আইপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসাবে এভাবে আউট হলেন অমিত মিশ্র

তবে টি২০ ক্রিকেটে কেউ ফেভারিট হয়না। নাটকীয় পটপরিবর্তন অব্যাহত থাকে। এই ম্যাচেও তাই। একসময় মনে হচ্ছিল দিল্লি সহজেই ম্যাচ জিতে যাবে

0
mishra

ওয়েবডেস্ক: বুধবার চলতি আইপিএলের এলিমিনেটরে মাঠে নেমেছিল দিল্লি এবং হায়দরাবাদ। ঘরের মাঠ বলে বিশাখাপত্তনমে কিছুটা অ্যাডভান্টেজ ছিল হায়দরাবাদের। তবে টি২০ ক্রিকেটে কেউ ফেভারিট হয় না। নাটকীয় পটপরিবর্তন অব্যাহত থাকে। এই ম্যাচেও তাই। একসময় মনে হচ্ছিল দিল্লি সহজেই ম্যাচ জিতে যাবে।

কিন্তু  শেষ লগ্নে উইকেট হারিয়ে চাপে পরে যায় তারা। শেষ কামড় দেওয়ার চেষ্টা করে হায়দরাবাদও। অবশ্য তাতে কিছু তফাৎ ঘটেনি। ম্যাচ জিতে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে পৌঁছে গিয়েছে দিল্লি।  

তবে এই ম্যাচেই এক অদ্ভুত কাণ্ড ঘটেছে। ক্রিকেটে এমন আউট সচরাচর দেখা যায় না। শেষ ওভারে বল করছিলেন হায়দরাবাদের খলিল আহমেদ। তিন বলে দরকার ছিল দুই রান। ব্যাটে ছিলেন অমিত মিশ্র। ব্যাটে বল লাগাতে না পারলেও, রানের জন্য এগোন তিনি। উইকেট কিপারের থেকে বল পেয়ে ক্রিজের বিপরিতে উইকেটে মারার চেষ্টা করেন খলিল।

ক্রিকেটের নিয়ম অনুযায়ী, রান নেওয়ার সময়ে সোজা লাইন বরাবরই এগোতে হবে ব্যাটসম্যানকে। লাইন বেঁকলে চলবে না। কিন্তু সেটাই করেন মিশ্র, ফলে খলিলের ছোঁড়া বল তাঁর হাতে লাগে। নিয়ম অনুযায়ী ইচ্ছাকৃত উইকেটে সামনে দাঁড়িয়ে পড়লে সেই ব্যাটসম্যান আউট।

আইপিএলে দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসাবে এই আউট হন মিশ্র। এর আগে ২০১৩ সালে পুনে ওয়ারিয়ার্সের বিরুদ্ধে এমন আউট হয়েছিলেন কলকাতার ইউসুফ পাঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here