kuldeep yadav

অস্ট্রেলিয়া ১১৮-৮ [ফিঞ্চ ৪২ (৩০), পাইন ১৭ (১৬), কূলদীপ ২-১৬]

ভারত ৪৯-১ (টার্গেট ৪৮) [ বিরাট ২২(১৪) অপরাজিত, ধাওয়ান ১৫ (১২) অপরাজিত, কুল্টার নাইল ১-২০]

রাঁচি: ফরম্যাট বদলে গেল, কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার ভাগ্য বদলাল না। প্রথম টি-২০ ম্যাচে অজিদের গুঁড়িয়ে দিয়ে সিরিজে এগোল ভারত।

বৃষ্টির ভ্রূকুটি ম্যাচে ছিল। তাই শনিবার টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নিতে দ্বিধা করেননি ভারত অধিনায়ক। স্মিথহীন অস্ট্রেলিয়াকে এ দিন নেতৃত্ব দিয়েছেন ওয়ার্নার। এখনও পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার যে পাঁচটা ম্যাচে অধিনায়কত্ব করেছেন ওয়ার্নার, সবক’টি অস্ট্রেলিয়া জিতেছে। তবে এ দিন ভাগ্য খারাপ ছিল ওয়ার্নারেরও।

এ দিন অজি ইনিংস শুরু হওয়ার পর থেকেই দাপট দেখানো শুরু ভারতীয় বোলারদের। প্রথম ওভারে ভুবনেশ্বর কুমারকে পরপর দু’টো চার মারলেও, কিছুক্ষণ পরেই ওই ওভারেই বোল্ড হয়ে ফিরে যান ওয়ার্নার। তিন নম্বরে নামা ম্যাক্সওয়েল ধুমধাড়াক্কা মারার চেষ্টা করছিলেন বলে, কিন্তু ব্যাটে-বলে করতে কালঘাম ছুটছিল তাঁর। যজুবেন্দ্র চাহ্বলের ‘লুজ’ বলে ফিল্ডারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান ‘ম্যাডম্যাক্স।’

অস্ট্রেলিয়ার এক মাত্র সোনালি দিক ফিঞ্চের ব্যাটিং। তাঁর তিরিশ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল চারটে চার এবং একটি ছয়ে। তবে ফিঞ্চের পর বলার মতো রান আর কেউ করতে পারেনি। অন্য দিকে পেসারদের পর ক্রমে জাঁকিয়ে বসেন স্পিনাররাও। অজি ইনিংসের উনিশতম ওভারে বিঘ্ন ঘটায় বৃষ্টি।

প্রায় ঘণ্টা দুয়েক খেলা বন্ধ থাকার পর, ম্যাচ যখন শুরু হয় তখন ভারতের টার্গেট কমে দাঁড়ায় ছ’ওভারে ৪৮। শুরুতে রোহিত শর্মার উইকেটটি হারালেও জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছোতে সমস্যায় পড়তে হয়নি ভারতকে। শেষ ওভারে জেতার টার্গেটে পৌঁছে যায় ভারত। এই নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ সাতটি ম্যাচের সাতটাতেই জিতল ভারত।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here