চেন্নাই: খেলার শুরুতে ভাবাই যায়নি এত অনায়াসে সিরিজ ১-০ করে ফেলবে ভারত। ম্যাচের প্রায় শুরুতেই ১১ রানে তিন উইকেট খুইয়ে ফেলেছিল কোহলির দল। বিরাট এবং মণীশ আউট হয়ে যান ০ রানে। খেলা ধরেন কেদার যাদব এবং রোহিত শর্মা। সেটাও বেশি দূর গড়ায়নি। এক সময় ৮৭/৫ হয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া। উইকেটে তখন বহু যুদ্ধের নায়ক ধোনি এবং তরুণ হার্দিক পাণ্ড্য।

আরও পড়ুন: গত চার মাসে চার বার এই দুরন্ত ঘটনা ঘটালেন হার্দিক পাণ্ড্য

দু’জনে মিলে রং বদলে দেন ম্যাচের। ৬৬ বলে ৮৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন পান্ড্য। ধোনির সঙ্গে ১১৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে হার্দিক যখন ৪১তম ওভারে আউট হলেন, ভারত তখন মোটামুটি স্বস্তিতে। কিন্তু নিশ্চিত অবস্থায় নেই। তার পর চমৎকার খেললেন ভুবনেশ্বর কুমার। ধোনির সঙ্গে জুটি বেঁধে তুললেন ৭২ রান। নিজে নট আউট থেকে গেলেন ৩২ রানে। ধোনি অবশ্য আউট হয়েছেন ৭৯ রানে। মোট ৭ উইকেট হারাল ভারত। জেতার জন্য অজিদের টার্গেট দাঁড়াল ২৮২।

আরও পড়ুন: ১০০ স্টাম্পিং-এর পর আরও এক কীর্তি মহেন্দ্র সিং ধোনির

তার পর শুরু হল বৃষ্টি। থামতেই চাইছিল না। বার বার অস্ট্রেলিয়ার টার্গেট ঠিক হচ্ছে, পিচ কভার সরানোর কথা ভাবা হচ্ছে, কিন্তু করা যাচ্ছে না কিছুই। পরিস্থিতি এমন দাঁড়াল আর ৫ মিনিট দেরি হলেই ম্যাচ বাতিল করতে হবে। তখনই ঝিরঝিরে বৃষ্টির মধ্যেই শুরু হল ম্যাচ। ডাকওয়ার্থ লুইস সিস্টেমে অজিদের টার্গেট ঠিক হল ২১ ওভারে ১৬৪।

কিন্তু যখন যেমন উইকেট দরকার ভারত পেয়ে গেল। ২টি উইকেট নিলেন পাণ্ড্য। বিপজ্জনক হয়ে ওঠা ওয়ার্নারকে তুলে নিলেন কুলদীপ। ৩ উইকেট পেলেন চহ্বল। সব মিলিয়ে ৯ উইকেটে ১৩৭ রানে আটকে গেল স্মিথের দল। ২৬ রানে জিতল ভারত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here