K L Rahul and Rohit Sharma
ভারতের জয়ের দুই কান্ডারি কে এল রাহুল ও রোহিত শর্মা। ছবি সৌজন্যে ICC Twitter।

নিউজিল্যান্ড: ১৫৩-৬ (ফিলিপস ৩৪, গাপটিল ৩১, মিচেল ৩১, হর্শল পটেল ২-২৫)

ভারত: ১৫৫-৩ (কে এল রাহুল ৬৫, রোহিত ৫৫, সাউদি ৩-১৬)

রাঁচি: দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে সহজেই হারিয়ে তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ পকেটে পুরে নিল রোহিতবাহিনী। আপাতত তারা ২-০ ম্যাচে এগিয়ে রইল।

শুক্রবার রাঁচির জেএসসিএ স্টেডিয়ামে আয়োজিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক টি২০ ম্যাচে ভারত ৭ উইকেটে হারাল কিউয়িদের। অধিনায়ক-সুলভ দক্ষতায় তিনি যে বিরাট কোহলির তুলনায় বেশ এগিয়ে তা আরেক বার প্রমাণ করলেন রোহিত শর্মা। আর হেড কোচ হিসাবে রাহুল দ্রাবিড়ও তাঁর যোগ্যতা বারবার প্রমাণ করছেন।   

ভারতের এই জয়ের পিছনে সব চেয়ে বড়ো অবদান কে এল রাহুল এবং অধিনায়ক রোহিত শর্মার। প্রথম উইকেটের জুটিতে তাঁরা অবিচ্ছেদ্য থেকে ১৩.২ ওভারে তুলে দেন ১১৭ রান। ফলে ভারতের জয় অনেকটাই সহজ হয়ে যায়।

প্রথম ব্যাট সাউদিবাহিনীর

টসে জিতে রোহিত ব্যাট করতে পাঠান টিম সাউদির বাহিনীকে। শুরুটা কিন্তু মন্দ করেনি কিউয়িরা। ঝড়ের গতিতে রান তুলতে থাকেন মার্টিন গাপটিল এবং ড্যারিল মিচেল। মাত্র ৪.২ ওভারে ৪৮ রান তুলে ভারতকে কিছুটা চিন্তান্বিত করে ফেলে সাউদিবাহিনী। কিন্তু মাত্র ১৫ বলে ৩১ রান করে গাপটিল চহরের বলে পন্থের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যেতেই কিউয়িরা কিছুটা চাপে পড়ে যায়।

মিচেল এবং চ্যাপম্যান কিছুটা চেষ্টা করলেও নিয়মিত ব্যবধানে উইকেটের পতন ঠেকাতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত সাউদিবাহিনী নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৩ রান তোলে। ভারতীয় বোলাররা প্রতিপক্ষের উইকেটগুলি ভাগ করে নেন। তবে তারই মধ্যে উইকেট নেওয়ার ব্যাপারে বেশি সফল হর্শল পটেল। তিনি ২৫ রানে ২ উইকেট নেন।

রোহিতবাহিনীর জবাব  

জয়ের জন্য ১৫৪ রানের লক্ষ্যমাত্রা সামনে রেখে ভারত খেলতে নামে। স্বচ্ছন্দে খেলতে থাকেন দুই ওপেনার কে এল রাহুল এবং রোহিত শর্মা। লক্ষ্যমাত্রা খুব বেশি না থাকায় তাঁরা ঠান্ডা মাথায় খেলতে থাকেন। নিজের ৬৫ রান ও দলের ১১৭ রানের মাথায় রাহুল আউট হওয়ার পর মাত্র ২০ রানে ভারতের আরও দু’টি উইকেট চলে যায়। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ৩টি উইকেটই দখল করেন অধিনায়ক টিম সাউদি। মাত্র ১৬ রানে তিনি ভারতের ৩টি উইকেট তুলে নেন।

দলের ১৩৭ রানে যখন সূর্য কুমার যাদব আউট হন তখন ভারতের হাতে ৪ ওভার, করতে হবে ১৭ রান। টার্গেট খুব একটা কঠিন ছিল না। সেই টার্গেটকে আরও সহজ করে দেন ঋষভ পন্থ পর পর দু’টো ছয় মেরে। ২.৪ ওভার বাকি থাকতে ৩ উইকেট  হারিয়ে ভারত লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে যায়।

আরও পড়তে পারেন

অভিষেক ম্যাচে দুরন্ত বুমৌস, কেরলকে দুরমুশ করে এটিকে মোহনবাগানের আইসিএল অভিযান শুরু

‘ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য নিবেদিতপ্রাণ’ ভিভিএস লক্ষ্মণকে এনসিএ ডিরেক্টর হিসাবে স্বাগত জানালেন সৌরভ গাঙ্গুলি

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন