rohit-dhawan

ওয়েবডেস্ক: এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ভারতের জয় ধারা অব্যাহত। রবিবার সুপার ফোরের ম্যাচে দ্বিতীয় ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে নিয়ে ছেলেখেলা করল রোহিত শর্মার দল। প্রথম উইকেট অধিনায়ক রোহিত এবং ধাওয়ানের জোড়া শতরানে ভর করে ফাইনালে প্রায় চলেই গেল টিম ইন্ডিয়া। আর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জোড়া সেঞ্চুরি যখন, তখন এই ম্যাচে রেকর্ডের বন্যা বইবে সেটাই স্বাভাবিক। সাতটি রেকর্ড করল রোহিত-ধাওয়ান জুটি।

দেখে নিন:

• এই ম্যাচের রোহিত এবং ধাওয়ানের শতরানের পার্টনারশিপ সংখ্যা দাঁড়াল ১৩। যার ফলে তারা টপকে গেলেন তেন্ডুলকর এবং সহবাগ জুটিকে(১২)। অবশ্য এই তালিকায় এখনও শীর্ষে গাঙ্গুলি এবং তেন্ডুলকর। তাঁদের ওপেনিংয়ে সেঞ্চুরি পার্টনারশিপ ২১।

• ভারতের হয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে-তে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পার্টনারশিপের কৃতিত্ব অর্জন করলেন রোহিত এবং ধাওয়ান। প্রথমে রয়েছে তেন্ডুলকর এবং নভজ্যোত সিং সিধুর ২৩১। ১৯৯৬, শারজাহ।

• ভারতের ওপেনিং ইতিহাসে রোহিত এবং ধাওয়ানের রান সংখ্যা ৮৪ ম্যাচে ৩৮৯১। যা তালিকায় তৃতীয় স্থানে। প্রথমে গাঙ্গুলি-তেন্ডুলকর ৬৬০৯ রান এবং দ্বিতীয় সহবাগ এবং তেন্ডুলকর ৩৯১৯ রান।

• আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওপেনিং জুটিতে শতারনের সংখ্যায় চতুর্থ স্থানে পৌঁছে গেল রোহিত-ধাওয়ান জুটি। তালিকায় শীর্ষে গাঙ্গুলি- তেন্ডুলকর (২১)। দ্বিতীয় স্থানে হেডেন- গিলক্রিস্ট (১৬)। গর্ডন গ্রিনিজ- ডেসমন্ড হেইনস(১৫)।

• রান তাড়া করতে গিয়ে ওপেনিং জুটিতে এটাই ভারতের সর্বোচ্চ। এর আগে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে গৌতম গম্ভীর এবং সহবাগের ২০১ ছিল শীর্ষে।

  • ওপেনিং জুটিতে এটি চতুর্থ সর্বোচ্চ রান। শীর্ষে গাঙ্গুলি-তেন্ডুলকরের ২৫৮ বনাম কেনিয়া ২০০১ এবং ২৫২ বনাম শ্রীলঙ্কা, ১৯৯৮। তৃতীয় স্থানে রাহানে-ধাওয়ান ২৩১ বনাম শ্রীলঙ্কা, ২০১৪।

• একদিনের ক্রিকেটে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এটাই সর্বোচ্চ প্রথম উইকেটের পার্টনারশিপ ভারতের। ২১০।

 

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন