Connect with us

ক্রিকেট

রবিবারের পড়া ২ / রানআউটে শুরু, রানআউটেই শেষ…

ধোনি কিন্তু নিজের মর্জিমাফিক চলেন বোঝা যায়। টেস্ট থেকে যেমন আচমকা অবসর ঘোষণা করেছিলেন, তেমনই সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে যখন অবসর ঘোষণা করলেন তখন তাঁর জন্য একটি বিদায় ম্যাচের আয়োজন করারও উপায় নেই।

Published

on

শ্রয়ণ সেন

১০ জুলাই ২০১৯। নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপ্টিলের দুরন্ত একটা থ্রো শেষ করে দিল ১৩০ কোটির স্বপ্ন। একটুর জন্য ক্রিজের ভেতরে ঢুকতে পারেনি তাঁর ব্যাট, আর তাতেই সব স্বপ্নের জলাঞ্জলি।

বরাবরের আবেগহীন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি সে দিন কিন্তু নিজের আবেগকে চেপে রাখতে পারেননি। প্যাভিলিয়নে ফেরার সময়ে তাঁর চোখে জল দেখা গিয়েছিল স্পষ্ট। ভারতকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়ে ধোনির ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসার ঘটনা ভারতীয় ক্রিকেটে খুব একটা ঘটেনি, কিন্তু সে দিন হয়েছিল।

Loading videos...

গত দু’ বছর ধরেই ধোনির ফর্ম পড়ে গিয়েছিল। শেষের দিকে নেমে রান পেলেও আগের মতো সেই আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের ধোনি কোথায় যেন হারিয়ে গিয়েছিলেন। তবুও একটা স্বপ্ন ছিল, ধোনির হাত ধরেই ভারত আরও একবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হবে।

কিন্তু সেই সব স্বপ্ন শেষ করে দিল সেই দুঃস্বপ্নের রানআউট। রানআউট হওয়ার আগে ওই ম্যাচটায় খারাপ খেলেননি ধোনি। অর্ধশতরান করেছিলেন। কিন্তু ভারতের ব্যর্থতায় সেই সব কিছুই চাপা পড়ে গেল।

ধোনি কিন্তু ভারতের হয়ে আর কোনো ম্যাচ খেলেননি। তাঁর অবসরের ঘোষণা ছিল শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। তবুও আশায় ছিলেন ক্রিকেটভক্তরা। যদি কোনো ভাবে নিজের মত বদল করেন তিনি।

সেই সেমিফাইনালে রানআউটের মধ্যে দিয়ে শেষ হওয়া কেরিয়ারের সুচনাও হয়েছিল রানআউট দিয়েই।

সেটা ২০০৪-এর ডিসেম্বর। ঘরোয়া ক্রিকেটে তখন ফুলিঝুরি ঝরাচ্ছেন বছর ২৩-এর ধোনি। রাহুল দ্রাবিড়ের ওপর থেকে ভার কিছুটা হালকা করার জন্য একদিনের ক্রিকেটে ভারতের দরকার ভালো নির্ভরযোগ্য উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জোরাজুরির কারণে বাংলাদেশ সফররত ভারতের একদিনের দলে ধোনিকে জায়গা দিতে বাধ্য হলেন নির্বাচকরা।

[চট্টগ্রামের অভিষেক ম্যাচে রানআউট ধোনি]

কিন্তু শুরুটা যে ভালো হল না ধোনির। চট্টগ্রামে প্রথম ম্যাচে ব্যাট করতে নেমেই রানআউট। খাতা খোলার সুযোগই এল না তাঁর কাছে। ঘরোয়া ক্রিকেটে মোটামুটি নাম করে ফেলা ধোনির এ হেন অভিশপ্ত অভিষেক কেউ কল্পনাই করতে পারেননি।

তবে ধোনিকে নিজের জাত চেনাতে লাগল মাত্র পাঁচটা ম্যাচ। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একদিনের ম্যাচ ছিল সেটা। ফাটকা খেলে তিন নম্বরে ধোনিকে নামিয়েছিলেন সৌরভ। আর তাতেই বাজিমাত। ১২৩ বলে ১৪৮ রানের দুর্ধর্ষ একটি ইনিংস। ব্যাস, তার পর আর তাঁকে ফিরে তাকাতে হয়নি।

[বিশাখাপত্তনমে শতরানের পর]

কয়েক মাসের মধ্যেই আবারও ধোনি-তাণ্ডব। এ বার জয়পুরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। তাঁর ব্যাট থেকে বেরোল অপরাজিত ১৮৩ রানের দুর্ধর্ষ একটা ইনিংস।

এর পর টেস্ট ক্রিকেটেও নিয়ে আসা হল ধোনিকে। আর সেখানেও কয়েক মাস পরেই বাজিমাত। ২০০৬-এর পাকিস্তান সফরে ফৈজলাবাদ টেস্টে শোয়েব আখতারদের ঠেঙিয়ে ১৪৮ রানের তুখোড় একটি ইনিংস। ঝাঁকড়া চুলের ধোনি তত দিনে গোটা বিশ্বে পরিচিত হয়ে গিয়েছেন। তাঁর চুলের জন্য ফ্যান হয়ে গিয়েছেন স্বয়ং পাকিস্তানের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট পরভেজ মুশারফ। ধোনিকে চুল না কাটারও আবদার করেছিলেন মুশারফ। যদিও পরের বছরই সেই চুল ছেঁটে ফেলেন মাহি।

[ফৈজলাবাদ টেস্টে শতরান করে ধোনি]

আসলে দায়িত্ব বাড়তেই এই বাড়তি বোঝা নিজের শরীরের ওপর থেকে ঝেড়ে ফেলেন ধোনি। ধোনি তত দিনে ভারতের অধিনায়ক হয়ে গিয়েছেন। অধিনায়কের কেরিয়ারের শুরুতেই বাজিমাত।

২০০৭-এ ৫০ ওভারের ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারতের গ্রুপ লিগেই বিদায়ের পর কেউ ভাবতেই পারেনি যে ওই বছরের সেপ্টেম্বরে টি২০ বিশ্বকাপে ভারত আদৌ ভালো ফল করতে পারবে বলে।

সম্ভবত নির্বাচকদেরও বেশি আশা ছিল না। আর তাই সৌরভ-সচিন-দ্রাবিড়দের বাদ দিয়ে পুরোপুরি যুবদল ভারত পাঠায় দক্ষিণ আফ্রিকায় টি২০ বিশ্বকাপের জন্য। অধিনায়ক করা হয় ধোনিকে। ওই দলে বেশি অভিজ্ঞতার যুবরাজ থাকলেও নির্বাচকরা ভরসা করেন ধোনির ওপরেই। আর এটাই হয়ে যায় এক যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত।

[২০০৭-এ টি২০ বিশ্বকাপে জয়ের পর]

ধোনির নেতৃত্বে টি২০ বিশ্বকাপ ঘরে তোলে ভারত। টুর্নামেন্টের ফাইনালে পাকিস্তান, সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়া, তার আগে ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলকে হারিয়ে নজির তৈরি করে ভারত। এই বিশ্বজয়ের পরেই ভারতের একদিনের আর টেস্ট দলের দায়িত্ব ছেড়ে দেন রাহুল দ্রাবিড়। একদিনের অধিনায়কের কুর্সিতেও বসে পড়েন ধোনি।

তার পরেই ভারতীয় ক্রিকেটের এক স্বর্ণযুগের শুরু। কার্যত ‘ম্যান উইথ দ্য মিডাস টাচ’ হয়ে যান ধোনি। ২০০৮-এ অনিল কুম্বলের অবসরের পরে টেস্ট দলের দায়িত্বও তাঁর হাতে চলে আসে।

একদিনের দলকে নিজের মতো করে তৈরি করতে গিয়ে বেশ কিছু অপ্রিয় সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছিল তাঁকে। সৌরভ আর দ্রাবিড়ের মতো সিনিয়রদের একদিনের দল থেকে বাদ দিয়েছিলেন। প্রবল সমালোচিত হয়েছিলেন বিভিন্ন জায়গায়। কিন্তু তাঁর হাতে তৈরি ভারতীয় দল ফল দিয়েছিল।

ধোনি যে ভাবে একদিনের দল তৈরি করতে চেয়েছিলেন, সেটাই করেছিলেন। আর তার ফলস্বরূপ ২০১১-তে বিশ্বজয়।

[২০১১-এ বিশ্বকাপের ট্রফি নিয়ে ধোনি]

নিঃসন্দেহে ধোনির কেরিয়ারে সব থেকে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে ভারতের এই বিশ্বজয়। এর ঠিক দু’ বছরের মাথায় আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও দখল নিল ভারত। ধোনিই প্রথম অধিনায়ক যিনি আইসিসির তিনটে টুর্নামেন্টেই নিজের দেশকে চ্যাম্পিয়ন করেন।

পরিসংখ্যানের দিক দিয়ে ভারতের সব থেকে সফল অধিনায়ক হয়ে যান ধোনি। সৌরভের রেকর্ড ভেঙে টেস্টে সর্বাধিক জয়ের রেকর্ডেরও মালিক হন অধিনায়ক ধোনি, পরবর্তীকালে যে রেকর্ডের দখল নিয়েছেন বিরাট কোহলি।

কিন্তু এর মধ্যে একটি বিতর্কও থেকে যায়। পরিসংখ্যানের দিক থেকে সব থেকে সফল অধিনায়ক হলেই কি তাঁকে সফল বলা চলে?

বিদেশে টেস্ট জয়ের নিরিখে ধোনি কিন্তু সৌরভ আর বিরাট কোহলির থেকে পিছিয়েই শেষ করলেন। বিদেশের মাঠে ২৫টা টেস্টে নেতৃত্ব দিয়ে মাত্র ৬টায় ভারতকে জিতিয়েছেন ধোনি। ভারত হেরেছে ১১টি টেস্টে।

তবে ধোনির টেস্ট ক্রিকেট খুব একটা প্রিয় ছিল না, সেটা তিনি বুঝিয়ে দেন ২০১৪-এর ডিসেম্বরে। মাত্র ৩৩ বছর বয়সে সবাইকে চমকে দিয়ে টেস্ট থেকে নিজের অবসরের কথা ঘোষণা করেন মাহি। এর পর শুধুই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মনোনিবেশ করেন তিনি।

২০১৫-এর বিশ্বকাপে ধোনির নেতৃত্বে ভারত সেমিফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছে যায়। গোটা টুর্নামেন্টে ভারত একটা মাত্র ম্যাচেই হেরেছিল। অস্ট্রেলিয়ার কাছে সেমিফাইনালে।

এর পরের বছরের এক্কেবারে শেষলগ্নে একদিনের ম্যাচের অধিনায়কত্বও ছেড়ে দেন মাহি। বিরাট কোহলির কাঁধে দায়িত্ব চলে আসে। তবে বকলমে ভারতের অধিনায়ক ধোনিই ছিলেন, সেটা পরতে পরতে বোঝা গিয়েছে। উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে ধোনিকে অনেক বার ফিল্ড সেট করতে দেখা গিয়েছে।

বিরাট কোহলিও ধোনিকে অসম্ভব ভরসা করতেন। আর সেই কারণেই শেষ দু’ বছর তাঁর ব্যাটিং ফর্ম পড়ে গেলেও ধোনি সম্পর্কে কোনো বিরূপ ধারণা তৈরি হয়নি কোহলির। অধিনায়কের ব্যাকিং সব সময়ে পেয়ে গিয়েছিলেন ধোনি। এমনকি ক্রিকেটবিশ্ব যখন ধোনির সমালোচনায় মুখর, তখন তার জবাব কোহলিই দিয়েছেন।

কিন্তু যতই অধিনায়কের সমর্থন থাকুক, ধোনির নিজের ফর্ম যে পড়তির দিকে সেটা তিনিও সম্ভবত বুঝতে পারছিলেন। তবুও তাঁর আশা ছিল ভারতকে আরও একবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করেই ক্রিকেট মাঠকে বিদায় জানাবেন তিনি।

কিন্তু মার্টিন গাপ্টিলের একটা রানআউট তাঁর সেই স্বপ্ন পূরণ করতে দিল না। রানআউটে শুরু হওয়া একটি কেরিয়ার শেষ হল রানআউটের মধ্যে দিয়েই।

[যে রানআউটে শেষ হয়ে গেল ১৩০ কোটির স্বপ্ন]

ধোনি কিন্তু নিজের মর্জিমাফিক চলেন বোঝা যায়। টেস্ট থেকে যেমন আচমকা অবসর ঘোষণা করেছিলেন, তেমনই সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে যখন অবসর ঘোষণা করলেন তখন তাঁর জন্য একটি বিদায় ম্যাচের আয়োজন করারও উপায় নেই।

তবুও আমরা চাই, আপামর ক্রিকেটভক্ত চায়, ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনও চান, অন্তত একটা ফেয়ারওয়েল ম্যাচ খেলুন ধোনি। করোনার দাপট কমে গেলে সামনের বছর দর্শকভরতি কোনো স্টেডিয়ামেই হোক এই ম্যাচ।

আপাতত চেন্নাই সুপারকিংসের হলুদ জার্সিতে দেখা যাবে ধোনিকে। কিন্তু নীল জার্সির মাহাত্ম্য যে সব সময় আলাদা।

২০১১-এর বিশ্বকাপের ফাইনালে ছয় মেরে ভারতকে জেতানোর সময়ে রবি শাস্ত্রীর বিখ্যাত ধারাবিবরণীটা এখনও মনে পড়ে, “ধোনি ফিনিসেজ অফ ইন স্টাইল!”

সেটাই কিন্তু এ বারও হল। একবারে নিজস্ব ঢঙে, নিজস্ব কায়দায় কেরিয়ার শেষ করলেন মাহি।

ক্রিকেট

অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন স্পিনার অপহৃত, পরে মুক্ত

অপহরণকারীদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং জাতীয় দলে শেন ওয়ার্নের সতীর্থ স্পিনার স্টুয়ার্ট ম্যাকগিল অপহৃত হলেন। তবে ‌অস্ট্রেলিয়ার এই প্রাক্তন স্পিনারকে এক ঘণ্টার মধ্যেই ছেড়ে দেয় অপহরণকারীরা। এই ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে ঘটনাটি গত মাসের। ১৪ এপ্রিল সিডনির বাড়ি থেকে অপহরণ করা হয় ম্যাকগিলকে। এরপর তাঁকে শহরের সম্পূর্ণ অন্য প্রান্তে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রচণ্ড মারধোর করা হয়, বন্দুক দেখিয়ে ভয় দেখানো হয়। তবে এর এক ঘণ্টা পরে তাঁকে ছেড়েও দেওয়া হয়।

Loading videos...

অস্ট্রেলিয়া পুলিশের বক্তব্য, ঘটনার দিন উত্তর সিডনির রাস্তায় একজন হঠাৎই ম্যাকগিলের পথ আটকায়। এরপর আরও দু’জন সেখানে এসে ৫০ বছর বয়সী এই প্রাক্তন ক্রিকেটারকে গাড়িতে তুলে নেয়। নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, “গত ১৪ এপ্রিল রাত ৮টার সময় ঘটনাটি ঘটে। অপহৃত ব্যক্তিকে ব্রিনগেলি এলাকার একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে মারধোর করা হয়। বন্দুক দেখিয়ে হুমকি দেওয়া হয়। এক ঘণ্টা পরে বেলমোর এলাকায় ওই ব্যক্তিকে নামিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা.”

পুলিশকে ২০ এপ্রিল ঘটনাটি জানানো হয় এবং থানায় ডায়েরি করা হয়। তার ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। এর পরেই গ্রেফতার করা হয় ওই অপহরণকারীদের।

উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৪৪টি টেস্ট খেলেছেন ম্যাকগিল। উইকেট নিয়েছেন ২০৮টি। শেন ওয়ার্নের সঙ্গে জুটি বেঁধে বেশ কিছু ম্যাচে তিনি জিতিয়েছেন অস্ট্রেলিয়াকে।

আরও পড়তে পারেন Corona Crisis In IPL: জৈব বলয় ভেদ করে কী ভাবে ঢুকল করোনা, উঠে এল একাধিক কারণ

Continue Reading

ক্রিকেট

Corona Crisis In IPL: জৈব বলয় ভেদ করে কী ভাবে ঢুকল করোনা, উঠে এল একাধিক কারণ

ঋদ্ধিমান সাহা, অমিত মিশ্র, সিভি বরুণরা আক্রান্ত।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার অ্যাডাম জাম্পা এই সন্দেহটাই কিছু দিন আগে করেছিলেন। আইপিএল ছেড়ে দেশে ফিরে আসার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, এই জৈব সুরক্ষা বলয়টি তাঁর আদৌ সুরক্ষিত মনে হয়নি। গত মরশুমে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির সুরক্ষা বলয়টি যথেষ্ট নিরাপদ ছিল বলে মনে করেন তিনি।

জাম্পার সন্দেহকে সত্যি করেই আইপিএলে হানা দিল করোনা। আক্রান্ত হয়ে গেলেন ঋদ্ধিমান সাহা থেকে অমিত মিশ্র, সিভি বরুণ থেকে লক্ষ্মীপতি বালাজি। কিন্তু কী ভাবে জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে ঢুকে পড়ল করোনা? এর জন্য একাধিক কারণকে তুলে ধরে টাইমস অব ইন্ডিয়া

Loading videos...

১. জৈব বলয় বারবার ভেঙেছে

জৈব সুরক্ষা বলয় অনেক ক্ষেত্রেই নষ্ট হয়েছে। হোটেল সংরক্ষণের ক্ষেত্রে নিয়ম মানা হয়নি। দৈনিকটি জানাচ্ছে একটি দল তাদের ক্রিকেটারদের শপিং মলের মধ্যে থাকা হোটেলে রেখেছিল। আর একটি দল গোটা হোটেল সংরক্ষণ করে রাখলেও অন্যত্র খেলতে যাওয়ায় ১২ দিন অন্য শহরে ছিল। কিন্তু সেই ১২ দিন ওই হোটেল তারা সংরক্ষিত করে রাখেনি। ফলে ওই দিনগুলোয় সেখানে অন্য মানুষের অবাধ যাতায়াত ছিল। এর ফলেও এই সুরক্ষা বলয় ভেঙে গিয়ে থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

২. মাঠকর্মী এবং ফ্র্যাঞ্চাইসি মালিকদের সংস্পর্শে

অনুশীলন চলাকালীন মাঠকর্মীদের সংস্পর্শে আসতে হয় ক্রিকেটারদের। কিন্তু মাঠকর্মীরা সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে না থাকায় তাদের থেকেও আক্রান্ত হতে পারেন ক্রিকেটাররা। এমনটাও শোনা যাচ্ছে, মাঠকর্মীদের অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে করোনা আক্রান্ত হলেও তাদের দিয়েই কাজ চালিয়ে যাওয়া হতে থাকে। মুম্বই, চেন্নাই ও দিল্লিতেও এই ঘটনা ঘটেছে।

এ ছাড়া, আইপিএলে গ্যালারি ফাঁকা থাকলেও ফ্রাঞ্চাইসি মালিকরা গ্যালারিতে থাকতেন। তাঁরা জৈব সুরক্ষা বলয়ের অংশ নন। ফলে সেখান থেকেও কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

৩. বারবার শহর বদলানো

এক শহর থেকে অন্য শহরে বারবার যেতে হওয়ায় আক্রান্ত হওয়ায় সম্ভাবনা কিছুটা বেড়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে এক শহর থেকে অন্য শহরে আসার পরই আক্রান্ত হয়েছেন ক্রিকেটাররা। এর মূল কারণ হল বিমানবন্দর। ভিড় বিমানবন্দরে ক্রিকেটারদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করে তাঁদের নিয়ে যাওয়া অনেক সময় সম্ভবপর হয়নি।

৪. অকেজো জিপিএস ব্যবস্থা

গত মরশুমে ক্রিকেটারদের গতিবিধি নজরে রাখার জন্য জিপিএস-এর ব্যবস্থা করা হলেও এ মরশুমে তা ঠিক ভাবে করা হয়নি। যাঁরা এই কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তাঁদের কাছে একটি দল তাঁদের ক্রিকেটারদের তথ্য চেয়েছিল। সেই তথ্য যখন এসে পৌঁছোয়, তার দু’দিন আগেই সেই শহর ছেড়ে দিয়েছে ওই দল। এই অকেজো ব্যবস্থার কারণে ক্রিকেটারদের গতিবিধির ওপরে নজরই রাখা যায়নি।

Continue Reading

ক্রিকেট

Covid Crisis In IPL: স্থগিত আইপিএল, বাড়ি পাঠানো হচ্ছে ক্রিকেটারদের

করোনা সংক্রমণে জেরবার আইপিএল! স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিল বিসিসিআই।

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গেল আইপিএল ২০২১ (IPL 2021)। বিসিসিআই জানিয়েছে, একের পর এক ক্রিকেটার কোভিড-১৯ (Covid-19) আক্রান্ত হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (BCCI)।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের দুই ক্রিকেটার বরুণ চক্রবর্তী এবং সন্দীপ ওয়ারিয়ার, চেন্নাই সুপার কিংসের বোলিং কোচ লক্ষ্মীপতি বালাজি এবং টিমের এক সাপোর্ট স্টাফ সদস্য ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। আইপিএল প্রোটোকল অনুযায়ী সিএসকে স্কোয়াডকে পৃথক করে দেওয়া হয়েছে।

Loading videos...

এর পাশাপাশি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের এক ক্রিকেটার কোভিড পজিটিভ হওয়ার পর টিমের প্রত্যেক সদস্যকে নিভৃতবাসে পাঠানো হয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

মঙ্গলবারই নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী দিল্লির মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। কিন্তু ঋদ্ধিমান সাহা কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় সেই ম্যাচের আর কোনো সম্ভাবনাই ছিল না।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর কাছে বিসিসিআই ভাইস-প্রেসিডেন্ট রাজীব শুক্ল বলেন,  “এ বারের মতো বাতিল করা হচ্ছে আইপিএল”।

বিসিসিআই একটি বিবৃতিতে জানায়, “ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ এবং আইপিএল আয়োজনে জড়িত অন্যান্য অংশগ্রহণকারীদের সুরক্ষার সঙ্গে কোনো আপস করতে চায় না বিসিসিআই। সবার নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য এবং হিতসাধনের কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে”।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “এটা অত্যন্ত কঠিন সময়, বিশেষত ভারতে এবং আমরা কিছুটা ইতিবাচকতা এবং আনন্দ আনার চেষ্টা করেছি। তবে, জরুরি ভিত্তিতে টুর্নামেন্টটি স্থগিত করা হয়েছে। প্রত্যেকে নিজের পরিবারের কাছে ফিরে যাচ্ছেন”।

আরও পড়তে পারেন: Covid Crisis In IPL: চেন্নাই শিবিরেও করোনার হানা, আক্রান্ত ৩

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
দেশ20 mins ago

ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্তে রাজ্যে আসছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের গড়া চার সদস্যের দল

দেশ2 hours ago

Coronavirus Second Wave: প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আরএলডি নেতা অজিত সিংহ প্রয়াত

দেশ2 hours ago

Corona Update: দু’তিনটে রাজ্যে সংক্রমণবৃদ্ধির জের, ভারতের দৈনিক সংক্রমণ ভেঙে দিল অতীতের রেকর্ড

Coronavirus Delhi
দেশ3 hours ago

Coronavirus Second Wave: আশার আলো, দিল্লি-সহ একাধিক রাজ্যে সংক্রমণের হার কমছে

কোচবিহার4 hours ago

Sitalkuchi Incident: কোচবিহারের সেই পুলিশ সুপারকে সরিয়ে দিল রাজ্য

Covid situation kolkata
দেশ4 hours ago

Bengal Corona Update: ১.৩ শতাংশেরও কম, মৃত্যুহারের নিরিখে দশম স্থানে নামল পশ্চিমবঙ্গ

দেশ4 hours ago

Coronavirus Second Wave: তৃতীয় ঢেউ আসবেই, সাফ কথা কেন্দ্রের

পরিবেশ11 hours ago

২০ বছরে বাংলাদেশের সুন্দরবনে ২৫ বার আগুন, পুড়ে গেছে প্রায় ৮১ একর বনভূমি

ক্রিকেট3 days ago

Covid Crisis in IPL: বরুণ-সহ দুই ক্রিকেটার কোভিড পজিটিভ, সোমবারের ম্যাচ স্থগিত

শিক্ষা ও কেরিয়ার3 days ago

NEET 2021: কোভিডের কারণে চার মাস স্থগিত নিট পিজি ২০২১ পরীক্ষা

yogi adityanath
দেশ2 days ago

UP Panchayat Polls: বারাণসী, অযোধ্যা, মথুরায় ধরাশায়ী বিজেপি

রাজ্য1 day ago

Oath Ceremony: তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ক্রিকেট1 day ago

Corona Crisis In IPL: জৈব বলয় ভেদ করে কী ভাবে ঢুকল করোনা, উঠে এল একাধিক কারণ

election commission of india
রাজ্য2 days ago

নন্দীগ্রামের সেই রিটার্নিং অফিসারের বাড়তি নিরাপত্তা

শিক্ষা ও কেরিয়ার2 days ago

JEE Main 2021: মে মাসের জয়েন্ট এন্ট্রাস (মেইন‌) ২০২১ পরীক্ষা স্থগিত, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: ঊর্ধ্বমুখী দৈনিক সংক্রমণ, তাল মিলিয়ে বাড়ছে সুস্থতাও

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা3 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা3 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা3 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে