সাউথ আফ্রিকাকে ধরাশায়ী করে ইতিহাস গড়ল টিম ইন্ডিয়া

0
team India

ভারত: ৬০১/৫ ডিক্লেয়ার্ড (মায়াঙ্ক-১০৮, কোহলি-২৫৪*, জাদেজা- ৯১)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২৭৫ (মহারাজ ৭২, ডু প্লেসি ৬৪, অশ্বিন ৪-৬৯, উমেশ ৩-২৭), ১৮৯ (এলগার ৪৮, বাভুমা ৩৮, উমেশ ৩-২২, জাদেজা ৩-৫২)

ভারত ইনিংস-সহ ১৩৭ রানে জয়ী

পুনে: ১৩৭ রানের ব্যবধানে প্রোটিয়াদের ধরাশায়ী করে তিন টেস্টের সিরিজ জিতে নিল ভারত। রবিবার পুনের দ্বিতীয় টেস্টে জয়ের ফলে সিরিজে ২-০ ব্যবধান গড়ে দিল টিম ইন্ডিয়া। একই সঙ্গে ঘরের মাঠে টানা ১১টি সিরিজ জিতে ঐতিহাস রচনা করল বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোং।

এ দিন সিরিজ জয় নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি অধিনায়ক কোহলির মুকুটে যুক্ত হল আরও একটি পালক। অধিনায়ক হিসাবে সব থেকে বেশি টেস্ট সিরিজ জয়ের রেকর্ড গড়লেন তিনি। এর আগে মহেন্দ্র সিং ধোনি ১২টি এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ৯টি সিরিজ জয় করেছিলেন। কোহলির ঝুলিতে এ দিনই চলে এল ১৩টি সিরিজ।

গত শনিবার তৃতীয় দিনের শেষে ২৭৫ রানেই গু‌টিয়ে যায় সাউথ আফ্রিকা। ভারতের প্রথম ইনিংসে ৬০১ (ডিক্লেয়ার) রানের পাহাড় টপকানো তো দূরূহ, প্রথম শেষে ৩২৬ রানে পিছিয়ে থাকেন প্রোটিয়ারা। স্বাভাবিক ভাবেই ফলোঅনের মুখে পড়ে চতুর্থ দিনে ব্যাট করতে নেমে ব্যাপক চাপের মুখে পড়েন তাঁরা। মাত্র ৬৭.২ ওভার ক্রিজে থাকার পর ১৮৯ রানেই বান্ডিল হয়ে যায় সাউথ আফ্রিকা।

উল্লেখযোগ্য ভাবে, এ দিন ব্যাট হাতে সাউথ আফ্রিকার কোনো ক্রিকেটারই ৫০-এর গণ্ডি টপকাতে পারেননি। সর্বোচ্চ রানের মালিক ডিন এলগার, তিনি কোনো মতেই ৪৮ রানে পৌঁছেই রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে উমেশ যাদবের হাতে বন্দি হন।

অন্য দিকে প্রথম ইনিংসে দলকে কিছুটা হলেও অক্সিজেন জোগানো ভার্নন ফিল্যান্ডার এবং কেশব মহারাজ ক্রিজে নামা অবধি স্নায়ুচাপের ভুগতে শুরু করেন। যার স্পষ্ট প্রভাব দেখা যায় তাঁদের শারীরিক ছন্দের গরমিলে। এ দিন ফিল্যান্ডার ৩৭ এবং মহারাজ ২২ রানে খাতা বন্ধ করে দেন।

[ আরও পড়ুন: ফলোঅন না কি আবার ব্যাট করতে নামবে বিরাট-বাহিনী? ]

এ দিনের বাড়তি পাওনা ফাফ ডু প্লেসির ক্যাচ। অশ্বিনের বলে অনবদ্য ভঙ্গিমায় ভারতীয় উইকেট রক্ষক ঋদ্ধিমান সাহার দুর্দান্ত ক্যাচ মাত্র ৫ রানেই ফেরত পাঠায় তারকা ক্রিকেটারকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.