ব্যাটে বলে বিরাটদের মাত করে টি ২০ সিরিজ টাই করল সাউথ আফ্রিকা

0
s africa wins 3rd t20
তৃতীয় টি২০ ম্যাচে জিতল সাউথ আফ্রিকা। ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই টুইটার।

ভারত: ১৩৪-৯ (ধাওয়ান ৩৬, ঋষভ ১৯, রাবাদা ৩-৩৯, হেন্ড্রিক্স ২-১৪)

সাউথ আফ্রিকা: ১৪০-১ (ডি কক ৭৯ নট আউট, হেন্ড্রিক্স ২৮, হার্দিক ১-২৩)

বেঙ্গালুরু: ব্যাটে বলে ভারতকে কার্যত গুঁড়িয়ে দিল সাউথ আফ্রিকা। রবিবার বেঙ্গালুরুতে আয়োজিত তৃতীয় টি২০ ম্যাচে কোহলিদের ৯ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ অমীমাংসিত করল সাউথ আফ্রিকা। ধরমশালায় সিরিজের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে যায়। মোহালিতে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জিতেছিল ভারত।

আরও পড়ুন: ফের সভাপতিপদে সৌরভ, সিএবিতে দাদা-কাকাও

রবিবার ভারতের দেওয়া ১৩৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে গিয়ে সাউথ আফ্রিকাকে কখনোই কোনো অস্বস্তিকর অবস্থায় পড়তে হয়নি। হেন্ড্রিক্সকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাট করতে নামেন অধিনায়ক ডি কক। দু’ জনে মিলে ১০.১ ওভারে দলকে যখন ৭৬ রানে পৌঁছে দেন, তখনই ম্যাচের ফল কী হতে চলেছে বোঝা গিয়েছিল। ভারতের সাফল্য বলতে ওই একটাই। হার্দিকের বলে দলের ৭৬ রান এবং নিজের ২৮ রানে আউট হন হেন্ড্রিক্স। ডি কককে সঙ্গ দিতে নামেন বাভুমা। দু’ জনে অবিচ্ছিন্ন থেকে দলকে জয়ের শিরোপা পরিয়ে দেন। সপ্তদশ ওভারের পঞ্চম বল সীমানার বাইরে পাঠিয়ে দলকে জয়ে পৌঁছে দেন বাভুমা। সহজেই ১৬.৫ ওভারে ১ উইকেটে ১৪০ রান তুলে সিরিজ টাই করল সাউথ আফ্রিকা।

মাত্র ১৪ রানে ভারতের ২টি উইকেট তুলে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হলেন বিউরান হেন্ড্রিক্স। আর দু’টি ম্যাচে ১৩১ রান করে ম্যান অফ দ্য সিরিজ হলেন সাউথ আফ্রিকার অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ভারত বিশেষ কিছু ফায়দা করতে পারেনি। ওপেনিং করতে নেমে শিখর ধাওয়ানের ৩৬ রান ছাড়া উল্লেখযোগ্য রান আর কারও নেই। ১৯ রান করে ঋষভ আর জাডেজা দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও ঋষভের কাছে প্রত্যাশা আরও অনেক বেশি, বিশেষ করে তাঁর ঘাড়ের কাছে যখন নিঃশ্বাস ফেলছেন আরও জনা তিনেক প্রতিশ্রুতিমান উইকেটকিপার।

টেস্টে ওপেন করার ব্যাপারে রোহিতের নাম যখন প্রায় চূড়ান্ত, ঠিক সেই সময়ে টি২০-তে ওপেন করতে নেমে ব্যর্থ হলেন তিনি। মাত্র ৯ রান করে হেন্ড্রিক্সের বলে আউট হয়ে তিনি যখন প্যাভেলিয়নে ফেরেন তখন দলের স্কোর ২২। এর পর কোহলির সঙ্গে জুটি বেঁধে রান এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন ধাওয়ান। কোহলি যেন আজ কিছুটা নিষ্প্রভই ছিলেন। দলের ৬৩ রানের মাথায় ধাওয়ান আউট হয়ে যাওয়ার প্রায় পরেই পরেই কোহলি বিদায় নেন। তাঁর রান ১৫ বলে ৯, অর্থাৎ রানরেট ৬০ – একেবারেই কোহলিচিতই নয়।

দলের ৬৮ রানে কোহলি বিদায় নেওয়ার পর পতন কিছুটা ঠেকিয়ে রাখার চেষ্টা করেন ঋষভ। তবে কাজের কাজ তেমন কিছু হয়নি। দলের ৯০ রানে ফরটুইনকে উইকেট দিয়ে বিদায় নেন ঋষভ। সপ্তম উইকেটের জুটিতে জাডেজা কিছুটা চেষ্টা করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত দলের ১২৭ রানের মাথায় রাবাদার বলে ওঁরই হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন জাডেজা। নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ১৩৪ রান করে গুটিয়ে যায় ভারত। সাউথ আফরিকার হয়ে রাবাদা, হেন্ড্রিক্স আর ফরটুইন উইকেটগুলি ভাগাভাগি করে নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here