বিশ্বকাপ শেষেই অবসর নিতে পারেন তারকা অধিনায়ক, জল্পনা

0
অবসর নিতে পারেন মাশরাফি মোর্তাজা

ওয়েবডেস্ক: এই মুহূর্তে বিশ্বক্রিকেটে অনুপ্রেরণাদায়ক অধিনায়ক যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে বাংলাদেশের মাশরাফি মোর্তাজা অন্যতম। ২০১৫ বিশ্বকাপের ঠিক আগে দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি। তাঁর হাত ধরেই বাংলাদেশ দুর্দান্ত ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটে। গত চার বছরে বড়ো দলকে হারানো কার্যত অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেছে বাংলাদেশ। এর অনেকটাই কৃতিত্ব মাশরাফির। সেই মাশরাফিই বিশ্বকাপ শেষে সম্ভবত অবসর নিতে চলেছেন, এমনই জল্পনা ক্রিকেট মহলে।

এ বার বিশ্বকাপে একদমই ভালো পারফর্ম করতে পারেননি সদ্য আওয়ামি লিগ সাংসদ হওয়া মাশরাফি। অধিনায়কত্বে কোনো খামতি না থাকলেও, ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স এক্কেবারে মনঃপুত নয়। তাই নিজের ক্রিকেট কেরিয়ার আর এগিয়ে নিয়ে যেতে চান না তিনি। পাশাপাশি বিশ্বকাপের পর তাঁর মন্ত্রী হওয়ার ব্যাপারেও একটা জল্পনা রয়েছে। ফলে এখানেই সম্ভবত ক্রিকেট কেরিয়ারে ইতি টেনে দিতে পারেন মাশরাফি।

এই ব্যাপারে মাশরাফি সংবাদমাধ্যমের কাছে কিছুই জানাননি। তবে অবসরের খবর জানা যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সূত্রে। যদিও সরকারি ভাবে এই বিষয়ে কেউই মুখ খুলতে চান না।

আরও পড়ুন শেষ ভালো যার সব ভালো তার! সান্ত্বনা পুরস্কার ক্যারিবিয়ানদের

মাশরাফি যদি সত্যিই অবসর নেন, তা হলে বাংলাদেশ ক্রিকেটের কাছে সেটা বিরাট ক্ষতি। কারণ ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে গিয়েছিল তাঁর নেতৃত্বেই। তার পরের চার বছর বাংলাদেশের ক্রিকেট গ্রাফটা ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী। দু’বার এশিয়া কাপের ফাইনালে নিয়ে গিয়েছেন দলকে। বিশ্বকাপের ঠিক আগেই ত্রিদেশীয় একটি সিরিজেও দলকে চ্যাম্পিয়ন করেছেন। পাশাপাশি পাকিস্তান, ভারত এবং সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজে জয়লাভও বাংলাদেশ করেছে তাঁর নেতৃত্বে। মাশরাফির চলে যাওয়া যে বাংলাদেশ ক্রিকেটের কাছে বিশাল ক্ষতি তা বলাই বাহুল্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here