Connect with us

ক্রিকেট

জন্মদিনের দিন দেখে নেওয়া যাক অধিনায়ক সৌরভের পাঁচটি কালজয়ী সিদ্ধান্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ৪৮-এ পড়লেন বিসিসিআই (BCCI) সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। এক দিনের ক্রিকেটে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান সৌরভ, ওপেনিংকে অন্যতম মাত্রা এনে দিয়েছেন।

একই সঙ্গে ভারতের অন্যতম সফল অধিনায়কও বটে। তবে যে পরিস্থিতিতে তিনি ভারতীয় দলের হাল ধরেছিলেন, তাতে তিনি যে ধোনি বা কোহলির থেকেও সেরা অধিনায়ক, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এক বার দেখা নিই অধিনায়ক সৌরভের এমন পাঁচটি সিদ্ধান্ত যা কালজয়ী হয়ে উঠেছে।

১) ২০০১-এর কলকাতা টেস্টে ভিভিএস লক্ষ্মণকে ৩ নম্বরে পাঠানো

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেই বিখ্যাত ইডেন টেস্টে ফলো-অন করতে হয় ভারতকে। প্রথম ইনিংসে ভারত মাত্র ১৭১ অল আউট হয়ে গেলেও শুধুমাত্র ভিভিএস লক্ষ্মণই (VVS Laxman) অস্ট্রেলীয় বোলারদের সামনে সাবলীল ছিলেন।

সে কারণে, দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রাবিড়ের বদলে লক্ষ্মণকে তিন নম্বরে ব্যাট করতে পাঠায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এই সিদ্ধান্তটাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। ছয় নম্বরে নামা দ্রাবিড়কে সঙ্গে নিয়ে টেস্টে চতুর্থ দিন পুরো ব্যাট করে যান লক্ষ্মণ। ২৮১ রানের ঐতিহাসিক একটি ইনিংস খেলে ফেলেন তিনি।

এর ফলে নাটকীয় জয় পায় ভারত। বিশ্বের তৃতীয় দল হিসেবে ফলোঅন করার পর টেস্ট ম্যাচ জেতে ভারত। এর পর চেন্নাইয়ে তৃতীয় টেস্ট জিতে সিরিজ ২-১-এ জিতে নেয় সৌরভের ভারত। সিরিজটা ভারতীয় ক্রিকেটের পুরো ভাবমূর্তিই বদলে দেয়।

ইডেনে ফলোঅন করে ভারতের অত্যাশ্চর্য জয় ক্রিকেট-বিশ্বে রীতিমতো আলোড়ন তৈরি করেছিল। তার রেশ এখনও আছে। এখনও প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত ভাবে এগিয়ে থাকা দল প্রতিপক্ষকে ফলোঅন করাতে দু’ বার চিন্তা করে।

২) সহবাগকে দিয়ে ওপেন করানো

শুরু থেকেই মিডিল অর্ডার ব্যাটসম্যান ছিলেন বীরেন্দ্র সহবাগ (Virender Sehwag)। ২০০১-এ সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেকেও ছয় নম্বরে নেমে দুর্ধর্ষ শতরান করেছিলেন তিনি। এক দিনের ক্রিকেটেও পাঁচ বা ছয় নম্বরে নামতেন সহবাগ। এ হেন সহবাগের মধ্যেই অন্য কিছু ব্যাপার খুঁজে পেলেন সৌরভ। বুঝতে পারলেন সহবাগকে দিয়ে ওপেন করালে আরও ভালো ফল পেতে পারে ভারত।

সহবাগকে ওপেনিংয়ে পাঠানোর সেই সিদ্ধান্তটা জে কালজয়ী ছিল, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। টেস্ট ওপেনিংয়ের নতুন সংজ্ঞা দিলেন তিনি। ৫০-এর ওপরে গড় আর দু’টি ত্রিশতরান করে ভারতের অন্যতম সফল ওপেনারদের মধ্যে একজন হয়ে যান সহবাগ।

৩) দ্রাবিড়কে উইকেটকিপার করা

কোচ জন রাইটের সমর্থনে সৌরভের আরও একটি মাস্টারস্ট্রোকীয় চাল। রাহুল দ্রাবিড়কে (Rahul Dravid) এক দিনের দলে উইকেটকিপার করে আনা। দ্রাবিড়ের ব্যাটিং ফর্ম কিছুটা খারাপ হয়ে গিয়েছিল বলে ২০০২-এর গোড়ায় এক দিনের দল থেকে বাদ পড়েছিলেন।

কিন্তু সৌরভ বুঝতে পারেন, দ্রাবিড়ের মতো ব্যাটসম্যানকে এক দিনের দলের বাইরে রাখা উচিত নয়। এর ফলে এক ঢিলে দুই পাখি মরল। ভারতীয় দলে বাড়তি ব্যাটসম্যানও এল, আর উইকেটে পেছনে মোটামুটি নির্ভরযোগ্য একজনকে পাওয়াও গেল।

উইকেটকিপার হিসেবে দ্রাবিড় কতটা দক্ষ ছিলেন, সেটা তো ২০০৩ বিশ্বকাপেই দেখেছি আমরা। সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ সময়েও ব্যাট হাতেও বিশাল ভূমিকা পালন করেছেন তিনি।

৪) ধোনিকে তিন নম্বরে পাঠানো

২০০৪-এর শেষ দিকে বাংলাদেশে অভিষেক হয় মহেন্দ্র সিংহ ধোনির (MS Dhoni)। তিনটে ম্যাচে আহামরি রান পাননি। ধোনিকে সাত নম্বরে পাঠিয়ে তাঁর ব্যাটিং প্রতিভাকে পুরোপুরি নষ্ট করা হচ্ছে, সেটা বুঝেছিলেন সৌরভ। সে কারণেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশাখাপত্তনমে তিন নম্বরে পাঠান ধোনিকে।

ওই ম্যাচেই ধোনি জানান দিয়ে যান তিনি কী! ১৪৮ রানের একটা ইনিংস খেলেন ধোনি। তার পর আর ধোনিকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

৫) তরুণদের তুলে আনা

সহবাগ, যুবরাজ, হরভজন, জাহির খান আর ধোনি – সৌরভের অধিনায়কত্বে উঠে এসেছেন সবাই। ২০০০ সালে গড়াপেটার জাল থেকে ভারতীয় দলকে বের করে আনার পেছনে সৌরভের অন্যতম কারিগর ছিলেন এই তরুণরা।

বিদেশের মাঠে অন্যতম সফল টেস্ট অধিনায়ক সৌরভ। ২৮ টেস্টে ১১টা জয় পেয়ে রয়েছেন বিরাট কোহলির পরেই। সৌরভের এই সাফল্যের পেছনে তরুণদের অবদান যে অনস্বীকার্য তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

ক্রিকেট

আইপিএলের নিয়মাবলি: গুচ্ছের টেস্টিং, চলা-ফেরায় নিয়ন্ত্রণ, একটি দলের জন্য একটি হোটেল

খসড়া এসওপি ফ্রাঞ্চাইসিগুলোকে পাঠিয়েছে বিসিসিআই।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গুচ্ছের কোভিড টেস্ট, চলা-ফেরায় নিয়ন্ত্রণ এবং আটটা দলের আটটা আলাদা হোটেল। নির্দেশনামার (স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রোটোকল তথা এসওপি) যে খসড়া ফ্রাঞ্চাইসিগুলোকে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল পাঠিয়েছে, তাতে এই নিয়মাবলির কথা বলা হয়েছে।

২০ আগস্টের আগে কেউ আমিরশাহিতে যেতে পারবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই। নির্দেশনামায় বিসিসিআই কী বলেছে, একবার দেখে নেওয়া যাক।

টেস্টিংয়ের নিয়মকানুন

বিসিসিআই সূত্রে খবর, সমস্ত ভারতীয় খেলোয়াড় এবং সাপোর্ট স্টাফকে ভারতে নিজ নিজ দলগুলির সঙ্গে যোগ দেওয়ার আগে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে দু’টো কোভিড টেস্ট করাতে হবে।

টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তবেই আমিরশাহির বিমান ধরতে পারবেন সবাই। তবে যদি কারও রিপোর্ট পজিটিভ আসে তা হলে তাঁকে ১৪ দিনের কোয়ারান্টাইনে চলে যেতে হবে৷

১৪ দিন পর তাঁকে ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে দু’ বার কোভিডের আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে। সেই রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তবে সেই ব্যক্তি আইপিএলে যোগ দেওয়ার জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাশাহির বিমানে উঠতে পারবেন।

আমিরশাহিতে পৌঁছোনোর পরেও খেলোয়াড় ও সাপোর্ট স্টাফ-সহ সব কর্মীকে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশের মধ্যে প্রবেশ করতে হবে। তবে তার আগে বিমানবন্দরেই প্রত্যেকের কোভিড টেস্ট হবে এবং সেই টেস্টের রিপোর্টও নেগেটিভ আসা বাধ্যতামূলক।

জৈব-সুরক্ষিত হোটেলে উঠে সবাইকে ৭ দিনের কোয়ারান্টাইনে থাকতে হবে। এর মধ্যে আরও তিনটে টেস্ট হবে সবার। টেস্টগুলি হবে প্রথম দিন, তৃতীয় দিন আর ষষ্ঠ দিনে। কোয়ারান্টাইন পিরিয়ড শেষ হলে সবাই অনুশীলনে যোগ দিতে পারবেন।

এর পর প্রতি সপ্তাহের পঞ্চম দিনগুলিতে সবার কোভিড টেস্ট হবে।

বিদেশি খেলোয়াড়দের ক্ষেত্রে আমিরশাহিতে পৌঁছোনোর ৯৬ ঘণ্টা আগের কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট থাকতে হবে।

টুর্নামেন্ট চলাকালীন কোভিড-পজিটিভ হলে?

এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে সংশ্লিষ্ট ওই ব্যক্তিকে বিচ্ছিন্ন (আইসোলেশন) হয়ে যেতে হবে, তবে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশের বাইরে, অন্য জায়গায়। যেখানে ওই ব্যক্তিকে রাখা হবে, সেই ঘরও পুরোপুরি পরিচ্ছন্ন থাকবে।

চলাফেরায় নিয়ন্ত্রণ

ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফদের চলাফেরায় ব্যাপক ভাবে নিয়ন্ত্রণ আনা হচ্ছে। জৈব সুরক্ষিত পরিবেশের বাইরে কেউ বেরোতে পারবে না। এমনকি ওই পরিবেশের মধ্যেও সবাই যাতে নিজেদের মধ্যে প্রয়োজনীয় শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখে সেই দিকটা দেখার কথাও বলা হয়েছে। হোটেল ঘরের বাইরে বেরোলেই ক্রিকেটারদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।

তবে প্রয়োজনে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশ থেকে বেরোতেই হবে। কোনো ক্রিকেটার যদি আহত হয়, তাঁকে হাসপাতালে যেতে হতে পারে। তবে সে ক্ষেত্রেও যাতে বাইরের লোকের সঙ্গে বেশি সংস্পর্শে না আসতে হয়, সেই দিকে নজর দিতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইসিদের।

আটটা দলের আটটা আলাদা হোটেলের প্রস্তাব

খসড়া এসওপিতে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ফ্রাঞ্চাইসিদের বলেছে তারা যেন নিজেদের জন্য আলাদা আলাদা হোটেল বা রিসোর্টের ব্যবস্থা করেন। অর্থাৎ, একটা দলকে একটা হোটেলেই থাকতে হবে, যেখানে অন্য কোনো বাইরের লোক ঢুকতে পারবেন না।

Continue Reading

ক্রিকেট

অঘটন! ৩২৯ তাড়া করে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারাল আয়ারল্যান্ড

মাঝেমধ্যেই মনে হয়েছে সিরিজটা আয়ারল্যান্ডও জিততে পারত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ২০১১-এর বিশ্বকাপে বেঙ্গালুরুতে ৩২৯ রান তাড়া করে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিল আয়ারল্যান্ড। ন’ বছর বাদে যেন একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি।

তবে এ বার পরিস্থিতি ন’ বছর আগের থেকে ভিন্ন। প্রথমত, ম্যাচটি কোনো নিরপেক্ষ কেন্দ্রে নয়, হচ্ছে ইংল্যান্ড। আর দ্বিতীয়ত, ইংল্যান্ড এখন এক দিনের ক্রিকেটে অন্যতম সেরা দল। বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন।

সেই ইংল্যান্ডকে হারানো, তাও আবার ৩২৯ রান তাড়া করে, এটা যে বিশাল কৃতিত্বের তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের সিরিজটি ইংল্যান্ড জিতলেও, মাঝেমধ্যেই মনে হয়েছে সিরিজটা আয়ারল্যান্ডও জিততে পারত। এই সিরিজে ইংল্যান্ডের টপ অর্ডার পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। মঙ্গলবারের ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ৩২৮ রানে পৌঁছে দেওয়ার মূল কারিগর ছিলেন অধিনায়ক ওইন মর্গ্যান, টম ব্যান্টন আর লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানরা।

৮৪ বলে ১০৬ রানের দুর্ধর্ষ একটি ইনিংস খেলেন মর্গ্যান। ব্যান্টন করেন ৫৮। তবে শেষ দিকে নেমে বাঁ হাতি বোলার ডেভিড উইলি ৫১ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংসটি না খেললে ইংল্যান্ড তিনশো পেরোতেই পারত না।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই সাবলীল ছিলেন আয়ারল্যান্ডের ওপেনার পল স্টারলিং। তিন নম্বরে নামা অধিনায়ক অ্যান্ডি ব্যালবির্নির সঙ্গে ২১৪ রানের জুটি বাঁধেন তিনি। ১৪২ রানের অসাধারণ একটা ইনিংস খেলে স্টার্লিং যখন প্যাভিলিয়নের পথ দেখেন, ততক্ষণে ম্যাচ ইংল্যান্ডের হাত থেকে বেরিয়ে গিয়েছে।

শতরান করেন ব্যালবির্নিও। তার পর কেভিন ও’ব্রায়ান আর হ্যারি টেক্টরের ঝোড়ো ইনিংসের সুবাদে শেষ ওভারে ঐতিহাসিক জয় পায় আয়ারল্যান্ড।

Continue Reading

ক্রিকেট

বিতর্কের মধ্যেই আইপিএলের সঙ্গত্যাগ করল চিনা সংস্থা ভিভো

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তাকে আইপিএল (IPL) ছাড়তে না চাইলে কী হবে, সে আইপিএলকে ছেড়ে দিল। অর্থাৎ, বিতর্কের মধ্যেই আইপিএলের টাইটেল স্পনসরশিপ থেকে বেরিয়ে এল চিনা মোবাইল সংস্থা ভিভো (Vivo)।

আইপিএল যখন দেড় মাস দূরে, তখন এ হেন সিদ্ধান্তের ফলে বিসিসিআইয়ের মাথায় যে হাত উঠবে তা বলাই বাহুল্য।

দেশ জুড়ে চিনা পণ্য বর্জনের হাওয়া। সরকারও বেশ কিছু চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে। এই অবস্থায় আইপিএলের স্পনসর ভিভোকে নিয়ে প্রশ্ন ছিল। কিন্তু সেই পথে হাঁটেনি বিসিসিআই। গত রবিবার আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হয় যে এত তাড়াতাড়ি যে হেতু নতুন স্পনসর আনা সম্ভব নয়, তাই ভিভোই আইপিএলের স্পনসর থাকছে।

বিসিসিআইয়ের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আইপিএল বয়কটের ডাক দিয়েছিল আরএসএসের একটি শাখা। তার পরেই নাটকীয় ভাবে আইপিএলের সঙ্গত্যাগ ভিভোর। এই ব্যাপারে অবশ্য ভিভোর তরফে সরকারি কোনো বিবৃতি পাওয়া যায়নি এখনও।

Continue Reading
Advertisement

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা18 hours ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা6 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা1 week ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 weeks ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

নজরে

Click To Expand