cc

ওয়েবডেস্ক: টি২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যায় ভারত। তবে ছিটকে যাওয়ার থেকে অন্য এক কারণে রীতিমতো শিরোনাম হয় এই খবর। কারণ সেমিতে দল থেকে বাদ দেওয়া হয় তারকা খেলোয়াড় মিতালি রাজকে। যার জন্য দলের কোচ রমেশ পওয়ারকে নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন মিতালি। রীতিমতো বাগবিতণ্ডা হয়।

আরও পড়ুন: এই তারকা খেলোয়াড় কি পাকা ম্যানইউ-তে?

এরই মাঝে ৩০ নভেম্বর কোচ হিসাবে রমেশ পওয়ারের চুক্তি শেষ হয়ে যায়। নতুন কোচের জন্য মনোনয়ন চায় বিসিসিআই। তবে প্রশাসনিক কমিটির প্রধান বিনোদ রাই জানান, টি২০ অধিনায়ক হরমনপ্রীত কৌর এবং স্মৃতি মনধনা পওয়ারকেই কোচ হিসাবে চাইছেন ২০২১ পর্যন্ত। তিনি জানান, “হ্যাঁ ওরা একটা চিঠি লিখে জানিয়েছে রমেশ পওয়ারকেই ওরা কোচ হিসাবে চায়”।

তবে হরমনপ্রীত এবং স্মৃতি কোচ হিসাবে পওয়ারকে চাইলেও একতা বিস্ত এবং মানসী জোশি চাইছেন না পওয়ারকে। সঙ্গে রয়েছেন একদিনের অধিনায়ক মিতালি রাজও।

এই বিষয়ে হরমনপ্রীত কৌর জানান, “আমি টি২০ অধিনায়ক এবং একদিনের সহ-অধিনায়ক হিসাবে আপানাদের কাছে আবেদন করছি রমেশ পওয়ারকে কোচ হিসাবে পুনরায় নিযুক্ত করতে। আর হয়তো মাত্র ১৫ মাস আছে আগামী টি২০ বিশ্বকাপের জন্য। এবং নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য আর মাত্র এক মাস আছে। যে ভাবে উনি আমাদের দল হিসাবে তৈরি করেছেন তাতে আমি ওঁর পরিবর্ত হিসাবে কাউকে দেখতে পাচ্ছি না। বিশ্বকাপ সেমিতে হেরে যাওয়াটা খুবই বেদনাদায়ক এবং তার পর এই বিতর্ক আমাদের মানসিক ভাবে আরও পিছিয়ে দিয়েছে। স্যার রমেশ পওয়ার আমাদের শুধু খেলোয়াড় হিসাবে তৈরি করেননি, আমাদের চ্যালেঞ্জ এবং টার্গেটগুলো সম্বন্ধেও অনুপ্রাণিত করেছেন। উনি ভারতী মহিলা ক্রিকেট দলের চেহারাটাই বদলে দিয়েছেন টেকনিক্যাল এবং কৌশলের দিক দিয়েও। আমাদের মধ্যে জয়ের খিদেটা উনি এনেছেন।”

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here