কোচ হিসেবে প্রথম সিরিজেই সাফল্য দ্রাবিড়ের, দীপক চাহরের ব্যাটিং তাণ্ডবে রুদ্ধশ্বাস জয় ভারতের

    আরও পড়ুন

    খবরঅনলাইন ডেস্ক: এক্কেবারে সাদামাটা শ্রীলঙ্কা দলের বিরুদ্ধে খেলতে নেমেছে ভারতের ‘বি’ দল। প্রথম দিকে সিরিজটা নিয়ে খুব একটা আগ্রহ কারওরই প্রায় ছিল না। কিন্তু অধিকাংশ ভারতবাসীর নয়নের মণি রাহুল দ্রাবিড় যেখানে কোচ, সেখানে সিরিজটা থেকে মুখ ফিরিয়েও থাকা সম্ভব ছিল না।

    সেই দ্রাবিড়ই কোচ হিসেবে তাঁর প্রথম সিরিজই জিতে নিলেন। কার্যত হারা ম্যাচ ভারতকে জিতিয়ে দিল দীপক চাহরের রুদ্ধশ্বাস ব্যাটিং। মূলত বোলার হিসেবেই ভারতীয় দলে স্থান পাওয়ায় এই অলরাউন্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে তাঁর জাত চেনালেন।

    Loading videos...

    শুরুতে অবশ্য বোলিংয়েই নিজের জাত চেনান চাহর। প্রথমে বল হাতে ৫৩ রানে ২ উইকেট নেন তিনি। এর পরে দলের প্রয়োজনে ৮২ বলে অপরাজিত ৬৯ রানের ইনিংস। একা হাতে শ্রীলঙ্কাকে ৩ উইকেটে হারিয়ে দলকে এক ম্যাচ বাকি থাকতে একদিনের সিরিজ জেতালেন তিনি। স্বভাবতই হয়েছেন ম্যাচের সেরা।

    - Advertisement -

    কার্যত হেরে যাওয়া ম্যাচ নাটকীয় ভাবেই ভারতের পক্ষে ঘুরিয়ে দিলেন চাহর। সঙ্গে পেয়েছিলেন ভুবনেশ্বর কুমারকে। অষ্ঠম উইকেটে এই দুজনের ৮৪ রানের জুটি বিপক্ষের সিরিজে সমতা ফেরানোর স্বপ্নকে মাটিতে মিশিয়ে দিল।

    রবিবার প্রথম একদিনের ম্যাচের কার্যত পুনরাবৃত্তিই হল মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ে। দুই ওপেনার আভিস্কা ফার্নান্দো ও মিনোদ ভানুকা বেশ ভালো ভাবেই সামলাচ্ছিলেন। ৪২ বলে ৬টি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৩৬ রান করেন ভানুকা। অর্ধশতরান করে ভুবির বলে সাজঘরে ফেরেন ফার্নান্দো। কিন্তু এরপরেই ধস নামে মিডল অর্ডারে। আশালঙ্কা ছাড়া আর কেউই ক্রিজে টিকতে পারেননি।

    যুজবেন্দ্র চহাল ৫০ রানে ৩ উইকেট নেন। দুটি করে উইকেট নেন ভুবি ও দীপক চাহার। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৭৫ রানে থেমে যায় শ্রীলঙ্কা।

    তবে ভারতীয় ব্যাটিংয়ের শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি। ১৩ রানেই আউট হন পৃথ্বী শ। ২৯ রান করেই ফেরেন শিখর ধাওয়ান। এর পর মণীশ পাণ্ডে (৩৭) সূর্যকুমার যাদব (৫৩), ক্রুণাল পাণ্ড্য (৩৫) লড়লেও একটা সময় ১৯৩ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত।

    এই সময়ে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা পুরোপুরি চাঙ্গা হয়ে গিয়েছিলেন। যতই দ্বিতীয়সারির দল হোক না কেন, ভারতকে হারানো সব সময় একটা দুর্দান্ত ব্যাপার। কিন্তু এই জায়গা থেকেই ম্যাচ ঘুরিয়ে দিলেন চাহর।

    অষ্টম উইকেটে চাহর-ভুবির জুটি তফাত গড়ে দিল। বোলিংয়ের পর এ বার ব্যাট হাতেও দলকে বাঁচালেন চাহর ও ভুবি। এ বার হোয়াইটওয়াশ করে রাহুল দ্রাবিড়ের ছেলে ‘হেলায় লঙ্গা জয়’ করেন কি না, সেটাই দেখার।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর