আইপিএল থেকে নির্বাসিত হতে পারে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব?

জাপানে ছুটি কাটানোর সময়, উত্তরের দ্বীপ হোকাইডোর নিউ চিতোস বিমানবন্দরে গ্রেফতার করা হয় ওয়াডিয়াকে

0
punjab

ওয়েবডেস্ক: ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ডের জেরে আইপিএলে সাময়িক নির্বাসিত হয়েছিল চেন্নাই সুপার কিংস। এবার কি সেই তালিকায় জুড়তে চলেছে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের নাম? এমনই কিন্তু খবর পাওয়া যাচ্ছে। কারণ পঞ্জাব দলের অন্যতম মালিক নেস ওয়াডিয়া।

জাপানে ছুটি কাটানোর সময়, উত্তরের দ্বীপ হোকাইডোর নিউ চিতোস বিমানবন্দরে গ্রেফতার করা হয় ওয়াডিয়াকে। কারণ তাঁর কাছ থেকে ‘ক্যানাবিস রেসিন’ নামক নিষিদ্ধ মাদক পাওয়া গিয়েছিল। প্রথমে তাঁকে জাপানের সাপোরো কোর্ট দু’বছরের জন্য জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। পরবর্তীকালে তা বেড়ে পাঁচ বছর হয়। তবে ওয়াডিয়া জানান, সেই মাদক শুধুমাত্র তাঁর ব্যক্তিগত কাজের জন্য তাঁর সঙ্গে ছিল।

আরও পড়ুন: ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নিয়ে চমকপ্রদ ভবিষ্যদ্বাণী করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

যার ফলে আইপিএলে ভুগতে হতে পারে তাঁর দল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবকে। আইপিএলের নিয়ম অনুযায়ী, কোনো দলের কোনো কর্মকর্তা এমন কোনো কাজ করতে পারবেন না বা নিজেকে জড়াতে পারবেন না যা তাঁর দলের, লিগের বা কিংবা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের ক্ষতি করতে পারে। মাঠে হোক কিংবা মাঠের বাইরে। যদি সেই ব্যক্তি দোষী সাব্যস্ত হন, তাহলে দলকে লিগ থেকে সাসপেন্ড করা হতে পারে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে বিসিসিআইয়ের এক কর্তা জানান, “পঞ্জাব খুব বড়ো বিপদে জড়িয়ে গিয়েছে। খুব কম শাস্তি হলেও তাদের সাসপেন্ড হওয়ার সম্ভাবনা আছে। আর খারাপ হলে লিগ থেকেই নির্বাসিত হতে পারে ওরা কারণ, ওদের মালিক ফৌজদারি মামালায় যুক্ত। চেন্নাইকেও একই কারণে নির্বাসিত করা হয়েছিল, কারণ তাদের মালিক বেটিংয়ে যুক্ত ছিল। যদি উনি (ওয়াডিয়া) রাজ্যস্তরের কোনো ক্রিকেট অফিশিয়াল হতেন তাহলে নিজের থেকেই তাঁকে সরে যেতে হত”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.