জুড়ো তারকাকে ঝাঁকাচ্ছেন, চড় মারছেন তাঁর কোচ। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া থেকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কত কিছুই না ঘটছে টোকিও অলিম্পিকে (Tokyo Olympic 2020)। সোনা জয়ের আনন্দে লাইভ সাক্ষাৎকারে কেউ মা-বোনের উদ্দেশে বলে ফেলছেন ‘এক্স-রেটেড’ শব্দ, ক্যামেরাম্যান কখনও ম্যাচ ছেড়ে মজে রয়েছেন মাঠের কিনারায় ঘুরে বেড়ানো আরশোলায়। আর এ বার ভাইরাল হয়েছে এমন এক দৃশ্য, যেখানে দেখা যাচ্ছে ম্যাচের আগে এক প্রতিযোগীকে সপাটে চড় মারছেন তাঁর কোচ!

জুডো ম্যাচের আগে জার্মান তারকা মার্টিনা ট্রাদোসকে (Martyna Trajdos) নিজের কোচের হাতে চড় খেতে দেখে অলিম্পিকের দর্শকরা হতবাক হয়ে গিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, রিংয়ে প্রবেশের আগে জার্মান অ্যাথলিটের কাঁধ ধরে তাঁর কোচ সজোরে ঝাঁকাচ্ছেন এবং দু’গালে চড় মারেছেন। ৩২ বছর বয়সি জুডো তারকা অবশ্য লড়াইয়ের আগে রীতি মেনে মাথা নেড়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।

ক্রীড়া বিশেষজ্ঞদের মতে, কিছু খেলার ক্ষেত্রে অ্যাথলিটদের অনুপ্রাণিত করার জন্য এই রীতি মেনে চলা হয়। তবে সবাই এটাকে ভালো মনে মেনে নিতে পারেন না। তাঁদের মতে, এই রীতি অ্যাথলিটদের শারীরিক নির্যাতন করার শামিল।

মার্টিনা অবশ্য ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, “বন্ধুরা, চিন্তিত হবেন না। রিংয়ে ঢোকার আগে এটাই রীতি। আমার কোচ যা করেছেন, সেটাই সঠিক। লড়াইয়ের শক্তি জাগিয়ে তোলার কাজটা এ ভাবেই করে থাকেন কোচ”।

টোকিও অলিম্পিকের জুডো ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলেন মার্টিনা এবং হাঙ্গেরির জোফি ওডবাস। একটি ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে, মার্টিনা রিংয়ে প্রবেশের আগে তাঁর কোচ ক্লদিউ পুসা তাঁকে দু’হাতে কয়েকটা চড় কষিয়ে দিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এ বিষয়ে ব্য়াপক হইচই হলেও মার্টিনা নিজে এটাকে সামান্য একটা ব্যাপার ছাড়া অন্য কিছুই ভাবতে নারাজ।

আরও পড়তে পারেন: অলিম্পিকে সোনা জিতে বেসামাল সাঁতারু, উত্তেজনায় মা-বোনের উদ্দেশে বলে দিলেন ‘এক্স-রেটেড’ শব্দ, ভাইরাল ভিডিও

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন