ট্রফি থেকে আর ৩৭ ওভার দূরে ভারত

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: চমৎকার খেলছিলেন শুভমন গিল (Shubman Gill)। কিন্তু ৯১ রানে শেষ হয়ে গেল তাঁর ইনিংস। মাঝে অজিঙ্ক রাহানের উইকেটটিও খোয়াল ভারত। তবুও ভারত এখনও যথেষ্ট স্বস্তিদায়ক জায়গাতেই রয়েছে বলা যায়। চা বিরতিতে মাত্র তিন উইকেট পড়েছে তাদের। আর ৩৭ ওভার সামলে নিলেই বর্ডার-গাওস্কর ট্রফি ভারতের।

এ দিন প্রথম সেশনে অত্যন্ত ধীরগতির ইনিংস খেলেছিলেন চেতেশ্বর পুজারা। ৯০ বলে করেছিলেন মাত্র ৮। কিন্তু মধ্যাহ্নভোজনের পর খেলা শুরু হতেই কিছুটা যেন গিয়ার বদল করেন তিনি। অন্য দিকে শুভমন আরও বেশি করে আগ্রাসী হয়ে ওঠেন।

কোনো ভাবেই গিল আর পুজারাকে টলাতে পারছিলেন না অজি বোলাররা। দু’ জনের ব্যাটিংয়ের ধরন দেখে মনে হচ্ছিল ভারত সরাসরি জয়ের জন্যই ঝাঁপাচ্ছে। শুভমন আরও একটা ছক্কা হাঁকান এই সেশনে। যখন মনে হচ্ছিল অভিষেক সিরিজেই শতরান করে ফেলবেন তিনি, তখনই দলকে ঝটকা দেন নাথান লিঁয়। তাঁর বলকে স্লিপে খোঁচা দিয়ে স্টিভ স্মিথের তালুবন্দি হন শুভমন।

চার নম্বরে নেমে অজিঙ্ক রাহানে কিন্তু আরও বেশি আগ্রাসী হয়ে গিয়েছিলেন। তাঁর ২৪ রান আসে ২২ বলে। অর্থাৎ স্ট্রাইক রেট ১০০-এর ওপরে ছিল। তবে প্যাট কামিন্সের বল পরাস্ত করে রাহানেকে।

এ দিকে পুজারা এই দ্বিতীয় সেশনে ৭৮ বলে ৩৫ রান করেছেন। অর্থাৎ তিনিও যে আগ্রাসী হচ্ছেন তা দেখাই যাচ্ছে। চা বিরতিতে এখনও পুজারা ছাড়াও ক্রিজে রয়েছেন ঋষভ পন্থ। এমনিতে ট্রফি জেতার জন্য ভারতকে ম্যাচটা ড্র করলেই চলবে, কিন্তু দ্বিতীয় সেশনে যে ভাবে আগ্রাসী ব্যাটিং হয়েছে, তাতে ৩২৮ রানটা যে ভারত সফল ভাবে তাড়া করবে না, সেটাই বা কে বলতে পারে!

তবে অজি বোলারদেরও কোনো রকম হালকা ভাবে নিলে চলবে না। তারাও যখনতখন জ্বলে উঠতেই পারে। ফলে পরবর্তী ৩৭ ওভার যে ভারত এবং অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটের মোড় ঘুরিয়ে দিতে চলেছে, তা বলাই বাহুল্য।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন