Connect with us

ক্রিকেট

বিশ্বকাপে ভারতের সেরা একাদশ

cricket-world-cup

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপে সেরা ভারতীয় একাদশ নিয়ে রিপোর্ট পেশ করল ওয়েবসাইট ক্রিকেট-নেক্সট। তবে সেরা একাদশ বাছাইয়ে মূল একটি নিয়ম রেখেছে ক্রিকেট-নেক্সট। একমাত্র বিশ্বকাপের পারফরমেন্স বিচার করে এই দল গড়া হয়েছে। সঙ্গে খেলোয়াড়দের বিশ্বকাপে পারফরমেন্স এবং কোন পজেশনে তাঁরা খেলেছেন।

উল্লেখ্য, খেলোয়াড়দের গড়ের সঙ্গে ব্যাটসম্যানদের ক্ষেত্রে স্ট্রাইক-রেট এবং বোলারদের ক্ষেত্রে ইকোনমি রেট-কে বেসলাইন দিয়ে ভাগ করা হয়েছে। ভাগের পর যে ভ্যালুটি এসেছে তাই ব্যাটিং বেস লাইন এবং বোলিং বেস লাইন।

ব্যাটসম্যান হিসাবে রয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর। তাঁর ব্যাটিং রেশিও ২.০৩ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২৪.৯১

সঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর ব্যাটিং রেশিও ১.৯৪ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২২.৩৬।

রয়েছেন বীরেন্দ্রর সহবাগ। ব্যাটিং রেশিও ১.৫৮ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২৫.৭৭।

চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসাবে রয়েছেন নভজ্যোত সিং সিধু। ব্যাটিং রেশিও ১.২৪ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২৮.৯৩।

ফাইনাল দলে জায়গা পেয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

মিডল অর্ডার, বিরাট কোহলি। ব্যাটিং রেশিও ১.১৬ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২৯.৭০।

আছেন রাহুল দ্রাবিড়, ব্যাটিং রেশিও ২.৪৮ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ১৮.৫৮।

অজয় জাডেজা, ব্যাটিং রেশিও ১.২৭ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ১৯.৭২।

মহম্মদ আজহারউদ্দিন। ব্যাটিং রেশিও ১.৩২ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২৩.০৮।

এম এস ধোনি, ব্যাটিং রেশিও ১.৪৪ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ২৬.৭৮।

সুরেশ রায়না, ব্যাটিং রেশিও ২.০৯ এবং ব্যাটিং বেস লাইন ৩০.৬৪

ফাইনাল দলে জায়গা পেয়েছেন এম এস ধোনি, মহম্মদ আজারুদ্দিন এবং রাহুল দ্রাবিড়। অধিনায়ক এবং উইকেটরক্ষক ধোনি।

অলরাউন্ডার, কপিল দেব। ব্যাটিং বেস লাইন-১৯.২০, ব্যাটিং রেশিও- ২.২৩, বোলিং বেস লাইন- ১৯.২১, বোলিং রেশিও- ০.৯৬। মোট রেশিও- ৩.১৯

যুবরাজ সিং, ব্যাটিং বেস লাইন-২২.২৫, ব্যাটিং রেশিও- ২.১৪, বোলিং বেস লাইন- ২৭.২৯, বোলিং রেশিও- ১.৪৫। মোট রেশিও- ৩.৫৯

মহিন্দার অমরনাথ, ব্যাটিং বেস লাইন-১৭.৫৫, ব্যাটিং রেশিও- ০.৫৬, বোলিং বেস লাইন- ১৮.৭৩, বোলিং রেশিও- ১.০৭। মোট রেশিও- ১.৬৩

মদনলাল, ব্যাটিং বেস লাইন-৮.১৫, ব্যাটিং রেশিও- ২.২৭, বোলিং বেস লাইন- ১৯.০৯, বোলিং রেশিও- ১.৬২। মোট রেশিও- ৩.৮৯

ফাইনাল দলে অলরাউন্ডার হিসাবে জায়গা পেয়েছেন যুবরাজ সিং এবং কপিল দেব।

পেস বোলার, জাহির খান- বোলিং বেস লাইন- ২২.৩৪, বোলিং রেশিও- ১.৪৮।

জাভাগাল শ্রীনাথ – বোলিং বেস লাইন- ২১.১২, বোলিং রেশিও- ১.০৫।

আশিস নেহরা – বোলিং বেস লাইন- ২১.৮৫, বোলিং রেশিও- ১.৩১।

মনোজ প্রভাকর – বোলিং বেস লাইন- ২৩.১৯, বোলিং রেশিও- ১.১৯।

ফাইনাল দলে জায়গা পেয়েছেন আশিস নেহরা এবং জাহির খান।

স্পিন বোলার, অনিল কুম্বলে – বোলিং বেস লাইন- ২৪.৬৮, বোলিং রেশিও- ১.৫৯। 

রবি অশ্বিন – বোলিং বেস লাইন- ৩৫.৭৫, বোলিং রেশিও- ১.৯৮।

ভেঙ্কটপতি রাজু – বোলিং বেস লাইন- ২৩.৭২, বোলিং রেশিও- ১.২২।

ফাইনাল দলে স্পিন বোলার হিসাবে জায়গা পেয়েছেন অনিল কুম্বলে এবং রবি অশ্বিন।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ক্রিকেট

ন্যাটওয়েস্ট ফাইনালের ১৮ বছর, টুইটে নাসির হুসেনকে ট্রোল যুবরাজের, জবাবে নাসির যা বললেন…

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ১৮ বছর আগে এই দিনেই ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম এক স্মরণীয় মুহূর্ত এসেছিল। ন্যাটওয়েস্ট ফাইনাল জিতে নিয়েছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ব্রিগেড। এখনও ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা একদিনের ম্যাচ হিসেবে আখ্যা পায় এটি।

সেই ম্যাচেরই স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে নাসির হুসেনকে হালকা করে ট্রোল করলেন যুবরাজ। নাসির অবশ্য যুবরাজের টুইটটাকে খেলোয়াড় সুলভ মনোভাবেই নিলেন আর তার জবাবও দিলেন।

ন্যাটওয়েস্ট ফাইনালের কয়েকটা ছবি এ দিন টুইটারে পোস্ট করেন যুবি। সেখানে তিনি লেখেন, “আমাদের তখন বয়স কম ছিল। আমাদের জেতার খিদে ছিল। অসাধারণ দলগত পারফরম্যান্সে ভর করে সে দিন আমরা ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিলাম।”

এর পর নাসিরকে উদ্দেশ করে যুবরাজ লেখেন, “নাসির, তুমি যদি ভুলে যাও, তাই মনে করিয়ে দিলাম।”

এর উত্তরে নাসির লেখেন, “অসাধারণ কিছু ছবি বন্ধু। ভাগ করে নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।”

উল্লেখ্য, ওই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৩২৫ করে ইংল্যান্ড। একদিনের কেরিয়ারে একমাত্র শতরানটি সে দিনই করেছিলেন নাসির। তাঁর সঙ্গে মার্কাস ট্রেস্কোথিকও শতরান করেছিলেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে, ঝড় ওঠে সৌরভের ব্যাটে। ৪৩ বলে ৬০ করেন তিনি। তিনি তার পরেই ভেঙে পড়ে ভারতীয় ব্যাটিং। একটা সময়ে তাদের স্কোর গিয়ে ৫ উইকেটে ১৪৬। সব আশা যখন ছেড়ে দিয়েছিল ভারত, তখনই রুখে দাঁড়িয়েছিল যুবরাজ সিংহ আর মহম্মদ কঈফের ব্যাট।

কঈফের ৮৭ অপরাজিত আর যুবরাজের অর্ধশতরানে ভর করে ঐতিহাসিক একটি ম্যাচ জিতে যায় ভারত। তবে ম্যাচ শেষে সৌরভের জামা খুলে ওড়ানোর দৃশ্যটা এখনও ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ছবি হয়ে রয়েছে।

Continue Reading

ক্রিকেট

ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তনে ঐতিহাসিক জয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের

প্রথম টেস্টে ইংল্যান্ডকে তারা হারিয়ে দিল ৪ উইকেটে।

ইংল্যান্ড: ২০৪ ও ৩১৩ (জ্যাক ক্রলি ৭৬, ডিপি সিবলে ৫০, গ্যাব্রিয়েল ৫-৭৫)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩১৮ ও ২০০-৬ (ব্ল্যাকউড ৯৫, আর্চার ৩-৪৫)

সাউদাম্পটন (Southampton) : মাত্র পাঁচ রানের জন্য ঐতিহাসিক টেস্টে শতরান পেলেন না জারমেন ব্ল্যাকউড (J Blackwood)। কিন্তু যখন আউট হলেন তখন দেশের জয় প্রায় নিশ্চিত। শেষ পর্যন্ত জয় পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ (West Indies)। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তনের পর প্রথম টেস্টে ইংল্যান্ডকে (England) তারা হারিয়ে দিল ৪ উইকেটে।

করোনার দাপটে ক্রীড়াজগতে নেমে এসেছিল। সব খেলার মতো ক্রিকেটের মঞ্চেও পর্দা পড়ে যায়। কিন্তু সেই করোনার কাছে শেষ পর্যন্ত মাথা নোয়াতে যে ইচ্ছুক নয় ক্রীড়াজগত, তার প্রমাণ হল ১১৬ দিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ফিরে আসা। আর সেই মাহেন্দ্রক্ষণে জয় ছিনিয়ে নিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

গত চার দিন যা খেলা হয়েছিল তাতে পাল্লা ভারী ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই। প্রথম ইনিংসে ক্যারিবিয়ান পেসের দাপটে ইংল্যান্ড গুটিয়ে গিয়েছিল মাত্র ২০৪ রানে। এই ইনিংসে সর্বোচ্চ স্কোর ছিল অধিনায়ক বেন স্টোক্সের। তাও তিনি অর্ধশত রানের গণ্ডি ছুঁতে পারেননি। বল হাতে ভেলকি দেখিয়েছিলেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার (৬-৪২) এবং শ্যানন গ্যাব্রিয়েল (৪-৬২)।

ব্রাথওয়েট আর ডাওরিচের ব্যাটিঙের সুবাদে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংসেই ১১৪ রানের লিড নিয়ে নিয়েছিল।

দ্বিতীয় ইনিংসে অবশ্য কিছুটা মুখরক্ষার খেলা খেলে ইংল্যান্ড। ক্রলি (৭৬), সিবলে (৫০) এবং স্টোক্সের (৪৩) ব্যাটিং-এ ভর করে ইংল্যান্ড পৌঁছে যায় ৩১৩ রানে। এই ইনিংসেও বল হাতে দাপট দেখান গ্যাব্রিয়েল। ৭৫ রানে ৫ উইকেট নিয়ে এই টেস্টে তিনি শিকার করেন ৯ জনকে।

জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের দরকার ছিল ২০০ রানের। লক্ষ্যমাত্রা যে খুব একটা বড়ো তা নয়, কিন্তু ২৭ রানে ৩ উইকেট চলে যাওয়ার পরে আশার আলো ঝিলিক মারে ইংল্যান্ড শিবিরে। কিছুটা চাপে পড়ে ক্যারিবিয়ানরা। কিন্তু ওপেনার ক্যাম্পবেল আহত হয়ে সাময়িক ভাবে অবসর নেওয়ায় দলের তৃতীয় উইকেট পড়ার পর ছ’ নম্বর ব্যাটসম্যান জারমেন ব্ল্যাকউড মাঠে নামতেই ম্যাচের রাশ ক্রমশ ইংল্যান্ডের হাত থেকে চলে যেতে শুরু করে। চেজকে সঙ্গী করে দলের স্কোর পৌঁছে দেন ১০০-য়। এর পর ব্ল্যাকউডের সঙ্গী হন ডাওরিচ, যিনি গত দু’ বছরে সব চেয়ে সফল টেস্ট উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান।

পঞ্চম উইকেটের জুটিতে রান ওঠে ৬৮ রান। ডাওরিচ আউট হন দলের ১৬৮ রানে। তার পর ৯৫ করে ব্ল্যাকউড যখন আউট হন তখন জয়ের জন্য দরকার মাত্র ১১ রান। ব্যাট করতে ফিরে আসেন ক্যাম্পবেল। অধিনায়ক হোল্ডারের সঙ্গে জুটি প্রয়োজনীয় রানটুকু তুলে দেন তিনি।

Continue Reading

ক্রিকেট

প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার চেতন চৌহান করোনা পজিটিভ

লখনউয়ের সঞ্জয় গান্ধী পিজিআই হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন চেতন

নয়াদিল্লি: করোনাভাইরাস (coronavirus) পজিটিভ হয়েছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার এবং উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী চেতন চৌহান (Chetan Chauhan)।

মারণ ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষায় চৌহানের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর শনিবার গভীর রাতে ভারতের আর দুই প্রাক্তন ক্রিকেটার আকাশ চোপরা এবং আর পি সিংয়ের টুইট থেকে সে খবর পাওয়া যায়। টুইটারে দুই ক্রিকেটার চেতনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

আকাশ লিখেছেন, “চেতন স্যার করোনা পজিটিভ হয়েছেন। তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন। তাঁর প্রতি আমার শুভকামনা রইল”।

অন্য দিকে আরপি সিং লিখেছেন, “এই মাত্র জানতে পারলাম চেতনজি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনার জন্য প্রার্থনা করি”।

জানা গিয়েছে, ৭২ বছর বয়সি চেতন গত শুক্রবার হাসপাতালে ভরতি হন। কোভিড-১৯ টেস্টে রিপোর্ট পজিটিভ আসায় তাঁকে ওই দিনই লখনউয়ের সঞ্জয় গান্ধী পিজিআই হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

চেতনের আক্রান্ত হওয়ার পরই পরিবারের অন্য সদস্যদের হোম কোয়রান্টিনে রাখা হয়েছে। গত বছর পর্যন্ত তিনি রাজ্যে ক্রীড়ামন্ত্রী ছিলেন। বর্তমানে তিনি উত্তরপ্রদেশ মন্ত্রিসভার সৈনিক ওয়েলফেয়ার, হোম গার্ডস, পিআরডি এবং সিভিল সিকিউরিটি দফতরের দায়িত্বে রয়েছেন।

ফিরে তাকানো

আগে দু’টি পর্বে লোকসভায় জিতে সংসদে গিয়েছেন প্রাক্তন আন্তর্জাতিক মানের ক্রিকেটার। তিনি ১৯৬৯-৭৮ পর্যন্ত দেশের হয়ে ৪০টি টেস্ট খেলেছেন। রান করেছেন ২০৮৪, গড় ৩১.৫৭ এবং সর্বোচ্চ রান ৯৭। পাশাপাশি তিনি সাতটি একদিবসীয় ম্যাচে খেলে ১৫৩ রান করেছিলেন।

সুনীল গাওস্করের সঙ্গে তাঁর অনবদ্য ওপেনিং জুটি সাতের দশকে তিন হাজারের বেশি রান সংগ্রহের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলে।

Continue Reading
Advertisement

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা5 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা7 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

নজরে