বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে চমক ভারতের, পুনম যাদবের ঘূর্ণিতে কাত অস্ট্রেলিয়া

0

সিডনি: মহিলাদের টি২০ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই গর্জে উঠল ভারতীয় দল। গত বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে দিল তারা। এই জয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করলেন স্পিনার পুনম যাদব।

ধারে ও ভারে অস্ট্রেলিয়া ভারতের থেকে অনেকটাই এগিয়ে ছিল। কিন্তু বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টে নামা সব সময়ের চাপের হয়। আর টুর্নামেন্টটা যদি নিজেদের দেশে হয় তা হলে সে চাপ যে আরও বাড়বে তা বলাই বাহুল্য। এই চাপের কাছেই নতিস্বীকার করল মেগ ল্যানিংয়ের অস্ট্রেলিয়া।

প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত কুড়ি ওভারে আহামরি কিছু রান করেনি ভারত। মাত্র ১৩২। কিন্তু সেই রানটাও যে অস্ট্রেলিয়ার কাছে চাপের হয়ে যাবে, এটা আন্দাজ করা যায়নি।

শুক্রবার টস জিতে ভারতকে ব্যাট করতে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া। শুরুতেই ষোড়শী শেফালি বর্মার ব্যাটে ঝড় ওঠে। যদিও, উলটো দিকে একের পর এক উইকেট পড়তেই থাকে। এ দিন ব্যর্থ হন ভারতের দুই নির্ভরযোগ্য, স্মৃতি মন্ধনা আর হরমনপ্রীত কৌর।

৫০-এর আগেই তিন উইকেট খুইয়ে ভারত যখন চাপে, তখনই খেলা ধরে নেন দীপ্তি শর্মা আর জেমিমা রডরিগেজ। রানের গতি না বাড়লেও আর কোনো উইকেট যাতে না পড়ে, সেটা নিশ্চিত করেন এই দু’জন। ভারতকে ১০০ পার করানোর পর জেমিমা আউট হয়ে গেলেও দীপ্তি শেষ পর্যন্ত খেলে যান, অপরাজিত থাকেন ৪৯ রানে।

১৩৩ রানের লক্ষ্যমাত্রা অস্ট্রেলিয়ার কাছে খুব চাপের ছিল না। কিন্তু শুরু থেকেই চাপা বোলিং করে অস্ট্রেলিয়ার ওপরে নিরন্তর চাপ তৈরি করতে থাকেন ভারতীয় বোলাররা। তবুও দশম ওভারে যখন পুনম যাদবের হাতে বল দেওয়া হয়, তখনও খুব একটা চাপে ছিল না অজিরা।

কিন্তু এখান থেকে ম্যাচের মোড় পুরো ঘুরিয়ে দেন পুনম। তিন ওভারের একটা স্পেলে চার উইকেট তুলে নেন তিনি। এর মধ্যে একবার হ্যাটট্রিকের সুযোগও চলে আসে তাঁর কাছে। উইকেটকিপার তানিয়া ভাটিয়া ক্যাচ মিস না করলে ইতিহাস তৈরি করে ফেলতে পারতেন পুনম।

আরও পড়ুন ১৭ বছর আগের সেই দুঃস্বপ্নের স্মৃতি ফেরাল বেসিন রিজার্ভের সকাল

পুনম যখন স্পেল শেষ করেন, ততক্ষণ অস্ট্রেলিয়ার যাবতীয় আশা শেষ হয়ে গিয়েছে। তবে শেষ দিকে অস্ট্রেলিয়ার তিনটে উইকেট তুলে নেন পেসার শিখা পাণ্ডে। ১১৫ রানেই অলআউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচটি ভারত জিতে যায় ১৭ রানে।

গ্রুপের সব থেকে শক্তিশালী দলকে হারিয়ে ভারত যে টগবগ করে ফুটবে তা বলাই বাহুল্য। এর পরের ম্যাচ সোমবার, অপেক্ষাকৃত সহজ প্রতিপক্ষ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.