কমনওয়েলথ গেমস: স্বর্ণ-সাফল্য অব্যাহত, কুস্তিতে বজরং, শুটিংয়ে অনীশ আর তেজস্বিনী

0
388
cwg-gold

গোল্ড কোস্ট: কমনওয়েলথ গেমসে শুক্রবার সকাল শুরু হয়েছিল ভারতীয়দের জন্য জোড়া সুখবর দিয়ে। সক্কালেই ভারতের ঝুলিতে আসে দু’টি সোনা ও একটি রুপো। ২৫ মিটার র‍্যাপিড ফায়ার পিস্তলে সোনা জেতেন ১৫ বছরের অনীশ ভানওয়ালা। মেয়েদের ৫০ মিটার রাইফেল থ্রি পজিশনে প্রথম হয়ে সোনা পান তেজস্বিনী সাবন্ত। এ বারের কমনওয়েলথ গেমসে এই নিয়ে তেজস্বিনীর এটা দ্বিতীয় পদক। বৃহস্পতিবার মহিলাদের ৫০ মিটার রাইফেল প্রো ইভেন্টে রুপো জেতেন তিনি। বেলা যত গড়ায় সাফল্যের গতি এগিয়ে চলেছে। কুস্তিতে কামাল অব্যাহত ভারতের। ৬৫ কেজি পুরুষ বিভাগে সোনা জয় বজরং পুনিয়ার। মেয়েদের ৫০ মিটার রাইফেল থ্রি পজিশন ইভেন্টে রুপো এনেছেন অঞ্জুম মৌদগিল। এ ছাড়াও, বক্সিংয়ের ৯১ কেজি বিভাগের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার জেসন হোয়েটলির কাছে হেরে ব্রোঞ্জ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হলে ভারতের নমন তানওয়ারকে। অন্য দিকে কুস্তিতে আরও পদক ভারতের। মহিলাদের ৫৭ কেজি বিভাগে ফাইনালে উঠেও নাইজেরিয়ার প্রতিদ্বন্দ্বীর কাছে হেরে রুপোজয়ী পূজা ধান্দার। মহিলাদের ৬৮ কেজি বিভাগে ব্রোঞ্জ পেলেন দিব্যা কাকরণ। দিনের শেষে কিছুটা স্বপ্নভঙ্গ ভারতের। টেবিল টেনিসে মহিলা ডাবলসে ফাইনালে হেরে গেল, মনিকা বাত্রা এবং মৌমা দাস জুটি। ফলে রুপে নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল তাদের। কিন্তু সবচেয়ে বেশী বেদনার খবর কিন্তু হকি থেকে এলো। পুরুষদের সেমিফাইনালে হেরে গেল ভারত। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩-২ ব্যবধানে হার। ফলে ব্রোঞ্জের জন্য লড়াই এবার।

এ ছাড়া ভারতীয় বক্সার, কুস্তিগির এবং ব্যাডমিন্টন ও টেবিল টেনিস প্লেয়াররা পদক জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেছেন।

শুক্রবার ভারতীয়দের জন্য আর যে যে সুখবর রয়েছে –

ভারতীয় কুস্তিগির মৌসম খাতরি (৯৭ কেজি) বিভাগে ফাইনালে পৌঁছেছেন।

স্কোয়াশে মেয়েদের ডাবলসে কানাডার জুটিকে হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছেছেন দীপিকা পল্লিকাল ও জোশ্না চিনাপ্পা।

শ্রীলঙ্কার প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে ৫২ কেজি বিভাগের ফাইনালে পৌঁছেছেন বক্সার গৌরব সোলাঙ্কি।

বিশ্বের এক নম্বর ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার কিদম্বি শ্রীকান্ত সিঙ্গাপুরের জিন রাই রায়ানকে হারিয়ে পুরুষদের সেমিফাইনালে পৌঁছেছেন।

এখনও পর্যন্ত ১৭টি সোনা, ১০টি রুপো ও ১৩টি ব্রোঞ্জ পদক নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত।

 

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here