ইনদওর: ৩৮ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার রান ছিল ২২৭। সেই ইনিংস পঞ্চাশ ওভারে শেষ হল মাত্র ২৯৩ রানে। সম্মানজনক স্কোর। কিন্তু বিরাটের ভারতকে হারানো এতে কি আর সম্ভব! হলও না। ১৩ বল বাকি থাকতেই সিরিজ পকেটে পুরে ফেলল নীল জার্সির মালিকরা।

অথচ প্রথমে কিন্তু এমনটা মনে হয়নি। ফ্লিঞ্চের সেঞ্চুরি, স্মিথের হাফ সেঞ্চুরি বেশ চাপে ফেলে দিয়েছিল টিম ইন্ডিয়াকে। বোলাররা কেউই তেমন দাগ কাটতে পারেননি। তবে ১০ ওভারে ৭৫ রান দিলেও ঠিক সময়ে দুটি উইকেট নিয়ে ফের অজিদের বেগ দিলেন কুলদীপ যাদব।

ছবিটা পালটে গেল ভারতের ইনিংস শুরু হতেই। স্লো উইকেটে রোহিত শর্মা যে ভাবে তেড়েফুড়ে পেটালেন, তাতে রবিবারের সন্ধ্যায় ভারতবাসীর মন ভরে যেতে বাধ্য। তাঁর মতোই অর্ধশত রান করলেন সঙ্গী রাহানেও। ২২ ওভারের মাথায় ভারতের প্রথম উইকেটটি যখন পড়ল, ততক্ষণে স্কোরবোর্ডে ১৩৯ রান উঠে গেছে। তিনিই এ দিনের ম্যান অফ দ্য ম্যাচ। চার নম্বরে নেমে ম্যাচটা শেষ করে দিলেন হার্দিক পান্ড্য। করলেন ৭৮ রান।

এই প্রথম অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে কোনো সিরিজে ৩-০ ব্যবধান গড়ল ভারত।

পরের নিয়ম রক্ষার ম্যাচটি বেঙ্গালুরুতে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন