নিউজিল্যান্ড: ২৩৫/১০ (৭৩.১ ওভার), ভারত: ২৪২/১০ (৬৩.০ ওভার) এবং ৯০/৬ (৩৬ ওভার)

ওয়েবডেস্ক: ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ৬৩/০ থেকে শুরু করে ২৩৫ রানের গণ্ডিতেই আটকে গেলেন কিউয়িরা। বুমরাহ এবং শামির আগুনে বোলিংয়ের সামনে খুব বেশিক্ষণ দাঁড়াতে পারলেন না কেন উইলিয়ামসনরা।

Loading videos...

প্রথম দিন প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৬৩ ওভারে ভারতের ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২৪২ রানে। জবাবে ওই দিনই বিনা উইকেটে ৬৩ রান তুলে নিয়ে নিউজিল্যান্ড ব্যবধান নামিয়ে নিয়ে আসে ১৭৯ রানে। তবে দ্বিতীয় ওপেনার টম ব্লান্ডেল উমেশ যাদবের শিকার হওয়ার পরই একে-একে ধস নামে কিউয়ি-শিবিরে। বোলিংয়ে দাপট দেখানো জেমেইসন ব্যাটিংয়ে নজর কাড়েন। তবে বাকিরা সে ভাবে সফল হতে পারেননি।

রবিবার ক্রাইস্টচার্চের দ্বিতীয় টেস্টে মহম্মদ শামি ও জসপ্রীত বুমরাহর আগুনে বোলিংয়ে প্রথম ইনিংসের নেতৃত্বে থাকা নিউজিল্যান্ড নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। যার জেরে ফের একবার চালকের আসন ফিরে পায় পর ভারত। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের শীর্ষস্থানীয় ব্যাটিংয়ের ব্যর্থতাও ফের সুযোগ ছিন্ন করার ইঙ্গিত দিয়ে রাখল।

প্রথম ইনিংসে রানের খরা কাটিয়ে অর্ধশতক করেছিলেন ওপেনার পৃথ্বী শ’। এ দিন মাত্র ১৪ রানেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। তবে অধিনায়ক বিরাট কোহলির ব্যাটিংয়ে খুব একটা হেরফের ঘটেনি এ দিনও। প্রথম ইনিংসে ৩ রানে ফিরেছিলেন, এ দিন দুই অঙ্কের সংখ্যা ডিঙিয়ে ১৪ রানেই পাত্তাড়ি গোটান বিরাট।

তিনটি অর্ধশতক, তবুও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মরিয়া লড়াই ছাড়া বিকল্প নেই ভারতের

দিনের শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ৯০ রান সংগ্রহ করতে সফল হয় বিরাট-ব্রিগেড। প্রথম ইনিংসের ৭ রান এবং দ্বিতীয় ইনিংসের ৯০ মিলিয়ে আপাতত ৯৭ রানেই এগিয়ে রয়েছে ভারত। হাতে আরও তিনদিন! হোম টিমের ভাগ্য এখন অনেকটাই নির্ভরশীল ভারতীয় বোলারদের হাতে। তাঁরা প্রথম ইনিংসের পুনরাবৃত্তি না হলে টপ অর্ডারের চরম ব্যর্থতায় ওয়ান ডে-র পর ফের না একবার সিরিজ হাতছাড়া হয়ে যায়!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.