শ্রীলঙ্কাকে হেলায় হারিয়ে সিরিজ শুরু করল দ্রাবিড়ের ভারত

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অর্জুন রণতুঙ্গার অভিযোগ ছিল দ্বিতীয়সারির দল পাঠিয়ে শ্রীলঙ্কাকে অপমান করছে ভারত। কিন্তু রবিবার শ্রীলঙ্কার প্রথমসারির দলকে তথাকথিত ভারতের সেই ‘বি’ টিমই হেলায় হারিয়ে দিল।

সিনয়র দলের কোচ হিসেবে ভারতের কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের যাত্রাও অসাধারণ ভাবে শুরু হল।

Loading videos...

জীবনে প্রথম বার জাতীয় দলের জার্সি গায়ে অধিনায়কত্ব করতে নেমে দিনটা স্মরণীয় করে রাখলেন শিখর ধাওয়ান। দলকে জেতানোর পাশাপাশি ব্যাট হাতেও বড়ো অবদান রেখে গেলেন তিনি।

রবিবার প্রথম একদিনের ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং নিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কলম্বোর প্রেমদাসা স্টেডিয়াম বরাবরই স্পিনারদের সাহায্য করে। রবিবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

প্রথম দিকে পেসার দিয়ে বোলিং শুরু করালেও সাফল্য আসেনি। দশম ওভারে স্পিনার আনতেই ঘুরে যায় খেলা। প্রথম বলেই মারমুখী আবিষ্কা ফার্নান্ডোকে ফিরিয়ে দিলেন যুজবেন্দ্র চহাল। এর কিছুক্ষণ পরে জোড়া উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে আরও বিপদে ফেলে দিলেন কুলদীপ যাদব।

৪২ ওভার হয়ে গেলেও শ্রীলঙ্কার স্কোরবোর্ডে ২০০ ওঠেনি। তবু তারা আড়াইশোর গন্ডি পেরোল শেষ দিকে চামিকা করুণারত্নের ঝোড়ো ইনিংসের সৌজন্যে। শ্রীলঙ্কার দলটার যা অবস্থা হয়েছে, তাতে ভারতের বিরুদ্ধে ২৬২ রানটাও তাদের পক্ষে যথেষ্টই ছিল।

ব্যাট করতে নেমে এক সময় ভারতকে দেখে মনে হচ্ছিল তারা টি২০ ম্যাচ খেলতে নেমেছে। শুরু থেকেই মারমুখী মেজাজে ব্যাট করছিলেন পৃথ্বী শ। দুষ্মন্ত চামিরা, উদানা কারওকেই রেয়াত করেননি তিনি।

৪৩ রানে ফিরে যাওয়ার পর তাঁর জায়গায় নামা ঈশান কিশানও ঝড় তোলেন ব্যাটে। শুরু থেকে চার-ছক্কা দেখা যাচ্ছিল তাঁর ব্যাট থেকেও

উল্টোদিক থেকে পুরোটাই দেখছিলেন ধাওয়ান, নেতার মতোই। তরুণ এই ক্রিকেটারদের মনোভাবে বদল আনতে বলেননি তিনি। অর্ধশতরান করে ঈশান ফেরার পরেই দায়িত্ব তুলে নেন নিজের কাঁধে। উল্টোদিকে প্রথম মণীশ পান্ডে এবং পরে সূর্যকুমার যাদবকে নিয়ে ঠান্ডা মাথায় ম্যাচ বের করে নেন।

দুটি নজিরও হয়ে গেল তাঁর। দশম ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে একদিনের ক্রিকেটে ৬০০০ রানের গন্ডি পেরোলেন তিনি। ১৩ ওভার বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। ৮৬ রানে অপরাজিত থাকেন ধাওয়ান।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন