gavas-kohlifinal

ওয়েবডেস্ক: ব্যাটিং বিপর্যয়ের জেরে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টেই হারের মুখ দেখেছে টিম ইন্ডিয়া। অধিনায়ক বিরাট কোহলি ছাড়া বাকি সব ব্যাটসম্যানদের অবস্থা রীতিমতো ভয়ানক। ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে সে দেশে অতীতের টেস্ট রেকর্ড মোটেই ভাল নয় ভারতের। ফলে সেই চিত্র বদলাতে মরিয়া ছিল রবি শাস্ত্রীর ছেলেরা। কিন্তু শুরুতেই বিপত্তি। ৩১ রানে হার। এমন হার মেনে নেওয়া কারওর পক্ষেই সম্ভব নয়। মেনে নিতে পারেননি ক্রিকেটের কিংবদন্তি তথা প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সুনীল গাভাসকরও। অধিনায়ক ভাল খেললেও তাঁকে একহাত নিয়েছেন গাভাসকার। সঙ্গে টিম ম্যানেজমেন্টকেও।

আরও পড়ুন: এলিট ক্লাবে ঢুকে পড়লেন বিরাট কোহলি, সম্মান জানাল আইসিসি

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তাঁর বক্তব্য, “দেখুন বিরাট কোহলি আলাদা এক প্রতিভা। ও পনেরো দিন ছুটি নিলেও, তার পরের দিন শতরান করে দেবে। ও ছুটি নিলে বিতর্কের কিছু নেই। কিন্তু ওকে এবং টিম ম্যানেজমেন্টকে বুঝতে হবে যে বাকিদের প্র্যাকটিস দরকার। ছুটি সবারই দরকার। তাই বলে পাঁচ দিন! শেষ একদিনের ম্যাচ এবং প্রথম টেস্টের মধ্যে চোদ্দো দিনের ছুটি ছিল। কিন্তু সেখানে তুমি মাত্র তিন দিনের একটি ম্যাচ খেলছো? ইংল্যান্ডে ক্রিকেট খেলতে গেছো নাকি অন্য কিছু। মানছি অনেক ঘণ্টা প্র্যাকটিস করেছ। কিন্তু ম্যাচও তো খেলতে হবে। শুধু সাদা বলে খেললে হবে না। লাল বলেও খেলতে হবে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে হেরেও কিছু শিক্ষা হয়নি। শুধু তাই নয়, অতিরিক্ত কোনো ব্যাটসম্যানও নেই। বিদেশে মাটিতে আমি যদি থাকতাম তাহলে ছয় জন ব্যাটসম্যান নিতাম। তারপর উইকেটকিপার এবং অশ্বিনের মতো অলরাউন্ডার”।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন