স্বপ্ন দেখাচ্ছেন সেই অরুণ লাল

0

ওয়েবডেস্ক: বঙ্গক্রিকেটের একজন ধুরন্ধর নিঃসন্দেহে অরুণ লাল। শেষ বার বাংলা রঞ্জি ট্রফি ঘরে তুলেছিল ১৯৮৯-৯০ মরশুমে। সে বারের অধিনায়ক এই মুহূর্তে বাংলা দলের কোচ। সেই অরুণ লালের কোচিংয়ে বাংলা এ বার গ্রুপ পর্যায়ে যা খেলেছে, নিঃসন্দেহে গত দু’দশকের সেরা।

গ্রুপ স্টেজে চারটে ম্যাচে সরাসরি জয়, যার মধ্যে একটি আবার বোনাস পয়েন্ট নিয়ে। ৩২টা পয়েন্ট পাওয়া। শেষ কবে এমন পারফরম্যান্স করেছে বাংলা!

সাম্প্রতিক ইতিহাসে, বাংলার সব থেকে ভালো পারফরম্যান্স ছিল ২০০৫-০৬ আর ২০০৬-০৭ এর রঞ্জি ট্রফিতে। দু’ বারই রানার্স হয় বাংলা। কিন্তু কোনো বারই গ্রুপ লিগে এই পরিমাণ পয়েন্ট বাগাতে পারেনি, যা এ বার পেরেছে।

তাও তো নেহাৎ গোটা দুয়েক ম্যাচে বৃষ্টি থাবা বসিয়েছিল। নইলে খুব সহজেই ৩৫ পয়েন্টের ঘরে বাংলা ঢুকে যেতে পারত।

যা-ই হোক, পঞ্জাবের বিরুদ্ধে ম্যাচটিতে বাংলা যে এত সহজে জিতে যাবে, প্রথম দিনের খেলার শেষে তা কোনো ভাবেই আন্দাজ করা যায়নি। প্রথম ইনিংসে ১৩৮ রানে বান্ডিল হয়ে গিয়ে কোনো দল যদি ৪৮ রানে ম্যাচ জেতে তা হলে বোঝা যায় দলের বোলাররা কেমন খেলেছেন।

শুক্রবার, দ্বিতীয় ইনিংসে নয় উইকেটে ১৯৯ রানে শুরু করেছিল বাংলা। কিন্তু, ইনিংসে দাঁড়ি পড়ে ২০২ রানে। ফলে, জেতার জন্য চতুর্থ ইনিংসে পঞ্জাবকে করতে হত ১৯০ রান। অসমান বাউন্স এবং ঘূর্ণি এই পিচে এই টার্গেটটাও যথেষ্ট ছিল। ফলে এ দিন সকাল থেকে মনে হচ্ছিল ম্যাচটা বাংলাই পকেটে পুরবে।

হলও তাই। ৪৭.৩ ওভারে ১৪১ রানে শেষ হয় পঞ্জাবের লড়াই। পাঁচ রানের মধ্যেই তিন উইকেট পড়ে গিয়েছিল পঞ্জাবের। সেই ধাক্কা আর কাটিয়ে উঠতে পারেনি পঞ্জাব। 

আরও পড়ুন প্রস্তুতি ম্যাচের শুরুতেই বিশাল বড়ো ধাক্কা খেল ভারত

বাংলার বোলারদের মধ্যে এই ইনিংসেও সফলতম শাহবাজ আহমেদ। তিনি ৪৪ রানে নেন চার উইকেট। পঞ্জাবের প্রথম ইনিংসে সাত উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। এ ছাড়া আকাশদীপ, অর্ণব নন্দী, আর রমেশ প্রসাদ বাকি উইকেট নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেন।  

এই জয়ের ফলে কোয়ার্টার ফাইনালে খুব সহজেই জায়গা করে নিল বাংলা। শেষ আটে তাদের প্রতিপক্ষ কে জানা যাবে শনিবার। আর মাত্র তিনটে ধাপ পেরোতে পারলেই তিন দশক আগের সেই ঐতিহাসিক মুহূর্ত ফের হাজির হবে বাংলার কাছে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.