ভারত ১৯০-৬ (রোহিত ৬৪, কার্তিক ৪১ অপরাজিত, অ্যালিজারি ২-৪৬)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১২২-৮ (ব্রুক্স ২০, পুরান ১৮, অশ্বিন ২-২২)

তারাউবা: ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে অনায়াসে ৬৮ রানে জিতে সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল ভারত। টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে রোহিতের দল ২০ ওভারে ১৯০-৬ তোলে। জবাবে ১২২-৮ স্কোরেই থেমে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

একদিনের সিরিজে অনেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকেই বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু টি২০ সিরিজে একমাত্র বিরাট কোহলি বাদে ফিরে আসেন সকলেই। তবে অনেকেই মনে করেছিলেন ওপেনিংয়ে রোহিতের সঙ্গে পন্থকে দেখা যাবে। সবাইকে অবাক করে রোহিতের সঙ্গে সূর্যকুমারকে ওপেন করতে দেখা যায়।

নতুন ওপেনিং জুটি হলেও ভারতের শুরুটা খারাপ হয়নি। প্রথম চার ওভারে ৪০-এর কাছাকাছি রান উঠে যায়। ভারতকে প্রথম ঝটকা দেন আকিল হোসেন। সূর্যকুমারকে তুলে নেন তিনি। পরের ওভারেই ফেরেন শ্রেয়স আয়ার (০)। পন্থ নেমেছিলেন চারে। রোহিতের সঙ্গে জুটি গড়ছিলেন। তবে ১৪ রানের মাথায় ফিরে যান তিনিও। খারাপ শট খেলে হার্দিক পাণ্ড্য আউট হওয়ার সময় চাপে পড়ে গিয়েছিল ভারত। রোহিত অর্ধশতরান করেন। তিনি ফিরে যাওয়ায় চাপ আরও বাড়ে। মনে হচ্ছিল ভারতের রান দেড়শো পেরোবে না

ফিনিশিংয়ে ফের অসাধারণ খেললেন দীনেশ কার্তিক। অশ্বিনের সঙ্গে সপ্তম উইকেটে জুটি বেঁধে তুললেন ৬২ রান। চারটি চার এবং দু’টি ছয়ের সাহায্যে ১৯ বলে ৪১ রানে অপরাজিত থাকলেন কার্তিক। ১০ বলে ১৩ করলেন অশ্বিন। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে চাপে ফেলার জন্য ১৯০ রান যথেষ্ট ছিল

১৯১ রান তাড়া করতে নেমে প্রথম থেকেই নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারানো শুরু হয় উইন্ডিজদের। কোনো সময়েই দেখে মনে হয়নি ভারতের এই রান তাড়া করে জিততে পারে তারা। ধুমধাড়াক্কা শট মেরে কাইল মেয়ার্স শুরুটা ভালো করলেও অর্শদীপের ওভারে ফিরে যান।

পরের ওভারে রবীন্দ্র জাডেজাকে উইকেট ছেড়ে খেলতে গিয়ে বোল্ড জেসন হোল্ডার। এর পর পুরান (১৮), পাওয়েল (১৪), হেটমায়ার (১৪) শুরুটা ভাল করলেও ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেননি। ধরে খেলার মতো কেউ ছিলেন না এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে।

বড়ো ব্যবধানে হেরে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল ভারত।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন