ইংল্যান্ডকে স্পিনের জালে জড়িয়েও শুভমনের উইকেটে অস্বস্তিতে ভারত

0

ইংল্যান্ড ২০৫ (স্টোক্স ৫৫, লরেন্স ৪৬, অক্ষর ৪-৬৮)

ভারত ২৪-১ (পুজারা ১৫ অপরাজিত, অ্যান্ডারসন ১-০)

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আচমকা খারাপ ফর্মের কবলে পড়েছেন শুভমন গিল। চলতি সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট থেকেই ব্যাটে রান নেই তাঁর। এ হেন গিলের পা যখন ইনিংসের প্রথম ওভারেই উইকেটের সামনে পেয়ে গেলেন জেমস অ্যান্ডারসন, তখন তাঁদের উচ্ছ্বাস বাধানহীন। কারণ, ইংল্যান্ড জানে যে রানটা তারা প্রথম ইনিংসে করেছে, সেটা ভারতের পক্ষের পেরিয়ে যাওয়া কঠিন হতে পারে যদি ভালো বোলিং করা যায়।

সিরিজের তৃতীয় টেস্ট তথা প্রথম অমদাবাদ টেস্টের পিচ নিয়ে যত কম বলা যায় ততোই ভালো। ক্রিকেট খেলার যোগ্যই ছিল না ওই পিচ। চূড়ান্ত প্রস্তুতহীন পিচে ইংল্যান্ড তো বটেই, ভারতের ব্যাটিংও ভেঙে পড়েছিল। তবে চতুর্থ টেস্টে এসে পিচের চরিত্র কিছুটা বদলেছে। বৃহস্পতিবার ম্যাচের প্রথম ঘণ্টায় স্পিনারদের পাশাপাশি সুবিধা পাচ্ছিলেন পেসাররাও। আবার ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরাও সুবিধা পাচ্ছিলেন সেট হয়ে যাওয়ার পর।

চেন্নাইয়ের সেই দ্বিশতরানের পর ফর্ম হারিয়েছেন জো রুট। এ দিনও তা বহাল ছিল। তবে এ বার স্পিনার নন, তাঁর উইকেটটি তোলেন সিরাজ। সিরিজে কম সুযোগ পেয়েছেন সিরাজ। কিন্তু যখনই সুযোগ পেয়েছেন তা সদ্ববহার করেছেন। এ দিন, রুট ছাড়াও জনি বেয়ারস্টোর উইকেটটি পেয়েছেন সিরাজ। তবে ইনিংসের হিরো ফের অক্ষর পটেল।

অভিষেক হওয়ার পর থেকেই যথেষ্ট প্রভাব ফেলে চলেছেন অক্ষর। চারটে ইনিংসের মধ্যে তিন বারই পাঁচ বা তার অধিক উইকেট নিয়েছেন তিনি। সেই অক্ষরই এ দিন শুরু থেকে একের পর এক উইকেট তুলতে থাকেন। বেশ কিছুক্ষণ পর অবশ্য উইকেট তোলার তালিকায় নাম যোগ হয় অশ্বিন। মাঝখান থেকে একটি উইকেট নিয়ে নিজের উপস্থিতি জানান দিয়ে যান ওয়াশিংটন সুন্দরও।

তবে ভারতীয় বোলারদের এই দাপট সামলেও এ দিন ভালো ব্যাটিং প্রদর্শন করেন বেন স্টক্স এবং ড্যান লরেন্স। দু’জনকে স্পিনারদের সামনে খুব একটা পরাস্থ হতে দেখা যায়নি, যদিও দু’জনের উইকেটই তুলেছেন স্পিনাররা। ঝকঝকে একটি অর্ধশতরান করে যান স্টোক্স। অন্যদিকে লোয়ার অর্ডারকে সঙ্গে নিয়ে পঞ্চাশের কাছাকাছি রান করেন লরেন্স।

এই দু’জনের জন্যই সিরিজে এই নিয়ে দ্বিতীয় বার দুশো পেরিয়ে যায় ইংল্যান্ড। প্রথম বার তারা পেরিয়েছিল চেন্নাইয়ের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে।

ইংল্যান্ডের খাড়া করা ২০৫ করতে গিয়ে প্রথমেই ধাক্কা খায় ভারত। ড্রেসিং রুমের পথ দেখেন শুভমন গিল। এর পর মোটামুটি দশটা ওভার ব্যাট করে ভারতের কোনো উইকেট পড়েনি ঠিকই। কিন্তু ব্যাটিংয়ে একটা অস্বস্তি ধরা পড়ছে। শুক্রবার ভারতের লক্ষ্য হবে যে করেই হোক ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের রানটা পেরিয়ে যাওয়ার।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ছ’বলে ছয় ছক্কা, গিবস, যুবরাজের রেকর্ড স্পর্শ করলেন কায়রন পোলার্ড

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন