cricket association of bengal

বাংলা ৩৭৯ এবং ১০৮-৩ (সুদীপ ৩৫, অভিমণ্যু ২০ অপরাজিত, গর্গ ২-৩৮)

গোয়া ৩১০ (দেসাই ১০৩, কিনান ৬০, দিন্দা ৫-৭৭)

কলকাতা: ক্রিকেট বড়োই অনিশ্চয়তার খেলা। কখন কী হবে কিছুই বলা যায় না। তবে বিশেষ অঘটন না ঘটলে শেষ আটে বাংলার জায়গা যে পাকা হয়ে গিয়েছে সেটা এখনই বলে দেওয় যায়।

এখানে অঘটনের প্রসঙ্গ আসছে কেন? এই কারণেই আসছে, গোয়ার থেকে বাংলা কিছু এখনও নিরাপদ দূরত্ব তৈরি করতে পারেনি। প্রথম ইনিংসে ৬৯ রানের লিড খুব একটা আহামরি কিছু নয়। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বাংলার স্কোর তিন উইকেটে ১০৮। সব মিলিয়ে লিড হয়েছে ১৭৭। ফিরে গিয়েছে সুদীপ এবং মনোজ। শেষ দিন সকালে যদি গোয়ার বোলাররা জ্বলে ওঠেন, তাহলে কী হবে কিছুই বলা যায় না।

ষষ্ঠ উইকেটে ১১০ রানের জুটিই গোয়াকে অনেক ভালো জায়গায় পৌঁছে দেয়। এই দুই জুটির জন্য তৃতীয় দিন সকালে উইকেট পায়নি বাংলা। তারপর তেরো রানের মধ্যে তিন উইকেট ফেলে দিলেও ফের নবম উইকেটে বড়ো জুটি তৈরি করে গোয়া। অমোঘ দেসাই এবং হেরম্ব পরবের ৫২ রানের জুটি গোয়াকে তিনশো পার করিয়ে দেয়। এই জুটি ভাঙার সঙ্গে সঙ্গেই গোয়ার শেষ উইকেটটিও ফেলে দেয় বাংলা। শতরান করে অপরাজিত থাকেন দেসাই। আরও একবার ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেন দিন্দা।

৬৯ রানের লিড নিয়ে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালোই হয়নি বাংলার। ১৬ রানের মাথায় ওপেনার অভিষেক রমনকে হারায় বাংলা। এরপরে তৃতীয় উইকেটে ঈশ্বরণ এবং সুদীপের মধ্যে ভালো জুটি তৈরি হয়। কিন্তু সুদীপ ফিরে যাওয়ার কিছু পরেই ফিরে যান মনোজ। দিনের শেষে ঈশ্বরণের সঙ্গে অপরাজিত রয়েছেন শ্রীবৎস।

শেষ দিন প্রথম সেশন বাংলার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। এই দুই ব্যাটসম্যান যদি সেশনটা উতরে দেন তাহলে বাংলার শেষ আটে যাওয়া পাকা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here