীন বিশালাকার পাখির কামড় খেলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা6 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা3 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা6 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে