ওয়েবডেস্ক: লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশকে ফাইনালে হারিয়ে পঞ্চমবারের জন্য অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে সেরার তকমা ছিনিয়ে নেওয়া। কিন্তু রবিবাসরীয় ফাইনাল ম্যাচে ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়ে সেই স্বপ্ন যেমন অধরা রয়ে গেল। অন্য দিকে ফাইনাল ম্যাচে জিতে ইতিহাস রচনা করল বাংলাদেশ।

এর আগে ২০০০, ২০০৮, ২০১২ ও ২০১৮ সালের অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। এ দিনও তার যথেষ্ট সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু টাইগার-দের বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারেননি ভারতের ব্যাটসম্যানরা। মাত্র ১১৭ রানেই গুটিয়ে যায় ভারতের ইনিংস। এর মধ্যে সর্বোচ্চ রান করেন যশস্বী আগরওয়াল করেন ৮৮ রান। এর আগে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে চারবার অর্ধশতক করেছিলেন তিনি। এ দিনও তাঁর ব্যাট অর্ধশতকের গণ্ডি পার করে।

Loading videos...

উল্লেখ্যনীয় বিষয়, প্রথম দুই ওভারে ভারতের দুই ওপেনার যশস্বী এবং দিব্যাংশ সাক্সেনা স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ করতে পারেননি। অন্য দিকে শেষ ১৪ রানে ভারত পাঁচটি উইকেট খুইয়ে বসে। সব মিলিয়ে ৪৭.২ ওভারে ১৭৭ রানেই ভারতের ইনিংসে যবনিকা পড়ে।

১৭৮ রানের লক্ষ্য সামনে নিয়ে মোটের উপর ভালোই শুরু করে বাংলাদেশ। ক্রিজ শক্ত করে দেন দুই ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমন এবং তানজিদ হাসান। কিন্তু ভারতীয় পেসার বৈষ্ণোই পরপর চারটি উইকেট তুলে নেওয়ার পর সংকটের মুখে বাংলাদেশ।

যদিও শেষমেশ ৭ উইকেট হারিয়ে জয় ছিনিয়ে নিয়ে ইতিহাস গড়ে ফেলল বাংলাদেশ। ৪১ ওভারের মাথায় বৃষ্টির কারণে সাময়িক ভাবে বন্ধ হয় ম্যাচ। বাংলাদেশের রান তখন ৭ উইকেটে ১৬৩। পরে ডার্ক ওয়ার্থ লুইস নিয়মে তাদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৭০। ৪২ ওভার এবং একটি বলেই প্রয়োজনীয় রান সংগ্রহ করে নেয় বাংলাদেশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.