ওয়েবডেস্ক: ইন্ডিয়া টিভি-র বিশেষজ্ঞ হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর থেকেই নিত্য নতুন চমকপ্রদ কথা বলছেন বীরেন্দ্র শেহওয়াগ। শনিবার তেমনই এক চমকপ্রদ মন্তব্য করলেন এই প্রাক্তন বিধ্বংসী ওপেনার।

শনিবার ইন্ডিয়া টিভিতে শেহওয়াগ বলেন, ২০০৪ সালে ভারতীয় দলে ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে নানা পরীক্ষানিরীক্ষা চলছিল। সে বছরই সৌরভের অধিনায়কত্বেই অভিষেক হয় মহেন্দ্র সিং ধোনির। শেহওয়াগ বলেন, টিম ম্যানেজমেন্ট ঠিক করে, যদি ওপেনিং জুটি ভালো রান তোলে, তা হলে তিন নম্বরে সৌরভ নামবেন। আর প্রথম উইকেট যদি তাড়াতাড়ি পড়ে যায়, তা হলে তিন নম্বরে ধোনি বা ইরফান পাঠানের মতো কোনো পিঞ্চ হিটারকে নামানো হবে। এই পরিকল্পনার পরই ৩-৪টি ম্যাচ ধোনিকে তিন নম্বরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক সৌরভ।

আরও পড়ুন: টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম এই কৃতিত্বের অধিকারী হলেন পাকিস্তানের স্পিনার ইয়াসির শাহ

শেহওয়াগ বলেন, সৌরভ নিজের ওপেনিং-এর জায়গাটি শেহওয়াগকে ছেড়ে দিয়েছিলেন, তিন নম্বর জায়গাটাও ধোনিকে ছেড়ে দেন। কোনো অধিনায়ক চট করে এমন কাজ করবেন না। সব সময় নতুনদের সুযোগ দেওয়ার জন্য সৌরভকে কৃতিত্ব দেন বীরু। তিন নম্বরে নামার সুযোগটা ধোনি সুদে-আসলে কাজে লাগিয়েছিলেন। কিছু দিনের মধ্যেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ১৪৮ এবং শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ১৮৩ রান করেন এমএসডি। তবে শেহওয়াগের মতে, সৌরভ সে দিন তাঁকে ওই সুযোগটা না দিলে ধোনি আজ এই পর্যাায়ে উঠে আসতে পারতেন না।

সৌরভের পরে দ্রাবিড়ও যে অধিনায়কের জায়গা থেকে ধোনিকে ফিনিশার হিসেবে গড়ে উঠতে সাহায্য করেছেন, সে কথাও উল্লেখ করতে ভোলেননি শেহওয়াগ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here