mitali

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের দলে মিতালি রাজের দলে সুযোগ না পাওয়া নিয়ে এই মুহূর্তে তোলপাড় ভারতীয় ক্রিকেট। যার জেরে চাকরি খোয়াচ্ছেন ভারতীয় দলের কোচ রমেশ পাওয়ার। এবার সেই নিয়ে মুখ খুললেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী খেলোয়াড় মদন লাল।

তাঁর মতে কোচ রমেশ পওয়ারের চুক্তির নবীকরণ করা উচিত ছিল। এবং টুর্নামেন্ট চলাকালীন যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল তা নিয়ে বিতর্ক তৈরি করা উচিত ছিল না।

madan
মদন লাল

সাক্ষাৎকারে মদন লাল জানান, “যদি আপনি বারবার কোচ বদলান, তার চেয়ে ভাল একটা পুতুল রেখে দিন। যে খেলোয়াড়দের কথা মতো কাজ করবে। কোচ দলের সদস্য এবং তিনি যা সিদ্ধান্ত নেবেন তা সবাইকে মানতে হবে। কোচও (পওয়ার) জিততে চেয়েছিল। যার সঙ্গে ছিলেন অধিনায়ক হরমনপ্রীত কৌরও। শুধু পওয়ারকে দায়ী করা হবে কেন? নির্বাচকরাও এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে যুক্ত। অহেতুক ওকে (পওয়ারকে) সরানো হচ্ছে। এই ভাবে খেলা কখনই এগোতে পারবে না।”

বিসিসিআই-কে পাঠানো মিতালির ইমেল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “খেলার থেকে কেউ বড়ো নয়। এমনকি কোনো গ্যারান্টি ছিল যে মিতালি রাজ খেললেই ভারতীয় দল ফাইনালে পৌঁছাত? এটা একটা টিম গেম, একক খেলা নয়। আমি সবসময় বিশ্বাসী যে কোচ এবং অধিনায়ক সর্বোচ্চ কর্তৃত্ব। পরিস্থিতি বুঝেই তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমরা যখনই খেলোয়াড়কে খেলার চেয়ে বড়ো ভাবি তখনই এই ধরনের বিতর্কের সৃষ্টি হয়। তবে মাঝেমাঝে আমার মনে হয়, মিতালির মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের সেমিতে খেলা উচিত ছিল। তবে অধিনায়ক এবং কোচ মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যা কখনও ভালো আবার কখনও খারাপও হতে পারে। এটা ৫০ ওভারের ম্যাচ নয়। টি২০ ম্যাচ। যদি তুমি ৬-৭ ওভার নষ্ট কর, তাহলে তোমার দল চাপে পড়ে যাবে। আমি অধিনায়ক এবং কোচের পাশেই দাঁড়াব। তাঁরা যা সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা ছিল দলের জন্য এবং তাতে নির্বাচকরাও জড়িত ছিল। খেলাতে অনেকসময় আপনাকে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়। যা পুরোটাই দলের জন্য। পওয়ার মিতালির শত্রু নয়। খেলোয়াড়ের এটাই মাথায় রাখা দরকার কীভাবে সে টি২০ দলে নিজেকে অ্যাডজাস্ট করতে পারবে এবং ভালো পারফরমেন্স করতে পারবে”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here