ঋদ্ধিমান সাহা

মুম্বই : ১৪৯-৮ (পোলার্ড ৪১, সূর্যকুমার ৩৬, সন্দীপ ৩-৩৪)

হায়দরাবাদ : ১৫১/০ (ডেভিড ওয়ার্নার ৮৫, ঋদ্ধিমান সাহা ৫৮)

খবরঅনলাইন ডেস্ক বাঙালির ব্যাটে স্বপ্নভঙ্গ কলকাতার। এর ঠেকে সেরা শীর্ষক মঙ্গলবার কীই বিএ হতে পারে! যে ঋদ্ধিমান সাহাকে গোটা আইপিএলে কার্যত বসিয়ে রাখল হায়দরাবাদ। তাকে ওপেনিং জুটিতে পাঠিয়ে সাফল্য এল। মুম্বইকে ১০ উইকেটে হারিয়ে প্লে অফে জায়াগা করে নিল তারা।

ঋদ্ধিমান অপরাজিত থাকলেন ৫৮ রান করে। অন্যদিকে হায়দরাবাদের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার অপরাজিত থাকলেন ৮৫ রানে করে।

এই ম্যাচ হারলেও, ১৪ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরেই থাকল মুম্বই। ১৪ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে দিল্লি ক্যাপিটালস।

কলকাতা নাইটরাইডার্স সমর্থকদের পূর্ণ সমর্থন এ দিন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের দিকে ছিল। কেকেআর ফ্যানদের আশা ছিল লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা মুম্বই আরও একটি ম্যাচ জিতে তাদের প্রিয় দলকে শেষ চারে জায়গা করে দেবে। কিন্তু ম্যাচের শুরু থেকেই এ দিন তারা হতাশ হতে শুরু করেন। কারণ, হায়দরাবাদের বোলিংয়ের যোগ্য জবাবই কার্যত দিতে পারেনি মুম্বই।

যদিও এ দিন সেরা চমক ছিল ম্যাচের শুরুতেই, যখন মুম্বইয়ের হয়ে টস করতে নামতে দেখা যায় রোহিত শর্মাকে। অর্থাৎ, রোহিত সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। এ বার অস্ট্রেলিয়াগামী দলে তাঁকে ফেরানো হয় কি না, সেটাই দেখার।

রোহিত ফিরে আসায় নিজেদের পুরনো ওপেনিং জুটিতে ফিরে যায় মুম্বই। কিন্তু সেই জুটি ব্যর্থ হয়। ম্যাচের বয়স যখন তিন ওভারে, তখনই রোহিতকে ফিরিয়ে দেন সন্দীপ শর্মা। দুই ওভার পর, ফের আঘাত হানেন সন্দীপ। এ বার ড্রেসিং রুমের পথ দেখেন কুইন্টন ডে কক।

তৃতীয় উইকেটে সূর্যকুমার যাদব এবং ঈশান কিষাণের জুটির মধ্যে দিয়ে প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ওঠে মুম্বই। দু’জনের দাপটে তর তর করে এগোতে থাকে মুম্বইয়ের ইনিংস। দ্বাদশ ওভারে শাহবাজ নাদিম যখন এই জুটি ভাঙেন ততক্ষণে মুম্বইয়ের ইনিংস ৮০ পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখান থেকে ফের বিপথে যেতে থাকে হায়দরাবাদের ইনিংস।

মাত্র ১ রানের মধ্যে পর পর তিনটে উইকেট হারিয়ে ফেলে মুম্বই। এর মধ্যে দুটো তোলেন নদিম এবং অন্যটি রশিদ খান। মুম্বইয়ের ইনিংসে কার্যত ব্রেক লেগে যায়। এই অবস্থা থেকে দলকে উদ্ধার করেন কায়রন পোলার্ড।

যখনই প্রয়োজন হয়েছে, দলের জন্য দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন পোলার্ড। এ দিনও সেটাই হল। স্লগ ওভারে চারটে বলকে বাউন্ডারির ওপরে আছড়ে ফেলেন তিনি। ২৫ বলে তাঁর ঝোড়ো ইনিংসে সৌজন্যে মুম্বইয়ের স্কোর দেড়শোর কাছাকাছি পৌঁছে যায়।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে অত্যন্ত আগ্রাসী ভাবে শুরু করে হায়দরাবাদ। তার নেপথ্যে এ দিনও সেই ঋদ্ধিমান সাহাই ছিলেন। তিন ওভারের মধ্যে ২১ রান করে ফেলেন ঋদ্ধি।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন