ওয়েবডেস্ক: ভারতীয় দলে কি জায়গা হারাতে চলেছেন ঋষভ পন্থ? অধিনায়ক বিরাট কোহলির ইঙ্গিত কিন্তু তেমনই।

রবিবার ম্যাচ শেষে বিরাট কোনো রাখঢাক না রেখেই বলে দিয়েছেন দলে আপাতত আর কোনো পরিবর্তন তিনি করতে চান না। ফলে কেএল রাহুলকেই এখন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দীর্ঘমেয়াদি উইকেটকিপার ভাবছে ভারত।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিরাট বলেন, “এর জন্য (উইকেটকিপিংয়ে রাহুল) আমরা অতিরিক্ত একজন ব্যাটসম্যান খেলাতে পারি, ফলে আমাদের ব্যাটিং আরও শক্তিশালী হবে।”

বিরাটের এই মন্তব্যের সঙ্গে ২০০২-এ সৌরভের করা একটি মন্তব্যের হুবহু মিল পাওয়া যাচ্ছে।

সে বার সৌরভ বলেছিলেন, ভারতীয় দলের ব্যাটিংকে আরও শক্তিশালী করার জন্য রাহুল দ্রাবিড়কে উইকেটকিপার করা প্রয়োজন। তার পর বাকিটা তো ইতিহাস!

বিরাটও কিন্তু সেই উদাহরণ টেনে এনেছেন, “২০০৩ বিশ্বকাপের কথা যদি ভাবেন, যেখানে রাহুলভাই উইকেটকিপিং করেছিলেন, গোটা দলের ভারসাম্যটাই বদলে গিয়েছিল আর ব্যাটিং আরও অনেক শক্তিশালী হয়েছিল।”

যখন উইকেটকিপারের দায়িত্ব পালন করতেন দ্রাবিড়।

এর পরেই বিরাট যোগ করেন, “আপনি সব সময়ে আপনার দলে রদবদল করে যেতে পারেন না। আর এই মুহূর্তে দলে অন্য কোনো বদলের প্রয়োজন রয়েছে বলেও মনে করছি না।”

আরও পড়ুন ধোনির ভবিষ্যৎ নিয়ে বড়ো ঘোষণা প্রাক্তন বোর্ড সভাপতির, স্বস্তিতে ভক্তরা

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সদ্যসমাপ্ত সিরিজে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে যথেষ্ট সাবলীলতার সঙ্গেই কিপিং করেছেন রাহুল।

প্রথম একদিনের ম্যাচে চোট পেয়ে ছিটকে গেলেও তৃতীয় ম্যাচের আগেই সুস্থ হয়ে গিয়েছিলেন পন্থ। কিন্তু তাঁর বদলে অতিরিক্ত ব্যাটসম্যানকে খেলিয়ে রাহুলের ওপরেই উইকেটকিপারের দায়িত্ব তুলে দেয় টিম ম্যানেজমেন্ট।

প্রথম থেকেই পন্থের ব্যাটিংয়ের ধারাবাহিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। একটা ম্যাচে তিনি রান পেলে পরের পর ম্যাচ তিনি ব্যর্থ হচ্ছেন। আবার কখনও উইকেটে সেট হয়ে গেলেও বাজে শট খেলে আউট হয়ে যাচ্ছেন।

রাহুল যদি উইকেটের পেছনে জায়গাটা নিজের নামে লিখিয়ে ফেলেন তা হলে ভারতীয় দলে পন্থের জন্য দরজা বন্ধ হয়ে যাওয়া শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন