ipl2

পঞ্জাব – ১৮২/৬ (কেএল রাহুল ৫২, মিলার ৪০, আর্চার ৩-১৫)     

রাজস্থান -১৭০/৭ (ত্রিপাঠী ৫০, বিনি ৩৩ নট আউট, অশ্বিন ২-২৪)

ওয়েবডেস্ক: চলতি আইপিএলে ঘরের মাঠে যে দিন কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের মুখোমুখি হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালস, সে দিন এক বিতর্কিত ঘটনা ক্রিকেট জগতে আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল। রাজস্থানের জশ বাটলারকে পঞ্জাবের অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিনের আউট করা, ক্রিকেটীয় পরিভাষায় যাকে বলে মানকাডিং বা মাঁকড়ীয় পদ্ধতিতে আউট করা। খেলায় জেতাহারা নিয়ে নয়, সে দিন যেন খবরের শিরোনাম হয়ে গিয়েছিল সেই আউট।

মঙ্গলবার আইপিএলের ফিরতি ম্যাচে পঞ্জাবের ঘরের মাঠে মুখোমুখি হয় দুই দল। এ দিন অবশ্য কোনো বিতর্ক আর অশ্বিনকে পিছু তাড়া করেনি। রাজস্থানকে ১২ রানে হারিয়ে পঞ্জাবের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দু’টি পয়েন্ট তুলে নিয়ে বলা যায় সেই বিতর্কের রেশ থেকে এ বার বেরিয়ে এলেন অশ্বিন।

আরও পড়ুন দল বাছাইয়ের আগে নজিরবিহীন এই কাজটি করল বিসিসিআই

টস জিতে পঞ্জাবকে ব্যাট করতে পাঠায় রাজস্থান। যত আইপিএল এগোচ্ছে নিজের ফর্ম আরও ফিরে পাচ্ছেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান কেএল রাহুল, যা বিশ্বকাপের আগে ভারতের কাছে সুখবর। এ দিনও অর্ধশত রান করেন তিনি। তাঁকে সঙ্গ দেন বর্ষীয়ান গেল। এই দু’জন ফিরে গেলেও দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন ডেভিড মিলার। ফলে লড়াই করার অবস্থায় অনেকটাই এগিয়ে থাকে পঞ্জাব।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে আক্রমণাত্মক শুরু করলেও, বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেননি রাজস্থানের তারকা ব্যাটসম্যান বাটলার। তবে দুই ভারতীয় ক্রিকেটার সঞ্জু স্যামসন এবং রাহুল ত্রিপাঠীর যুগলবন্দিতে এগোতে থাকে রাজস্থান। অর্ধশতক করেন ত্রিপাঠী। এই দু’জন ফিরে যাওয়ার পর দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন স্টুয়ার্ট বিনি। কিন্তু যোগ্য সঙ্গীর অভাবে দলকে জয় এনে দিতে পারলেন না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here