খবরঅনলাইন ডেস্ক: তাঁদের জুটি যেমন বহু বছর ধরে ভারতকে বহু ম্যাচ জিততে সাহায্য করেছে, তেমনই ভারতীয় ক্রিকেটের (Indian cricket) উজ্জ্বল এবং নিরাপদ ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করার ব্যাপারে তাঁদের বর্তমান ভূমিকা অনেকটা পথ যাবে। সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguli) এবং রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) সম্পর্কে এমনটাই মনে করেন ভিভিএস লক্ষ্মণ (VVS Laxman)।  

আরও পড়ুন: গত ৫০ বছরে শ্রেষ্ঠ ভারতীয় টেস্ট ব্যাটসম্যান রাহুল দ্রাবিড়: উইজডেন ইন্ডিয়া

Loading videos...

গত অক্টোবরে সৌরভ ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (BCCI) ৩৯তম সভাপতি নির্বাচিত হন এবং রাহুল গত জুলাইয়ে ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমির (National Cricket Academy, NCA) প্রধান নির্বাচিত হন। লক্ষ্মণ মনে করেন, ভারতীয় ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে এই জুটির যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে।

স্টার স্পোর্টস-এ (Star Sports) ক্রিকেট কানেকটেড শোয়ে (Cricket Connected Show) লক্ষ্মণ বলেন, “বিসিসিআইয়ের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি আর ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমির প্রধান রাহুল দ্রাবিড়, দারুণ জুটি। যদি ভারতীয় দল ক্রিকেটের সব ফরম্যাটে সফল হতে চায় তা হলে এই জুটির প্রভূত গুরুত্ব আছে। আমি মনে করি প্রত্যেকেই গুরুত্বপূর্ণ – দলের অধিনায়ক, এনসিএ-র প্রধান এবং বিসিসিআই সভাপতি।”

গত ডিসেম্বরে সৌরভ ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে গিয়ে রাহুলের সঙ্গে আলোচনা করেন। তিনি বলেন, ভারত ‘এ’ ও আন্ডার-১৯ দলের প্রাক্তন কোচকে আরও বড়ো দায়িত্ব দেওয়া উচিত। রাহুল দ্রাবিড় ও জসপ্রীত বুমরাহের মতবিরোধের খবর চাউর হওয়ার পরে সৌরভ এনসিএ-তে যান।

বুমরাহের আচরণে ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন দ্রাবিড়। তিনি বুমরাহের বাধ্যতামূলক ফিটনেস টেস্ট করাতে চাননি। এই ফিটনেস টেস্টের মাধ্যমে জাতীয় দলে ফিরে আসার ছাড়পত্র পেতেন ফাস্ট বোলার বুমরাহ। স্ট্রেস ফ্র্যাকচারের জন্য দল থেকে বেরিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন বুমরাহ। বুমরাহ যত দিন ধরে সুস্থ হচ্ছিলেন তত দিন এনসিএ-তে প্রশিক্ষণ নেওয়ার বদলে নিজস্ব বিশেষজ্ঞ ও প্রশিক্ষকদের কাজে লাগিয়েছিলেন। এতেই ক্ষুব্ধ হন দ্রাবিড়। এ ব্যাপারে সৌরভ পরিষ্কার বলে দিয়েছিলেন, প্রত্যেক ভারতীয় ক্রিকেটারকে এনসিএ-র মাধ্যমে তাঁর ফিটনেস প্রমাণ করতে হবে। এটা বাধ্যতামূলক মনে করতে হবে।

“রাহুলের কাছ থেকে বিরাট আশা করি। ও একজন দুর্ধর্ষ খেলোয়াড়। ওর কাছ থেকে সবাই দায়বদ্ধতা শিখবে, কী করে নিখুঁত হতে হয় শিখবে। আমরা সমস্যা মিটিয়ে নেব। এনসিএ-কে সুসংগঠিত করার জন্য আমরা রাহুলকে দায়িত্ব দিয়েছি। আমরা ওর ভূমিকা আরও বাড়িয়ে দেব। আমি ওর সঙ্গে এবং অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি”, গত ডিসেম্বরে এই কথা বলেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.