pandya

ওয়েবডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজে প্রথম এগারোয় সুযোগ পাননি। তবে এই মুহূর্তে রীতিমতো শিরোনামে ভারতের তরুণ অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ড্য। সম্প্রতি তিনি এবং জাতীয় দলের তাঁর সতীর্থ কে এল রাহুল জনপ্রয় টিভি শো ‘কফি উইথ করণে’ একটি পর্বে ছিলেন। যেটি হোস্ট করেন বিখ্যাত বলিউড পরিচালক করন জোহার। তবে সেই তো যাওয়ার পরই রীতিমতো শিরোনামে তিনি। যার জন্য তাঁকে এবং রাহুলকে শো-কজও করেছে বিসিসিআই।

আরও পড়ুন: বার্সেলোনা ছেড়ে ইংল্যান্ডে পাড়ি দিচ্ছেন এই তারকা ফুটবলার?

কারণ শো-তে অনেক ব্যক্তিগত এবং কুচুটে প্রশ্ন করা হয়। এবং কোনো অস্বস্তি না প্রকাশ করেই তাঁর উত্তর দেন হার্দিক এবং রাহুল। যেমন জিজ্ঞেস করা হয় সচিন তেন্ডুলকর না বিরাট কোহলি, কে সেরা ব্যাটসম্যান। উত্তরে তাঁরা জানান, বিরাট কোহলি। যার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থকদের বিদ্রুপের মধ্যে পড়তে হয় হার্দিককে। একই সঙ্গে নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও বেশ খোলাখুলি কথা বলেন তিনি। যার মধ্যে মহিলা বিষয়ক বক্তব্যও ছিল। দুই ক্রিকেটারের এ ধরনের মন্তব্যকে সোশ্যাল মিডিয়ায় নারী বিদ্বেষী হিসাবে সমালোচনা করা হয়।

জানা গিয়েছে, লিখিত ভাবে বোর্ডের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন হার্দিক। তবে রাহুল এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে বোর্ডের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন কি না, তা জানা যায়নি।

ক্ষমা চেয়ে চাইলেন হার্দিক বলেন শোয়ের ধারার সঙ্গে তিনি কিছুটা ভেসে গেছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তিনি বলেন, “কফি উইথ করনে নিজের মন্তব্যের পর, আমি সবার কাছে ক্ষমা চাইছি। যারা আমার কথা শুনে আঘাত পেয়েছেন। সত্যি বলতে আমি শোয়ের ধারার সঙ্গে কিছুটা ভেসে গেছিলাম। আমি কোনো ভাবে কারুর সেন্টিমেন্টে আঘাত করতে চাইনি। সম্মান”।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Hardik Pandya (@hardikpandya93) on

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here