বিশ্বকাপ ফাইনালে বিতর্কিত সেই ওভারথ্রো নিয়ে বড়ো সিদ্ধান্ত নিতে পারে এমসিসি

0

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপ ফাইনালে বিতর্কিত সেই ওভারথ্রোয়ের পর্যালোচনা করা হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)। সোমবার লন্ডনে এমসিসির অন্তর্গত ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটি বৈঠকে বসেছিল। সেখানেই ঠিক হয়, আগামী মাসেই এই ব্যাপারে পর্যালোচনা করা হবে। কুমার সঙ্গাকারা, শেন ওয়ার্নের মতো ক্রিকেট ব্যক্তিত্বরা এই কমিটির সদস্য।

ঘটনাটি ঘটেছিল বিশ্বকাপ ফাইনালের শেষ ওভারের চতুর্থ বলে। তৃতীয় বল হয়ে যাওয়ার পর, ইংল্যান্ডের শেষ তিন বলে দরকার ছিল ৯। এই পরিস্থিতিতে ট্রেন্ট বোল্টের একটি বল ডিপ মিডউইকেটে পাঠিয়ে দুই রানের জন্য দৌড়োন বেন স্টোক্স। বলটি থ্রো করেন ফিল্ডার মার্টিন গাপ্টিল। সেটা বেন স্টোক্সের ব্যাটে লেগে বাউন্ডারির বাইরে চলে যায়। সে সময়ে আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনাকে দেখা যায়, ইংল্যান্ডকে দু’টো ফিল্ড রান এবং বাউন্ডারির চারটে রান মিলিয়ে ইংল্যান্ডকে মোট ৬ রান উপহার দিতে। কিন্তু ক্রিকেটের নিয়ম অন্য কথা বলে।

আইসিসির নিয়মাবলির ১৯.৮ ধারা অনুযায়ী ক্রিজে থাকা দুই ব্যাটসম্যান যদি একে অপরকে ক্রস করার আগেই ফিল্ডার বলটি থ্রো করেন এবং সেটা ওভারথ্রো হয়, তা হলে ফিল্ড রানটি গ্রাহ্য হবে না। সে ক্ষেত্রে ওভারথ্রোয়ে পাওয়া রানটিই গ্রাহ্য হবে।

আরও পড়ুন কোচের পদের জন্য শাস্ত্রী ছাড়াও আরও পাঁচজনের নাম প্রাথমিকভাবে বাছাই বিসিসিআইয়ের

টিভি রিপ্লেতে দেখা গিয়েছে যে ডিপ মিডউইকেট থেকে মার্টিন গাপ্টিল বল ছোড়ার সময় স্টোকস ও তাঁর নন-স্ট্রাইকার পার্টনার আদিল রশিদ দ্বিতীয় রানের জন্য পরস্পরকে ক্রস করেননি। ফলে আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী তখন ইংল্যান্ডের প্রাপ্য ছিল একটি ফিল্ড রান, যে হেতু প্রথম রানটি দৌড়ে শেষ করেছিলেন স্টোক্স। অর্থাৎ ৬-এর বদলে ইংল্যান্ডের প্রাপ্য ছিল মোট ৫ রান।

এই বিতর্ক শুরু হতেই নড়েচড়ে বসে এমসিসি। তারা সাফ জানিয়ে দেয়, এই ব্যাপারটির পর্যালোচনার প্রয়োজন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here